হাজী সেলিমের ১০ বছরের সাজা বহাল

আত্মসমর্পণের নির্দেশ

মঙ্গলবার, ০৯ মার্চ ২০২১

হাজী সেলিমের ১০ বছরের সাজা বহাল
আওয়ামী লীগদলীয় সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ সেলিম। ছবি : সংগৃহীত

অবৈধ সম্পদ অর্জনের দায়ে ঢাকা-৭ আসনে আওয়ামী লীগদলীয় সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ সেলিমকে বিচারিক আদালতের দেওয়া ১০ বছর কারাদণ্ডাদেশ বহাল রেখেছেন হাইকার্ট। এ ছাড়া ১০ লাখ টাকার জরিমানা বহাল রাখা হয়েছে। একইসঙ্গে তথ্য গোপনের দায়ে তিন বছরের সাজা  বাতিল করা হয়েছে। আদালতের রায়ের কপি পাওয়ার ৩০ দিনের মধ্যে হাজী সেলিমকে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করতে বলা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার বিচারপতি মো. মঈনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় ঘোষণা করেন।


এর আগে বেলা ১১টার দিকে রায় পড়া শুরু করেন বিচারপতি মো. মঈনুল ইসলাম চৌধুরী।

মামলার পুনরায় শুনানি শেষে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি আজকে রায়ের দিন ধার্য করা হয়।

মামলায় দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান। হাজী সেলিমের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী আবদুল বাসেত মজুমদার ও আইনজীবী সাঈদ আহমেদ রাজা। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল তামান্না ফেরদৌস।

২০০৭ সালের ২৪ অক্টোবর হাজী সেলিমের বিরুদ্ধে লালবাগ থানায় অবৈধভাবে সম্পদ অর্জন ও তথ্য গোপনের অভিযোগে দুদক মামলা করে। এ মামলায় ২০০৮ সালের ২৭ এপ্রিল অবৈধ সম্পদ অর্জনের দায়ে ১০ বছর ও তথ্য গোপনের দায়ে তিন বছরসহ মোট ১৩ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেন বিচারিক আদালত।

২০০৯ সালের ২৫ অক্টোবর এ রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল করেন হাজী সেলিম। ২০১১ সালের ২ জানুয়ারি হাইকোর্ট এক রায়ে তাঁর সাজা বাতিল করেন।

পরবর্তী সময়ে হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করে দুদক। ওই আপিলের শুনানি শেষে ২০১৫ সালের ১২ জানুয়ারি হাইকোর্টের রায় বাতিল করে পুনরায় হাইকোর্টে শুনানির নির্দেশ দেন আপিল বিভাগ।

এর পর গত বছরের ১১ নভেম্বর এ মামলার বিচারিক আদালতে থাকা যাবতীয় নথি (এলসিআর) তলব করেন উচ্চ আদালত। সে আদেশ অনুসারে নথি আসার পর আপিল শুনানির জন্য দিন ধার্য করা হয়। গত ৩১ জানুয়ারি এই মামলা পুনরায় শুনানি শুরু হয়।

শনিবারের চিঠি/ আটলান্টা / মার্চ ০৯, ২০২১

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৭:৩০ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, ০৯ মার্চ ২০২১

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com