সাংসদের বিরুদ্ধে প্রকাশিত সংবাদে লাইক দেওয়ায় সাংবাদিক লাঞ্জিত

বৃহস্পতিবার, ১৮ মে ২০১৭

সাংসদের বিরুদ্ধে প্রকাশিত সংবাদে লাইক দেওয়ায় সাংবাদিক লাঞ্জিত

ঝালাকাঠীঝালকাঠিঃ রেইনট্রি হোটেল সম্পর্কিত গণমাধ্যমে প্রকাশিত একটি সংবাদ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে লাইক দেয়ার অভিযোগে ঝালকাঠিতে এক সাংবাদিককে মারধর করেছে উপজেলা চেয়ারম্যান ও তার সহযোগীরা।

মঙ্গলবার বিকালে কাঠালিয়া উপজেলার মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয়ের পেছনে এ হামলার ঘটনা ঘটে।


হামলার শিকার ওই সাংবাদিকের নাম এইচএম বাদল। তিনি আঞ্চলিক দৈনিক বরিশাল প্রতিদিনের স্থানীয় প্রতিনিধি।

তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে পরে রাত ১০টার দিকে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

জানা গেছে, ঝালকাঠি-১ আসনের সংসদ সদস্য ও আলোচিত ঢাকার রেইনট্রি হোটেলের মালিক বিএইচ হারুনের বিরুদ্ধে গণমাধ্যমে প্রকাশিত একটি সংবাদ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে লাইক দেয় সাংবাদিক বাদল।

এ অভিযোগে ওই সাংবাদিককে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করেছেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া সিকদার ও তার সহযোগীরা।

ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক রাকিব রহমান বলেন, আহত বাদলের শরীরের বিভিন্ন স্থানে গুরুতর আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তার ডান পায়ে ফ্রাকচার হতে পারে।

আহত সাংবাদিক বাদল জানিয়েছেন, সাংসদ বিএইচ হারুনের বিরুদ্ধে গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ ফেসবুকে লাইক দেয়ার অভিযোগে তাকে কাঠালিয়া বাজার থেকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া সিকদার ও তার সহযোগীরা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয়ের পেছনে নিয়ে  তাকে লোহার রড ও লাঠি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে।

স্থানীয়রা বাদলকে উদ্ধার করে আমুয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পর রাতে তাকে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

কাঠালিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক গোলাম কিবরিয়া সিকদার বলেন, এমপি সাহেব সম্পর্কে ফেসবুকে বাজে মন্তব্য করায় কিছু ছাত্রলীগ-যুবলীগ নেতারা বাদলের ওপর চড়াও হয়। আমি তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছি।

শনিবারের চিঠি/ আটলান্টা / মে ১২,২০১৭

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৯:৩৭ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ১৮ মে ২০১৭

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com