লস অ্যাঞ্জেলেসে পোশাকের দোকানে পুলিশের গুলিতে কিশোরী নিহত

বুধবার, ২৯ ডিসেম্বর ২০২১

লস অ্যাঞ্জেলেসে  পোশাকের দোকানে পুলিশের গুলিতে কিশোরী নিহত
দূর্ঘটনাকবলিত পোশাকের দোকান [ ছবিঃ সংগৃহীত ]

লস অ্যাঞ্জেলেসে , বার্লিংটন নামক একটি পোশাকের দোকানে পুলিশের গুলিতে ১৪ বছর বয়সি এক কিশোরীসহ দুজন নিহত হয়েছে। ওই কিশোরী তার মায়ের সঙ্গে নতুন পোশাক কিনতে দোকানে এসেছিল। সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, দোকানের ড্রেসিংরুমে (পোশাক পরে দেখার কক্ষ) থাকা অবস্থায় পুলিশের একটি বুলেট দেয়াল ভেদ করে কিশোরীকে আঘাত করে।


পুলিশ বলছে—দোকানের ভেতরে এক ব্যক্তি গুলি চালিয়েছে বলে খবর পাওয়ার পর পুলিশ সেখানে গুলি চালায়। সন্দেহভাজন ওই ব্যক্তি পুলিশের গুলিতে নিহত হয়। তবে, ঘটনাস্থলে কোনো বন্দুক পাওয়া যায়নি।

ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের বিচার বিভাগ এ ঘটনার তদন্ত করছে।

ঘটনাটি ঘটে স্থানীয় সময় গত বৃহস্পতিবার সকাল পৌনে ১২টার দিকে উত্তর হলিউডের বার্লিংটন ডিপার্টমেন্ট স্টোরে। বড়দিনের ছুটি উপলক্ষ্যে দোকানে ছিল ক্রেতার ব্যাপক ভিড়।

প্রত্যক্ষদর্শী এবং দোকানের কর্মীরা স্থানীয় গণমাধ্যমকে জানান, এক ব্যক্তি দোকানের ভেতরে উদ্‌ভ্রান্তের মতো আচরণ ও ভাঙচুর করছিল।

পুলিশ জানায়, জরুরি নম্বর ৯১১-এ ফোন করে কেউ একজন জানান, তিনি দোকানের ভেতরে বাগ্‌বিতণ্ডা শুনছেন এবং সেখানে গুলিও চালানো হয়েছে বলে সন্দেহের কথা জানান। পুলিশ আরও জানায়, তারা ঘটনাস্থলে একজন সক্রিয় বন্দুকধারী থাকার তথ্য পেয়েছিলেন।

ফায়ার সার্ভিসের এক কর্মকর্তা সাংবাদিকদের বলেন, পুলিশ এসে দোকানের ওপর তলায় ‘কারও ওপর হামলা করতে উদ্যত এক ব্যক্তিকে’ খুঁজতে থাকে এবং একপর্যায়ে গুলি চালায়।

সন্দেহভাজন ওই ব্যক্তি প্রায় সঙ্গে সঙ্গে নিহত হন। তাঁর মরদেহের কাছে সাইকেলের একটি ভারী তালা পেয়েছে পুলিশ। তবে, কোনো বন্দুক উদ্ধার হয়নি।

পুলিশ কর্মকর্তারা এরপর সন্দেহভাজন ওই ব্যক্তির পেছনে একটি ড্রেসিং রুমের কাছের দেয়ালে ছিদ্র দেখতে পান এবং ভেতরে এক কিশোরীকে মৃত পড়ে থাকতে দেখেন। গতকাল শুক্রবার লস অ্যাঞ্জেলেন কান্ট্রি করোনারের কার্যালয় জানায়—ওই কিশোরীর নাম ভ্যালেন্টিনা ওরেলানা-পেরাল্টা।

বিবিসি জানিয়েছে, কিশোরী ভ্যালেন্টিনা ড্রেসিং রুমে নতুন পোশাক পরে দেখছিল। একটি পুলিশ সূত্র সংবাদমাধ্যম এলএ টাইমসকে জানিয়েছে, ওই কিশোরী ‘’কুইনসেনারা’’ নামের এক অনুষ্ঠান উপলক্ষ্যে পোশাক কিনতে এসেছিল। লাতিন আমেরিকায় উদ্ভূত ওই বিশেষ অনুষ্ঠান মেয়েদের ১৫তম জন্মদিনে আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে কোনো মেয়ের নাবালিকা থেকে নারী হয়ে ওঠা উদ্‌যাপন করা হয়। তবে, বিবিসির খবরে ভ্যালেন্টিনার নিজের জন্মদিন ছিল কি না, তা স্পষ্ট করা হয়নি।

স্থানীয় টিভি চ্যানেলে দেখানো হয়—মুখে রক্তমাখা এক নারীকে দোকান থেকে অ্যাম্বুলেন্সে করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। যাকে দেখে নিহত কিশোরী বলেই মনে হয়।

অন্যদিকে, পুলিশের গুলিতে নিহত অপর ব্যক্তির নাম এখনও প্রকাশ্যে আসেনি।

বৃহস্পতিবার রাতেই লস অ্যাঞ্জেলেস পুলিশপ্রধান মিশেল মুর দোকানে পুলিশের গুলিকে ‘বিশৃঙ্খল ঘটনা’ বলে এর ‘পুঙ্খানুপুঙ্খ, সম্পূর্ণ ও স্বচ্ছ তদন্তের’ প্রতিশ্রুতি দেন।

মিশেল মুর বলেন, ‘আমি এই ছোট্ট মেয়েটির প্রাণ হারানোর ঘটনায় অত্যন্ত দুঃখিত। আমি জানি এমন কোনো শব্দ নেই, যা ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারটির অকল্পনীয় কষ্ট কমাতে পারে।’

লস অ্যাঞ্জেলেস পুলিশ বিভাগ তাদের পর্যালোচনার অংশ হিসেবে, পুলিশের বডি ক্যামেরা, বার্লিংটনের নিরাপত্তা ক্যামেরাসহ দোকানের ঘটনার ভিডিও প্রকাশ করবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এদিকে, ক্যালিফোর্নিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেল রব বন্টা জানিয়েছেন, তিনি নিজ উদ্যোগে একটি স্বাধীন তদন্ত পরিচালনা করবেন। এবং তদন্তের ফলাফল বিশেষ প্রসিকিউটরদের একটি দলের কাছে পাঠাবেন।

যুক্তরাষ্ট্রের পশ্চিমাঞ্চলীয় ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যে গত জুলাইয়ে পাস হওয়া একটি আইন অনুযায়ী, কোনো নিরস্ত্র বেসামরিক ব্যক্তি পুলিশ গুলিতে নিহত হলে, তা বাধ্যতামূলকভাবে অঙ্গরাজ্যের বিচার বিভাগ তদন্ত করবে।

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৭:২৩ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, ২৯ ডিসেম্বর ২০২১

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com