আটলান্টায় তিন দিন ব্যাপি ফোবানা সম্মেলন অনুষ্ঠিতঃ পরবর্তি সম্মেলন নিউইয়র্কে

বুধবার, ০১ আগস্ট ২০১৮

আটলান্টায় তিন দিন ব্যাপি ফোবানা সম্মেলন অনুষ্ঠিতঃ পরবর্তি সম্মেলন নিউইয়র্কে

fobana-logoষ্টাফ রিপোর্টারঃ ‘ আমাদের সন্তান আগামির নেতৃত্ব’  এই শ্লোগানকে সামনে রেখে জর্জিয়ার আটলান্টায় অনুষ্ঠিত হলে জুলাই ২৭, ২৮ ও ২৯ তিন দিন ব্যাপি উত্তর আমেরিকায় বাংলাদেশিদের সবচেয়ে বড় সংগঠন ফোবানা সম্মেলন ।  ফোবানা যার পূর্ণ নাম ফেডারেশন অব বাংলাদেশি এ্যাসোসিয়েশন ইন নর্থ আমেরিকা।

বাংলাদেশ আমেরিকান এ্যাসোসিয়েশন অব জর্জিয়ার  আয়োজনে যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া অঙ্গ রাজ্যের রাজধানী অলিম্পিক নগরী আটলান্টায়  জর্জিয়ার ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস সেন্টারে গত শুক্রবার ২৭ জুলাই ফোবানার ৩২ তম আসরের উদ্বোধন করেন  ওয়াশিংটনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন। বিশেষ অতিথির ছিলেন জর্জিয়া অঙ্গরজ্যের গুনেটি ও সাউথ সাইট কাউন্টির  কংগ্রেসম্যান রব উডল  ও ষ্ট্রেস্ট সিনেট্র লেস্স্টার জ্যাকশন।


সন্ধ্যে সাতটায় শুরু হওয়ার কথা থাকলেও  শুরু হয় সাড়ে আটটায়। বাংলাদেশ, যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে মূল অনুষ্ঠান শুরু হয়। প্রধান অতিথি জিয়াউদ্দিন ও কংগ্রেসম্যান রব উডল ফিতা কেটে তিন দিনের এই সম্মেলনের সূচনা করেন। এরপর আমন্ত্রিত অতিথিদের পরিচয় করিয়ে দেওয়া হয় ও মূল ধারার রাজনীতিবিদেরা সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন।

ফোবানা সম্মেলনে প্রবাসী বাংলাদেশিরা ফোবানার মূল কমিটিকে পরিচয় করিয়ে দেওয়া হয়, অতিথি ও কমিটির সদস্যদের উত্তরীয় পরিয়ে দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন—আহ্ববায়ক মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, সদস্যসচিব নাহিদুল খান সাহেল, হোস্ট প্রেসিডেন্ট ডিউক খান, চিফ কোঅর্ডিনেটর এম মাওলা দিলু , ফোবানা সেন্ট্রাল কমিটির চেয়ারম্যান আতিকুর রহমান, সেন্ট্রাল কমিটির মেম্বার সেক্রেটারি শাহ হালিম, নতুন প্রজন্মের প্রতিনিধি মোসাদ্দেক সাকিব খান।

ফিতা কেটে উদ্বোধন করছেন রাষ্ট্রদূত জিয়াউদ্দিন

ফিতা কেটে উদ্বোধন করছেন রাষ্ট্রদূত জিয়াউদ্দিন

ফোবানার পক্ষ থেকে বিশেষ অতিথি কংগ্রেসম্যান রব ঊডলকে ফোবানার ক্রেস্ট প্রদান করের  কনভেনর সদস্য সচিব ও রাষ্ট্রদূত যথাক্রমে জসিম উদ্দিন, নাহিদুল খান সাহেল ও মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন ।

ফোবানার ভেন্যু চমৎকার করে সাজানো হয়, ছোট শিশুদের নাচ-গান এর মাধ্যমে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা করা হয়। কোরিওগ্রাফির মাধ্যমে বাংলাদেশের দেশাত্মবোধক গান ফোবানাকে এক টুকরো বাংলাদেশে পরিণত করে। রাত ১০টা থেকে আড়াইটা পর্যন্ত চলে নাচ-গান।

বাংলাদেশ, যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে মূল অনুষ্ঠান শুরু হয়।

বাংলাদেশ, যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে মূল অনুষ্ঠান শুরু হয়।

প্রথম দিনের সম্মেলনে উপস্থপনায় ছিলেন অনুষ্ঠান ছিলেন রুমী কবির, রীটা আলই ও জাকিয়া তৌফিক।

ফোবানার গ্র্যান্ড স্পনসর টুয়েন্টি সেভেন্থ লাকি বাকস, টাইটেল স্পনসর উৎসব ডট কম, ফেমাক্যাস, এম জে ফাউন্ডেশন, টার্কিশ এয়ার।

