যুক্তরাষ্ট্রে মন্দিরের নিরাপত্তা দিচ্ছেন এক মুসলিম

সোমবার, ২৫ জুলাই ২০১৬

যুক্তরাষ্ট্রে মন্দিরের নিরাপত্তা দিচ্ছেন এক মুসলিম

বাংলাপ্রেস, নিউইয়র্কঃ একদিকে বিশ্বজুড়ে চোখে পড়ছে ধর্মের নামে অসহিষ্ণুতা আর হত্যাযজ্ঞ। অপরদিকে ধর্মীয় বিভেদের উর্ধ্বে উঠে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির একটি পৃথিবী গড়ার চেষ্টাও চলছে অবিরত। সেই চেষ্টার নিদর্শন সম্প্রতি দেখা গেল যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটির ইন্ডিয়ানাপোলিস শহরের বৃহত্তম হিন্দু মন্দির পাহারার দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত মুসলিম পুলিশ কর্মকর্তা জাভেদ খান।

মন্দিরটির নিরাপত্তার দায়িত্ব ইসলাম-ধর্মাবলম্বীর হাতে এভাবে ন্যস্ত হওয়ায় অনেকেই অবাক হয়েছেন। কিন্তু লেফটেন্যান্ট জাভেদ খান জানিয়েছেন, আল্লাহ এক। সেই সূত্রে তার সৃষ্টির অন্তর্গত মানুষও এক। দুইয়ের মধ্যে কোনোভাবেই কোনো ধর্মীয় বিভাজনরেখা টানতে রাজি নন তিনি।


জাভেদ বলেন, ‘আদতে আমরা সবাই আল্লাহর বান্দা। আল্লাহ প্রথম প্রকাশে নিরাকার। মানুষ একেকটি ভক্তিমার্গ অনুসরণ করে একেক ভাবে তার উপাসনা করে থাকে। এর মধ্যে বিভাজনের কোনও প্রশ্নই নেই।’

মার্শাল আর্টে পারদর্শী জাভেদ ২০০০ সালে ভারতের মুম্বাই ছেড়ে যুক্তরাষ্ট্রে চলে যান। অবশ্য এর আগে ১৯৮৬ সাল থেকেই দেশটিতে আসা-যাওয়া ছিল তার। লক্ষ্য ছিল, যুক্তরাষ্ট্রে বিভিন্ন মার্শাল আর্ট প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া। তবে তার পর দীর্ঘ সময় পেরিয়ে ২০০১ সালে যোগ দেন ইন্ডিয়ানাপোলিসের পুলিশ বাহিনীতে। নিজের মেয়েকে এক তেলেগু যুবকের কাছে বিয়ে দেয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রথম এই মন্দিরটিতে আসেন তিনি।

জাভেদ বলেন, অল্প কয়েক বছর আগে তার মন্দির পাহারা দেয়ার কাজের শুরু। এই মন্দিরে মেয়ের সঙ্গে এক তেলেগু ছেলের বিয়ে হওয়ায় সেখানকার লোকজনকে চিনতে শুরু করেন তিনি। তার ভাষায়, ‘আমার মনে হল, এখানে নিরাপত্তার দরকার। তারপর আমি এ কাজের প্রস্তাব করি। আমি এখন মন্দিরের নিরাপত্তা পরিচালক।’

মন্দিরটি কয়েক বছর ধরে নির্মাণাধীন থাকলেও গত বছর জুনে এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয় জানিয়ে তিনি বলেন, ওই অনুষ্ঠান রাজ্যের শীর্ষ নেতারা অংশ নিয়েছিলেন। প্রায় এক কোটি ডলার ব্যয়ে তৈরি করা এ মন্দিরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ইন্ডিয়ানার গভর্নর মাইক পেন্সও উপস্থিত হয়েছিলেন। তিনি এখন মার্কিন নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের ভাইস প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী।

শনিবারের চিঠি /আটলান্টা/ জুলাই ২৫, ২০১৬

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৯:২১ পূর্বাহ্ণ | সোমবার, ২৫ জুলাই ২০১৬

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com