যুক্তরাষ্ট্রে বিচারের মুখোমুখি বাংলাদেশি কূটনীতিক

বৃহস্পতিবার, ০৮ জানুয়ারি ২০১৫

যুক্তরাষ্ট্রে বিচারের মুখোমুখি বাংলাদেশি কূটনীতিক

 

Ianশনিবার রিপোর্টঃ যুক্তরাষ্ট্রে গৃহকর্মী নির্যাতনের অপরাধে অভিযুক্ত বাংলাদেশের সাবেক কূটনীতিক মনিরুল ইসলাম বিচার এড়াতে পারছেন না।


গৃহকর্মীর করা নির্যাতন মামলা থেকে অব্যাহতি পেতে মার্কিন আদালতে যে অনুরোধ জানিয়েছিলেন তিনি, তা প্রত্যাখ্যান করেছেন এক মার্কিন বিচারক।

ম্যানহাটন ফেডারেল আদালতের বিচারক সিডনি স্টেইন বলেছেন, গৃহকর্মীকে দাসের মতো ব্যবহার করার অপরাধে মনিরুলকে মার্কিন বিচারের মুখোমুখি হতেই হবে।বার্তা সংস্থা রয়টার্স বুধবার এক প্রতিবেদনে এ খবর দিয়েছে।

এতে বলা হয়, ২০১৪ সালের মার্চে মাসুদ পারভেজ রানা নামে এক গৃহকর্মী মনিরুল ইসলাম ও তার স্ত্রী ফাহিমা তাহসিনা প্রভার বিরুদ্ধে মামলা করেন।

চাকরির নামে যুক্তরাষ্ট্রে নিয়ে এসে নিউইয়র্কের এই বাংলাদেশি কনসাল জেনারেল তাকে গৃহবন্দী করে রেখেছিল। আর দিনে ১৬ থেকে ২০ ঘণ্টা পর্যন্ত কাজ করিয়ে নিতেন। সেও বিনা বেতনে। এমনকি শারীরিক নির্যাতনও করা হতো রানাকে।

পাশাপাশি পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে তাকে হত্যা করা হবে বলেও হুমকি দিতেন মনিরুল ইসলাম। এক বছরের বেশী সময় এই ‘দাসজীবন’ কাটানোর পর মনিরুল ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা করেন রানা। এরই মধ্যে মনিরুল মরক্কোয় বাংলাদেশ দূত হিসেবে নতুন চাকরি শুরু করেন।

মামলা থেকে অব্যাহতি পেতে ম্যানহাটন ফেডারেল আদালতে আবেদন করেন মনিরুল ইসলাম। কিন্তু বিচারক স্টেইন মঙ্গলবার বলেন, মনিরুল ইসলাম ও তার স্ত্রী গৃহকর্মী রানার করা মামলা থেকে অব্যাহতি পাবেন না। তাদেরকে মার্কিন বিচারের মুখোমুখি হতেই হবে।

রানার পক্ষের আইনজীবী এমিলি শিয়া এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন। টেলিফোন সাক্ষাৎকারে এই নারী আইনজীবী রয়টার্সকে বলেন, ‘এক বছরেরও বেশী সময় ধরে বিবাদী তাকে (রানা) ক্রীতদাসের মতো করে রেখেছিল।’ রয়টার্স

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ১০:১২ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ০৮ জানুয়ারি ২০১৫

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com