 ১১জন শিক্ষার্থী এককালীন ১১শত ডলার করে স্কলারশীপ প্রদান করা হয়।

১১জন শিক্ষার্থী এককালীনা এক হাজার ডলার করে স্কলারশীপ প্রদান করা হয়।

তিন দিনের এই সম্মেলনে ছিল কবি ও কবিতার আসর, লেকচার টক শো , দিনব্যাপী সেমিনার নতুন প্রজন্মদের জন্য, শিল্প প্রদর্শনী, এনগেজ ফোবানা, বাংলা ছায়াছবি,  ভ্রাম্যমান কনসুলেট সার্ভিস, জাহাঙ্গীরনগর ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পুনর্মিলনী, বিজ্ঞান মেলা, মিট দ্য স্টার, কবি ও কবিতা আসর বই মেলা, বিজ্ঞান মেলা,আর্ট প্রদর্শনী, ব্লাক দ্য ডিনার, কৃতি ছাত্রছাত্রীদের স্কলারশিপ প্রদান। জর্জিয়া প্রবাসী বাংলাদেশি ১১জন শিক্ষার্থী এককালীন ১ হাজার ডলার করে স্কলারশীপ প্রদান করা হয়। তাদের হাতে স্কলারশীপের চেক ও স্কেস তুলে দেন ২০১৮ ফোবানা স্কলারশীপ চেয়ারম্যান রেহান রেজা ও বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ টেক্সাস থেকে আগত কবির আহমেদ ।

 

সাহিত্য আসরে অংশ গ্রহণকারী দল

সাহিত্য আসরে অংশ গ্রহণকারী দল

প্রতিদিনই ছিল দেশি ও প্রবাসী স্বনাম ধন্য শিল্পী কুশলিদের সঙ্গীতানুষ্ঠান। বাংলাদেশ থেকে যে সব শিল্পী কুশলীরা অংশ গ্রহণ করে তারা হলেন, শাহনাজ বেলী, ফাহমিদা নবী, বেবী নাজনীন, তপন চৌধুরি, সৈয়দ আব্দুল হাদি, সামিনা চৌধুরি, এস আই টুটুল প্রমুখ ।

প্রবাসীদের মধ্যে, হোসনে আরা বিন্দু, তাসলিমা সুলতানা পলি, রোমেল খান, সৈকত প্রধানসহ আরো অনেকে ।

উপস্থিত সুধীমন্ডলীর একাংশ

উপস্থিত সুধীমন্ডলীর একাংশ

আটলান্টায় অনুষ্ঠিত  ৩২ তম ফোবানা সম্মেলনে বাংলাদেশ থেকে উল্লেখ্য যোগ্য কোন মন্ত্রী-মিনিষ্টারের উপস্থিত দেখা যায় নি। যাদের আমন্ত্রণ কারা হয়েছিল  তাদের মধ্যেও অনেকে উপস্থিত ছিলেন না। যেমন, চট্টগ্রাম ইউনিভার্সিটির ভিসি ইফতখার উদ্দিন , বাংলাদেশ প্রতিদিনের সম্পাদক নঈম নিজাম, ভোরের কাগজ সম্পাদক শ্যামল দত্ত প্রমুখ ।

৩৪তম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে নিউইয়র্কে।

৩৩ তম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে নিউইয়র্কে।

ফোবানা সম্মেলনের সমাপনী দিনে ঘোষণা করা হয় আগামি বছর ২০১৯’এ  ৩৩ তম সম্মেলন  অনুষ্ঠিত হবে নিউইয়র্কে। আয়োজক সংগঠন ড্রামা সার্কেল।  ড্রামা সার্কেলের পক্ষে ফোবানার পতাকা গ্রহন করেন ৩৩তম ফোবানা সম্মেলনের কনভেনার নার্গিস আহমেদ, সদস্য সচিব আবির আলমগীর সহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।

২০২০ সালে ৩৪তম ফোবানা সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস রাজ্যের ডালাস শহরে। ৩৪তম ফোবানা সম্মেলন আয়োজন করার জন্য নির্বাচিত হয়েছে টেক্সাসের সংগঠন বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব নর্থ টেক্সাস (বান্ট)। সম্মেলনের তৃতীয় দিনে সর্বোচ্চ ৩০ ভোট পেয়ে ৩৪তম ফোবান সম্মেলনের আয়োজক সংগঠন হবার গৌরব অর্জন করে বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব নর্থ টেক্সাস।

শনিবারের চিঠি / আটলান্টা / আগষ্ট ০১, ২০১৮

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৭:৩৭ অপরাহ্ণ | বুধবার, ০১ আগস্ট ২০১৮

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com