সৌদি আরবে আল্লাহর গজব পড়বে : খামেনি

সোমবার, ০৪ জানুয়ারি ২০১৬

সৌদি আরবে আল্লাহর গজব পড়বে : খামেনি

Inernationalসৌদি আরবে শিয়া সম্প্রদায়ের শীর্ষস্থানীয় নেতা শেখ নিমর আল নিমরের মৃত্যুদণ্ডাদেশ কার্যকর করায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি। স্থানীয় সময় আজ রোববার ভোরে তেহরানে সৌদি দূতাবাসে বিক্ষোভকারীদের হামলার পর খামেনি বলেন, ‘সৌদি আরবের ওপর আল্লাহর গজব’ পড়বে।

বিবিসি জানায়, রোববার সকালে ধর্মীয় আইন শাস্ত্রের(ফিকাহ)এক আলোচনায় তিনি এ কথা বলেন। ওই আলোচনায় শেখ নিমর আল নিমরের কথা উল্লেখ করে খামেনি বলেন, ‘নিপীড়িত জনতার এই নেতা সৌদি সরকারের বিরুদ্ধে কোনো গোপন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ছিলেন না। এই বিদ্বান ব্যক্তি কখনো মানুষকে অস্ত্রের লড়াই করতে বা গোপন ষড়যন্ত্র করতে উৎসাহ দেননি। তিনি শুধু ধর্মীয় দায়িত্ব পালনের লক্ষ্যে সৎ কাজের আদেশ ও অসৎ কাজের নিষেধ করার জন্য তাঁর বিশ্বাসের জায়গা থেকে প্রকাশ্যে সমালোচনা করতেন।’


আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি আরো বলেন, ‘শহীদের এই রক্ত দ্রুতই পরিণাম ডেকে আনবে।’ তিনি বলেন, ‘তিনি একটি জিনিসই করতেন আর তা হলো তিনি প্রকাশ্যে সমালোচনা করতেন।’ শিরশ্ছেদের মাধ্যমে শেখ নিমরের হত্যাকাণ্ড সৌদি সরকারের ‘রাজনৈতিক অপরাধ’ বলেও মন্তব্য করেন খামেনি। তিনি বলেন, ‘আল্লাহ কখনো ক্ষমা করবেন না। এ অঞ্চলের (সৌদি আরব) রাজনীতিবিদরা এর শিকার হবেন।’

এর আগে গতকাল শনিবার সৌদি আরবের রাজতন্ত্রের বিরুদ্ধে মদদ দেওয়ার অভিযোগে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত সর্বোচ্চ শিয়া নেতা শেখ নিমর আল নিমরের শিরশ্ছেদ করে সৌদি আরব। এ ছাড়া ওই একই দিনে নিমরসহ মোট ৪৭ জনের মৃত্যুদণ্ডাদেশ কার্যকর করে দেশটি। এদের মধ্যে দুজন মিসরীয় নাগরিক।

রায় কার্যকরের পর সৌদি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়, এঁরা ৪৭ জনের সবাই সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের অভিযোগে অভিযুক্ত। আর এই অভিযুক্তরা স্থানীয় আবাসিক ভবন ও সরকারি স্থাপনায় হামলার পরিকল্পনা ও অংশগ্রহণ করেছেন।

এদিকে শিয়া নেতার মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের পর ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে পুরো ইরান। শেখ নিমরের শিরশ্ছেদের প্রতিবাদে রোববার রাজধানী তেহরানে সৌদি দূতাবাসে ভাঙচুর ও আগুন ধরিয়ে দিয়েছে বিক্ষোভকারীরা। পরে পুলিশ এসে বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এ ঘটনায় ৪৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

শনিবাবের চিঠি/ আটলান্টা/ ০৪ জানুয়ারি ২০১৬

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ১১:০৩ পূর্বাহ্ণ | সোমবার, ০৪ জানুয়ারি ২০১৬

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com