২৮ বছরের আক্ষেপ ঘুচলো আর্জেন্টিনার

রবিবার, ১১ জুলাই ২০২১

২৮ বছরের আক্ষেপ ঘুচলো আর্জেন্টিনার

মারাকানায় ডি মারিয়ার পা থেকে গোল আসার পর বিশ্বের নানা প্রান্তে থাকা আর্জেন্টাইন সমর্থকরা উল্লাসে মেতে উঠেন। ৩৩ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ডেরর কৃতিত্বেই ২৮ বছরে শিরোপা খরা মিটলো আলবেসিলেস্তেদের। সবশেষ ১৯৯৩ সালে কোপা আমেরিকার ট্রফি জিতেছিল দলটি। গ্যাব্রিয়েল বাতিস্তুতার জোড়া গোলে মেক্সিকোর বিপক্ষে জয় নিয়ে শিরোপায় চুমু দিয়েছিল তারা। এবারের ফাইনালের নায়ক অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। প্যারিস সেন্ট জার্মেইর (পিএসজি) এই ফরোয়ার্ডের করা একমাত্র গোলই ব্রাজিলের বিরুদ্ধে ব্যবধান গড়ে দিয়েছে।

রোববার (১১ জুলাই) রিও ডি জেনেরিওর এই মাঠে ২২ মিনিটের মাথায় গোল আদায় করেন ৩৩ বছর বয়সী ডি মারিয়া। প্রায় একই সময় ক্যারিয়ার শুরু করা লিওনেল মেসি, সার্জিও আগুয়েরো, নিকোলাস ওটামেন্ডিদের জন্য প্রথম আন্তর্জাতিক শিরোপা এনে দিলেন এই ফরোয়ার্ড।


ব্রাজিলের হৃদয় ভেঙে বিজয় উল্লাসে মাতলো আর্জেন্টিনা। কোপা আমেরিকার ফাইনালে অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়ার একমাত্র গোলে সেলেকাওদের হারিয়ে ১৫তম শিরোপা জিতলো আলবিসেলেস্তারা। ম্যাচসেরা হয়েছেন ডি মারিয়া। টুর্নামেন্টসেরা লিওনেল মেসি।

মারাকানায় মন ভাঙলো ব্রাজিলের। ঘরের মাঠে আগের পাঁচ আসরেই শিরোপা জিতেছে সেলেসাওরা। এবার আর পেরে উঠলো না, তিতের দল। প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক শিরোপা উচিয়ে ধরলেন ফুটবল গ্রহের অন্যতম সেরা তারকা লিওনেল মেসি। ২৮ বছর পর বড় মঞ্চের শিরোপা জয়ের আনন্দে মাতলো আর্জেন্টিনা।

ডি মারিয়ার গোলে বিজয়ী আর্জেন্টিনা

দুই চিরশত্রুর লড়াই শুরু থেকেই উত্তাপ ছড়ালো মাঠে। তবে ২২ মিনিটে সবচেয়ে ভালো সুযোগ পেয়ে ভুল করেননি ডি মারিয়া। প্রথমবারের মতো শুরুর একাদশে তাকে নামালেন লিওনেল স্কালোনি। কোচের আস্থার প্রতিদানও দিলেন এই আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড। ডি পলের পাস ধরে, প্রতিপক্ষের রক্ষণ চিড়ে, গোলরক্ষকের মাথার ওপর দিয়ে পোস্টে বল জড়িয়ে দলকে এগিয়ে দেন, এই আর্জেন্টাইন তারকা। ২০০৪ সালের পর কোপার ফাইনালে এটি কোন আর্জেন্টাইনের প্রথম গোল।

পিছিয়ে পড়ে, গোল পেতে মরিয়া হয়ে ওঠে ব্রাজিল। বেশ কয়েকবার সুযোগ তৈরি করলেও, ছন্দ হারায় প্রতিপক্ষ সীমান্তে। ৫২ মিনিটে পোষ্টে বল জড়িয়ে আনন্দে মাতেন, রিশার্লিসান। তবে অফসাইডের ফাঁদে বাতিল হয়ে যায়, গোল।

সময়ের সঙ্গে আরো মরিয়া হয়ে উঠেছেন, নেইমার, সিলভারা। ৮৭ মিনিটে আর্জেন্টিনাকে আরো একবার রক্ষা করেন সেমিফাইনালের হিরো এমি মার্তিনেজ। ঠেকিয়ে দেন বারবোসার জোড়ালো শট।

গোল দেয়ার পর এক আনন্দে একে অপরকে জড়িয়ে ধরে লিওনেল মেসি ও ডি মারিয়া

পরের মিনিটেই দারুণ সুযোগ পেয়েও নিশানাবাজিতে ব্যর্থ হন মেসি।

বাকি সময় আর গোল না হওয়ায়, উরুগুয়ের সমান রেকর্ড ১৫তম শিরোপা জয়ের আনন্দে মাতে আর্জেন্টিনা। আর দেশের হয়ে শিরোপা জিততে না পারার অভিশাপ থেকে মুক্তি পেলেন লিওনেল মেসি।

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৫:২৭ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ১১ জুলাই ২০২১

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com