শোকে স্তব্ধ মেঘনার পাড়

শুক্রবার, ২৪ জুলাই ২০১৫

শোকে স্তব্ধ মেঘনার পাড়

 

নরসিংদী: গাজীপুরে ডেমু ট্রেনের ধাক্কায় শিশুসহ নিহত অটোরিকশার আট যাত্রীর মধ্যে একই পরিবারের সাতজন। তাদের বাড়ি নরসিংদীর মেঘনার পাড়ের জিতরামপুর গ্রামে। নিহতদের মরদেহ গ্রামের বাড়িতে পৌঁছলে গ্রামজুড়ে নেমে আসে শোকের ছায়া। একসঙ্গে একই পরবিারের সাত জনকে হারিয়ে শোকে স্তব্ধ হয়ে পড়েছে মেঘনার পাড়।


শুক্রবার সকালে জানাজা শেষে তাদের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করার কথা রয়েছে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, নরসিংদীর চরাঞ্চল জিতরামপুর গ্রামের শাহ আলম ও তার স্ত্রী চাকরি করতেন গাজীপুরের একটি পোশাক করাখানায়। গ্রামের বাড়িতে ঈদের ছুটি কাটিয়ে বৃহস্পতিবার স্ত্রী পিয়ারা বেগম, দুই সন্তান সাদেকা বেগম ও ইয়াসিন মিয়া, শ্যালিকা কারিমুন বেগম, ভাগ্নে লিটন মিয়া ও মামাতো ভাই আল-আমিনকে নিয়ে নরসিংদী থেকে অটোরিকশাযোগে কর্মস্থল গাজীপুরে ফিরছিলেন তিনি। হায়দারাবাদ পার হওয়ার সময় ডেমু ট্রেনের ধাক্কায় ছিটকে পড়ে তাদের বহনকারী অটোরিকশাটি। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান অটোরিকশা চালকসহ ওই সাত জন।

রাতেই নিহতদের মরদেহ নেয়া হয় গ্রামের বাড়িতে। মরদেহগুলো গ্রামে পৌঁছার পর এলাকাজুড়ে নেমে আসে শোকের ছায়া। নিহতদের স্বজনদের আজাহারিতে ভারি হয়ে উঠে মেঘনার পাড়। স্বজনদের হারিয়ে বারবার মূর্ছা যাচ্ছিলেন পরিবারের অন্য সদস্যরা।

একসঙ্গে একই পরিবারের সবার মরদেহ দেখতে হবে এমনটি ভাবতেও পারছেন না স্থানীয়রা। খবর পেয়ে গভীর রাতে শত শত শোকার্ত মানুষ ভীড় জমান নিহতদের বাড়িতে। শোকে স্তব্ধ পরিবারের সদস্যদের শান্ত্বনা দেয়ার ভাষা খোঁজে পাচ্ছেন না কেউ-ই।

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ১০:১৬ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, ২৪ জুলাই ২০১৫

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com