যুক্তরাষ্ট্রে রমজানের রোজা ১৭ ঘন্টা

বৃহস্পতিবার, ১৮ জুন ২০১৫

যুক্তরাষ্ট্রে রমজানের রোজা ১৭ ঘন্টা

 

শনিবার রিপোর্টঃ
আজ বৃহস্পতিবার থেকে রোজা রাখতে শুরু করছেন যুক্তরাষ্ট্রের মুসলমানরা। যুক্তরাষ্ট্রের অধিকাংশ মসজিদ থেকেই এ সিদ্ধান্ত ঘোষণা করা হয়েছে। রোজা উপলক্ষে প্রস্তুতিও নিচ্ছে মুসলিম সম্প্রদায়। যুক্তরাষ্ট্রে দুই হাজার ৬০০ মসজিদে তারাবি নামাজ পড়া হয়ে থাকে।


output_2L5MFMজর্জিয়া, নিউ ইয়র্ক, নিউজার্সি, ক্যালিফোর্নিয়া, ফ্লোরিডা, টেক্সাস, মিশিগান, ম্যাসাচুসেটস, পেনসিলভেনিয়া, ওয়াশিংটন মেট্রো এলাকায় যেসব মসজিদের কমিটির নেতৃত্বে বাংলাদেশিরা আছেন সেগুলোতে মুসল্লিদের ইফতার পরিবেশনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে। প্রবাসী বাংলাদেশিদের উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত ও পরিচালিত ব্রুকলিনের ‘বাংলাদেশ মুসলিম সেন্টার’, কুইন্সে ‘জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টার’, এস্টোরিয়ায় আল আমিন মসজিদ, শাহজালাল মসজিদ, গাউসিয়া মসজিদ, আল আমান মসজিদসহ নিউ ইয়র্কের শতাধিক মসজিদে এবারও মুসল্লিদের ইফতার  সরবরাহ করা হবে।

অনুরুপ জর্জিয়ায় আল-ফারুক মসজিদ অব আটলান্টা, মসজিদ ওমর বিন আব্দুল আজিজ, দারুস সালাম মসজিদ, মসজিদ আব্দুল্লা, মসজিদ কুবা, মসজিদ আবু বকরসহ প্রতিটি মসজিদে বরাবরের মত এবারও  মুসল্লিদের ইফতার ও নৈশভোজ সরবরাহ করা হবে।

যুক্তরাষ্ট্রে সূর্য উঠা ও অস্ত যাওয়ার সময় হিসেব করে দেখা গেছে এবার প্রতিটি রোজা প্রায় ১৭ ঘণ্টা করে হবে। সেহরি ও ইফতারের যে সময়সূচি ঘোষণা করা হয়েছে তাতে ভোর ৪টার কাছাকাছি সময় থেকে রাত প্রায় সাড়ে ৮টা পর্যন্ত রোজার সময় নির্ধারণ করা হয়েছে।

রোজা উপলক্ষে যুক্তরাষ্ট্রে মুসলমানদের অধিকার নিয়ে সোচ্চার স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ‘কাউন্সিল অন ইসলামিক রিলেশন্স’, ইকনা, ইসনা ও ‘মুসলিম আমেরিকান সোসাইটি’র পক্ষ থেকে ফেডারেল ও স্থানীয় প্রশাসনের প্রতি মসজিদের আশপাশের নিরাপত্তা জোরদারের আহ্বান জানানো হয়েছে।

নিউ ইয়র্ক, লসএঞ্জেলেস, আটলান্টা, হিউস্টন, ডালাস, ডেট্রয়েট, শিকাগো, প্যাটারসন, আটলান্টিক সিটি, ফিলাডেলফিয়া, আপারডারবি, বস্টন, লং আইল্যান্ড, আর্লিংটন, ফোর্টলডারডেল, ওরল্যান্ডো, ওয়াশিংটন ডিসি,  সিয়াটল প্রভৃতি শহরে এরইমধ্যে  মসজিদ ও তার আশপাশের এলাকার নিরাপত্তা জোরদারে পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

নিউ ইয়র্কের পুলিশ কমিশনারের আহ্বানে গত সপ্তাহে মুসলিম সম্প্রদায়ের শীর্ষস্থানীয়দের এক সভা হয়। রোজার সময় নিরাপত্তা নিশ্চিতের জন্য সবার সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন কমিশনার বিল ব্রেটন।

মুসল্লিদের চলাচলের রাস্তা এবং মুসলিম অধ্যুষিত এলাকায় পুলিশের টহল বাড়ানো হবে বলে জানান তিনি।
শনিবারের চিঠি / আটলান্টা/ ১৮ জুন ২০১৫

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৬:১১ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ১৮ জুন ২০১৫

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com