রাশিয়া-ইউক্রেন ফের শান্তি আলোচনা শুরু

শনিবার, ০২ এপ্রিল ২০২২

রাশিয়া-ইউক্রেন ফের শান্তি আলোচনা শুরু
ছবি সংগৃহীত

রাশিয়া-ইউক্রেন শান্তি আলোচনা ফের শুরু হয়েছে। স্থানীয় সময় শুক্রবার ভিডিও কনফারেন্সে আলোচনায় যোগ দেন দুদেশের কর্মকর্তারা। তবে বৈঠকের শুরুতেই মস্কোর প্রধান আলোচক ভ্লাদিমির মেডিনস্কি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, ক্রিমিয়া ও দোনবাস নিয়ে রাশিয়ার অবস্থানে কোনো পরিবর্তন হবে না। ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনের ৩৮তম দিন শনিবার বন্দরনগরী ওডেসার একটি আবাসিক এলাকায় তিনটি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা হয়েছে। এছাড়া পোলতাভা, ক্রেমেনচুক, দোনেস্কেও হামলা হয়েছে। তবে ইউক্রেনের হস্তোমেল শহরের আন্তোনোভ বিমানবন্দর থেকে সরে যাচ্ছে রুশ সেনারা। এদিকে ইউক্রেনে আরও ৩০০ মিলিয়ন ডলারের সামরিক সহায়তা পাঠাচ্ছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। খবর বিবিসি, এএফপি ও রয়টার্সসহ বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের।

বৃহস্পতিবার তুরস্কের ইস্তাম্বুলে আলোচনায় বসেছিলেন ইউক্রেন ও রাশিয়ার প্রতিনিধিরা। এরপর অনেকটা নাটকীয়ভাবে ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভ ও উত্তরাঞ্চলীয় শহর চেরনিহিভের চারপাশ থেকে সেনা সরিয়ে নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয় মস্কো। তবে সেই প্রতিশ্রুতি যথাযথভাবে পালিত হচ্ছে না বলে অভিযোগ রয়েছে ইউক্রেনের।


শুক্রবার ফের শান্তি আলোচনা শুরু হলেও অবরুদ্ধ ইউক্রেনীয় শহর মারিওপোলে জরুরি ত্রাণ ও নাগরিকদের অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে। রেডক্রস বলছে, গোলাগুলি বন্ধ না হওয়ায় বেসামরিক নাগরিকদের সরানো যাচ্ছে না। তবে রাশিয়ার দাবি, সীমান্তজুড়ে ইউক্রেনের অ্যাটাক হেলিকপ্টারের মহড়া ও সীমান্তবর্তী রাশিয়ার একটি তেলের ডিপোতে ইউক্রেন সেনাদের হামলার কারণে এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বলেছেন, রাশিয়ার ভূখণ্ডে হামলার ঘটনাটি রাশিয়া ও ইউক্রেনের প্রতিনিধিদের মধ্যকার আলোচনাকে দুর্বল করতে পারে। তিনি আরও বলেন, নিশ্চয়ই এ ধরনের ঘটনা আলোচনা অব্যাহত রাখার জন্য আরামদায়ক পরিস্থিতি তৈরি করবে না।

এদিকে ইউক্রেনের বন্দরনগরী ওডেসার গভর্নর মাকসিম মারচেনকো বলেছেন, শনিবার ভোরে সেখানকার একটি আবাসিক এলাকায় তিনটি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা হয়েছে। তার অভিযোগ, রাশিয়ার নিয়ন্ত্রণাধীন ক্রিমিয়া থেকে এসব ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়। এ ঘটনায় কয়েকজন হতাহত হন বলেও দাবি করেন তিনি।

তবে রুশ সেনাদের ছোড়া ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিহত করেছে বলে দাবি করেছে ইউক্রেন সেনাবাহিনী। দক্ষিণাঞ্চলীয় কমান্ড এক ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, শত্রুরা গোপনে গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাগুলোতে হামলার চেষ্টা চালিয়েছে। এসব স্থাপনা ধ্বংস হয়ে গেলে তা সাধারণ মানুষের জন্য বিপজ্জনক হতো। আকাশ প্রতিরক্ষা বাহিনী সময়মতো ও কার্যকর উপায়ে ব্যবস্থা নিয়েছে। শত্রুপক্ষ তাদের প্রত্যাশিত লক্ষ্যে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালাতে পারেনি।

স্যাটেলাইটের ছবি বিশ্লেষণ করে সিএনএন বলেছে, ইউক্রেনের হস্তোমেল শহরের আন্তোনোভ বিমানবন্দর থেকে সরে যাচ্ছে রুশ সেনারা। বৃহস্পতিবার ছবিটি তুলেছে মাক্সার টেকনোলজিস। এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, ইউক্রেনের বিমানবন্দর ছেড়ে যেতে পারে রাশিয়ার সামরিক বাহিনী।

আরও সামরিক সহায়তা পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র : রুশ বাহিনীর বিরুদ্ধে আরও শক্ত প্রতিরোধ গড়ে তুলতে ইউক্রেনকে অতিরিক্ত ৩০০ মিলিয়ন ডলারের সহায়তা পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। বিপুল এ সহায়তা প্যাকেজে থাকছে-লেজার-নির্দেশিত রকেট সিস্টেম, অত্যাধুনিক ড্রোন, হামভি গাড়ি, রাতে দেখার চশমা, মেশিনগান এবং চিকিৎসাসামগ্রী।

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৭:৫৭ অপরাহ্ণ | শনিবার, ০২ এপ্রিল ২০২২

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com