সিলেটে অভ্যন্তরীণ কোন্দলে ছাত্র লীগকর্মী খুন

বুধবার, ২০ জানুয়ারি ২০১৬

সিলেটে অভ্যন্তরীণ কোন্দলে ছাত্র লীগকর্মী খুন

sylet_94735সিলেট: নগরীর শামীমাবাদে সতীর্থদের হামলার শিকার হওয়া ছাত্রলীগ কর্মী কাজী হাবিবুর রহমান মারা গেছেন। মঙ্গলবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টায় দিকে নগরীর মাউন্ড এডারা হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন কোতোয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সোহেল আহমদ।


নিহত কাজী হাবিবুর রহমান হাবিব সিলেট ইন্টারন্যাশনাল বিবিএ চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী। তিনি বি-বাড়িয়া জেলার কাজি সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে। তিনি সিলেট ইন্টারন্যাশ ইউনিভার্সিটিরতে লেখাপড়ার করার সুবাদে নগরীর কানিশাইল এলাকায় একটি মেসে থাকতেন।

এর আগে মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির গেটের সামনে হাবিবর উপর হামলা চালিয়েছিল ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

দলীয় সূত্র জানিয়েছে, সিলেট ইন্টারন্যাশল ইউনিভার্সিটির বিবিএ ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী কাজী হাবিবুর রহমান দীর্ঘ দিন থেকে শামীমাবাদের ছাত্রলীগ নেতা সাগরে গ্র“পের সঙ্গে ছিল। কিন্তু গত কয়েক দিন আগে সে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ অনুসারী মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আলীম তুষার গ্রুপে চলে যান। এর জের ধরে মঙ্গলবার দুপুরে কাজী হাবিবের উপর হামলা করেন সাগর অনুসারীরা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, নিজ দলের নেতাকর্মীরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে হাবিবকে আঘাত করে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে যান।

তবে বিষয়টি অস্বীকার করে ছাত্রলীগ নেতা সাগর বলেন, ‘ছাত্রলীগ কর্মী আমার গ্রুপ করে। তার বিরুদ্ধে ইভটিজিংয়ের অভিযোগ এসেছিল। তাই আজ বিষয়টি মীমাংসা করার জন্য ইন্টারন্যাশনেল ইউনিভাসির্টির সামনে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা অবস্থান নেয়। এ সময় হাবীব উত্তেজিত হয়ে পড়লে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা তাকে মারধর করেছে।’

শনিবারের চিঠি/ আটলান্টা/ ২০ জানুয়ারি ২০১৬

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ১০:৩২ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, ২০ জানুয়ারি ২০১৬

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com