সরকার ও নির্বাচন কমিশন নির্বাচনের নামে নাটক করছে : নজরুল ইসলাম খান

রবিবার, ১৮ অক্টোবর ২০২০

সরকার ও নির্বাচন কমিশন নির্বাচনের নামে নাটক করছে : নজরুল ইসলাম খান
জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের ২১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিএনপির নেতাকর্মীরা আজ জিয়াউর রহমানের সমাধি জিয়ারত করেন। ছবি : সংগৃহীত

দেশের গণতন্ত্র এখন মুমূর্ষু অবস্থায় আছে মন্তব্য করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, বর্তমান সরকার ও নির্বাচন কমিশন নির্বাচনের নামে নাটক করছে।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘গণতন্ত্র এখন মুমূর্ষু অবস্থায় আছে। সারা দুনিয়ার মানুষ আজ কোভিড-১৯ নামক মহামারিতে আক্রান্ত। আর বাংলাদেশ কোভিডের পাশাপাশি দুর্নীতি, অনাচার, নারী ও শিশু নির্যাতন, দলীয়করণসহ এ ধরনের আরো কয়েকটা মহামারিতে আক্রান্ত। এত মহামারি থেকে আল্লাহ যেন দেশটাকে হেফাজত করেন, সে জন্য দোয়া করা হয়েছে।’


শেরেবাংলা নগরে রোববার সকালে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের সমাধি জিয়ারত শেষে নজরুল ইসলাম খান এই মন্তব্য করেন।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘শনিবার ঢাকা ও নওগাঁয় দুটি উপনির্বাচন হয়েছে। ঢাকার আসনে ভোট পড়েছে ১০ শতাংশ। ঢাকা শহরে ১০ শতাংশ ভোট পড়বে, এটা কী করে হয়? আমাদের কোনো এজেন্টকে কেন্দ্রে ঢুকতে দেয়নি।’

নজরুল ইসলাম খান আরো বলেন, ‘গণতন্ত্রের বাহন হলো নির্বাচন। নির্বাচন ছাড়া গণতন্ত্র হয় না। কিন্তু নির্বাচনকে তারা এতই পরিত্যক্ত, অগ্রহণযোগ্য ও হেয় করে ফেলেছে। আমাদের নির্বাচন কমিশন আওয়ামী লীগ জিতলেই বলে নির্বাচন সুষ্ঠু। নির্বাচনের পরিবেশ কেমন ছিল, ভোটার গেল কি গেল না, সেটি বিবেচ্য নয়।’

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘আমরা মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে দেশটাকে স্বাধীন করেছিলাম গণতন্ত্র, মানবাধিকার ও ন্যায়ের জন্য। বৈষম্য দূর করার জন্য, শান্তি ও সমৃদ্ধিতে বাস করার জন্য যুদ্ধ করেছিলাম। কিন্তু দুর্ভাগ্য, আজকে স্বাধীনতার ৫০ বছরেও দেশে এসব কিছুই নেই।’

নজরুল ইসলাম খান আরো বলেন, ‘আজকে সরকার গর্ব করে যে দেশের প্রবৃদ্ধি বেড়েছে। কার প্রবৃদ্ধি? দেশের প্রবৃদ্ধি তো হলো একটা গড়। হাতেগোনা কিছু মানুষ বিপুল বৈভবের মালিক হচ্ছে। আর মানুষের বিরাট অংশ গরিব হচ্ছে। নতুন করে আরো এক কোটি ৬৪ লাখ মানুষ গরিব হয়েছে। বাংলাদেশে প্রবৃদ্ধি বেড়েছে, কিন্তু মানুষ কেমন আছে? সুখে আছে নাকি দুঃখে আছে? গবেষণা বলছে, এশিয়ার ৩০টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ২৬তম। এই প্রবৃদ্ধি হচ্ছে ব্যক্তিবিশেষের। এটা জনগণের নয়। কারণ, জনগণ শান্তি-সুখে নেই।’

সাবেক এই রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘বাংলাদেশে করোনার মধ্যে যে ম্যানেজমেন্ট, তা সুষ্ঠু হয়নি। দুর্নীতি অনাচারের কারণে নিম্নমানের পিপিই, মাস্ক সরবরাহ করা হয়েছে। প্রায় শখানেক ডাক্তার মারা গেছেন। এখনো প্রতিদিন আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে। হাসপাতালে মৃত্যুর তালিকা বাড়ছে। গবেষণায় বেরিয়েছে, ঢাকা শহরের শতকরা ৪৫ ভাগ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে।’

নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘আজকে জনগণের কাছে দায়বদ্ধ সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। এটা হতে পারে শুধু নির্দলীয়-নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে। যে সরকার জনগণের কাছে জবাবদিহি করবে।’

জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের (জেডআরএফ) ২১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিএনপির নেতৃবৃন্দ আজ জিয়াউর রহমানের সমাধি জিয়ারত করেন। নেতৃবৃন্দ জিয়ার সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান এবং কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন। এবং পরে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের রুহের মাগফিরাত কামনায় বিশেষ মোনাজাত করেন।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, জেডআরএফের কৃষিবিদ অধ্যাপক ড. আবদুল করিম সরকার, রাশিদুল হাসান হারুন, অধ্যাপক আসাদুল হক, একরামুল হক, আনিসুজ্জামান, সানোয়ার আলম, শামীমুর রহমান শামীম, নূরুন্নবী শ্যামল, এ আর মাহমুদ, অধ্যাপক ড. মোর্শেদ হাসান খান, অধ্যাপক ড. আল মোজাদ্দেদী আলফেছানী, অধ্যাপক মেসবাহ উদ্দিন, ডা. শাহ মুহাম্মদ আমান উল্লাহ, ডা. শেখ ফরহাদ, এরফানুল ইসলাম, ডা. দীপু, প্রকৌশলী রিয়াজুল ইসলাম রিজু, জহিরুল ইসলাম, আসাদুজ্জামান চুন্নু, গালিব আহসান, মাহবুব আলম, ছাত্রদলের সাবেক কেন্দ্রীয় নেত্রী আরিফা সুলতানা রুমা, ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন, সেক্রেটারি ইকবাল হোসেন শ্যামলসহ বিভিন্ন স্তরের হাজারো নেতাকর্মী।

শনিবারের চিঠি / আটলান্টা / অক্টোবর ১৮, ২০২০

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ২:৩১ অপরাহ্ণ | রবিবার, ১৮ অক্টোবর ২০২০

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com