সরকারের বেতন কাঠামোর সমালোচনায় পর্যটনমন্ত্রী

রবিবার, ১৮ জানুয়ারি ২০১৫

সরকারের বেতন কাঠামোর সমালোচনায় পর্যটনমন্ত্রী

 

Jesযশোরঃ সম্প্রতি পে-কমিশন ঘোষিত বেতন কাঠামোর সমালোচনা করলেন বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রী ও বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন।


মন্ত্রী বলেন, ‘দেশে হাজার হাজার কোটিপতি বিচরণ করছে, সেখানে একমুঠো ভাতের জন্য হাহাকার করছে অসংখ্য গরীব মানুষ। এ দেশে গরীব ও ধনীর জীবন যাপনের মধ্যে যে আকাশ পাতাল বৈষম্য তা কল্পনা করা যায় না।’

এমন পরিস্থিতিতে মন্ত্রী ঘোষিত বেতন কাঠামোর প্রসঙ্গে বলেন, ‘নিম্নস্তরের জন্য রয়েছে আট হাজার টাকা আর উচ্চস্তরের জন্য রয়েছে ৮০ হাজার টাকা। যা ওয়ান ইজটু টেন হিসেবে করা হয়েছে। অথচ আমাদের প্রস্তাব ছিল ওয়ান ইজটু ফাইভ।’

শনিবার বিকেলে যশোরের বাঘারপাড়ার বাঁকড়ী বহুমুখী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অমল সেনের ১২ মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দুদিনব্যাপী স্মরণ মেলায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

অমল সেন স্মরণমেলায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে রাশেদ খান মেনন আরও বলেন, ‘দেশে বর্তমানে যে শাসন ব্যবস্থা চলছে; আমরা তার সঙ্গে আছি। কিন্তু তার মানে এই নয় যে, সরকারের অন্যায় টেন্ডারবাজি, দখলদারী, সন্ত্রাস আমরা মেনে নিয়েছি।’

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ওয়াকার্স পার্টির পলিট ব্যুরোর সদস্য ও অমল সেন স্মৃতি পরিষদের সভাপতি ইকবাল কবির জাহিদ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির নেতা তিন সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা, শেখ হাফিজুর রহমান, মুস্তফা লুৎফুল্লাহ, ওয়ার্কাস পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা বিমল বিশ্বাস, হাফিজ ভুঁইয়া, মনোজ সাহা, আনিসুর রহমান, ন্যাপের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. এনামুল হক, সিপিবির প্রেসিডিয়াম সদস্য রফিকুজ্জামান লায়েক, ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় সদস্য অ্যাড. নজরুল ইসলাম, নড়াইল জেলা জাসদের সভাপতি হেমায়েত উল্লাহ হিরু, ওয়ার্কার্স পার্টির যশোর জেলা সম্পাদক জিল্লুর রহমান ভিটু, জাকির হোসেন হবি, অনিল বিশ্বাস, হাবিবুর রহমান, সন্তোষ মজুমদার, বাসুদেব বিশ্বাস, স্মৃতি রক্ষা কমিটির সাধারণ সম্পাদক রবীন্দ্র নাথ বিশ্বাস, সহ-সম্পাদক বিপুল বিশ্বাস, মোস্তাফিজুর রহমান লাল, বাকড়ী স্কুলের প্রধান শিক্ষক প্রতীক রঞ্জন রায় প্রমুখ।

আলোচনা শেষে যশোরের উদীচী, সুরধুনী ও পুনশ্চসহ স্থানীয় শিল্পীরা সংগীত পরিবেশন করেন।

এর আগে বিকেল ৩ টার দিকে বাংলাদেশের ওয়াকার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেননের নেতৃত্বে সংগঠনের পক্ষ থেকে সমাধীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করার পর জাতীয় কৃষক সমিতি, ন্যাপ, বাসদ, জাসদ, গণতান্ত্রিক পার্টি, সিপিবি, গণঐক্য, ছাত্র মৈত্রী, তেল-গ্যাস-বিদ্যুত-বন্দর জাতীয় রক্ষা কমিটিসহ বিভিন্ন সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতারা সমাধীতে শ্রদ্ধাঞ্জলী জানান।

এরপর অমল সেন স্মৃতি রক্ষা কমিটি, ঢাকা মহানগর কমিটি, যশোর, মাগুরা, খুলনা, ঝিনাইদহ, নড়াইল জেলা ওয়ার্কার্স পার্টি, ছাত্র মৈত্রী, যুব মৈত্রী, নড়াইল জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড, জাসদ, জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশন, জাতীয় কৃষক সমিতি, বাঘারপাড়া, মণিরামপুর, উপজেলা ওয়ার্কার্স পার্টি, দিনাজপুর, সাতক্ষীরা, খুলনা ওয়ার্কার্স পার্টি, রাজবাড়ী জেলা ওয়ার্কার্স পার্টি, যশোর জেলা নারী মুক্তি সংসদ, নড়াইল জেলা নারী মুক্তি সংসদ, বাকড়ী বহুমুখী মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ফ্লিম সোসাইটি যশোর, কিশোর বাহিনী যশোর, এগারখান কল্যাণ ট্রাস্ট, গুয়াখোলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়, অভয়নগরের শুভরাড়া ইউনিয়ন ওয়ার্র্কার্স পার্টি, বাংলাদেশ শিক্ষা ও শিক্ষক আন্দোলন সমন্বয় ফোরামসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতারাও পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করে।

এদিকে, অমল সেনের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বাকড়ী স্কুল মাঠে দুদিনব্যাপী গ্রামীণ মেলাও শুরু হয়েছে। মেলায় নাগরদোলাসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য নিয়ে পসরা সাজিয়ে বসেছেন অর্ধশতাধিক দোকানী। স্থানীয়রা ছাড়াও বিভিন্ন এলাকা থেকে দর্শনার্থীরা মেলায় আসছেন এবং কেনাকাটা করছেন। মেলাকে ঘিরে গোটা এলাকা মিলনমেলায় পরিণত হয়েছে।

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ১০:৫০ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ১৮ জানুয়ারি ২০১৫

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com