যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ শুরু

জর্জিয়ায় আক্রান্তের সংখ্যা ১০০ঃ মারা গেছে ১জন

সোমবার, ১৬ মার্চ ২০২০

যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ শুরু

Healthযুক্তরাষ্ট্রে আজ থেকে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ (ট্রায়াল) শুরু হচ্ছে । দ্য ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হেলথের (এনআইএইচ) তত্ত্বাবধানে ওয়াশিংটনের সিয়াটলের হেলথ রিসার্চ ইনস্টিটিউটে এক রোগীর ওপর পরীক্ষামূলকভাবে এই ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হয়।

এনআইএইচ ও মডের্না ইনকের যৌথ সহযোগিতায় এই ভ্যাকসিন তৈরি করা হয়েছে, যা ৪৫ জন রোগীর ওপর পর্যায়ক্রমে প্রয়োগ করা হবে। ভ্যাকসিনে কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে কি না, সেদিকই বিশেষ গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করা হবে।


বিশ্বের নানা ল্যাবরেটরিতে বেশ কয়েকটি রিসার্চ গ্রুপ কোভিড-১৯-এর জন্য কার্যকর ভ্যাকসিন তৈরির কাজ করে যাচ্ছে।

কিছু রিসার্চ গ্রুপ সাময়িক (টেম্পোরারি) ভ্যাকসিনের জন্য কাজ করছে, যা স্থায়ী ভ্যাকসিন তৈরির আগে মাস চারেক পর্যন্ত রোগীকে সুস্থ রাখবে।

যুক্তরাষ্ট্রে একটি পরীক্ষামূলক ওষুধের মাধ্যমে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের জীবন বাঁচানো সম্ভব হয়েছে বলে খবর বেরিয়েছে।

দুই শীর্ষ মার্কিন চিকিৎসক জানান, একটি পরীক্ষামূলক ওষুধের মাধ্যমে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের জীবন বাঁচানো সম্ভব হয়।

মোট ১৫ জন গুরুতর অসুস্থ রোগীর ওপর এই ওষুধ প্রয়োগ করা হয়েছে এবং প্রত্যেকেই সুস্থ হয়ে উঠছেন বলে জানা গেছে।

এই প্রতিষেধকের গবেষণা দলে ছিলেন ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেভিস মেডিকেল সেন্টারের সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ জর্জ থম্পসন। করোনায় আক্রান্ত এক মার্কিন নারীর ওপর প্রথম পরীক্ষামূলকভাবে এই প্রতিষেধক ওষুধ প্রয়োগ করা হয়। ওই নারীর শরীরে গত ২৬ ফেব্রুয়ারি করোনাভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়ে।

ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেভিস মেডিকেল সেন্টারের সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ জর্জ থম্পসন গত শুক্রবার এক বিজ্ঞানবিষয়ক সাময়িকীতে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘আমরা ভেবেছিলাম, রোগী (নারী) মারা যাবেন। তিনি ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি। হাসপাতালে ভর্তির ৩৬ ঘণ্টা পর চিকিৎসকেরা তাঁকে রেমডেসিভির দিয়ে চিকিৎসা করার সিদ্ধান্ত নেন। এই ওষুধ “আইভি” বা ইনজেকশনের মাধ্যমে সরাসরি রক্তে প্রবেশ করানো হয়। এটি শরীরে থাকা “আরএনএ পলিমেরাজ” নামের একটি এনজাইম বিকল করে দেয়। অনেক ভাইরাস নিজেদের অনুলিপি তৈরি করতে এই এনজাইম ব্যবহার করে। রোগীর অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় চিকিৎসকেরা কোনো ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল ছাড়াই এই প্রতিষেধক ব্যবহারের জন্য এফডিএর কাছ থেকে বিশেষ বিবেচনায় ব্যবহারের অনুমতি পেতে সক্ষম হন। “রেমডেসিভির”র ক্ষেত্রে আরও পরীক্ষা করা দরকার।’

সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ জর্জ থম্পসন বলেন, ওষুধটির কারণে নির্দিষ্ট কিছু রোগীর লিভারে বিষক্রিয়া হতে পারে। অন্য সংস্থাগুলো আরও কিছু পরীক্ষামূলক ওষুধ নিয়ে এগিয়ে আসছে, যা বেশি কার্যকর হতে পারে।

চিকিৎসক চাইল্ডস ‘রেমডেসিভির’ সম্পর্কে বলেন, ‘ড্রাগের কোনো ক্ষতিকর প্রভাব আছে কি না, তা নির্ধারণ করতে আমাদের কিছুটা সময় লাগবে।’

মার্কিন জাতীয় স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটসের তথ্য অনুসারে, ‘রেমডেসিভির’ সুরক্ষা ও কার্যকারিতা মূল্যায়নের জন্য ইউনিভার্সিটি অব নেব্রাস্কা যুক্তরাষ্ট্রের নির্ধারিত কিছু হাসপাতালে ভর্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত প্রাপ্তবয়স্ক রোগীদের ওপরে নিয়ন্ত্রিত ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শুরু করেছে।

জর্জিয়া কার্যত –অবরুদ্ধ
যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত তিন হাজারের বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছে। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত মানুষের সংখ্যা এর মধ্যে ৬১ ছাড়িয়ে গেছে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে যুক্তরাষ্ট্রে ৫০ জনের বেশি লোকের কোনো সমাবেশ না করার নির্দেশনা জারি হয়েছে। জর্জিয়ায় আটলান্টা কার্যত স্বেচ্ছা-অবরুদ্ধ নগরীতে পরিণত হয়েছে। সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বার-রেস্তোরাঁয় যাতায়াত সীমিত করে দেওয়া হয়েছে। পুলিশের কর্মঘণ্টা বাড়িয়ে টানা ১২ ঘণ্টা কাজের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। নগরীর হাসপাতালগুলোয় করোনাভাইরাস শনাক্তের পরীক্ষা বৃদ্ধি করা হয়েছে।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নির্দেশ পাওয়ার পরপরই জর্জিয়ার গভর্নর রাজ্যে জরুরী অবস্থা ঘোষণা করছেন। সভা সমিতি বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রম সীমিত করা হয়েছে। স্কুল কলেজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত জর্জিয়ায় ১০০ জনের শরীরে কভিড -১৯ এ আক্রান্তের খবর পাওয়া গেছে । মারা গেছে ১জন।

জর্জিয়ার জনস্বাস্থ্য বিভাগ কর্তৃক প্রকাশিত বিভিন্ন কাউন্টির তালিকা নিম্নরুপঃ

ফুলটন: ২০ কোব: ১৯,ডিক্যাব: ১০, বার্টো: ০৯,চেরোকি: ০৬, ডঘার্টি: ০৬ ফয়েট ০৫ , ফ্লয়েড: ০৪,গুইনেট: ০৪,কাউটা: ০২, ক্লেটন: ০২, ক্লার্ক: ০২, লন্ড্রেস: ০২, লি: ০২, গর্ডন: ০২, নিউটন:১, চার্লটন: ১, হেনরি: ১ ও পোলক: ১।

এ  রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত  জর্জিয়া প্রবাসী  কোন বাংলাদেশি আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি।

শনিবারের চিঠি / আটলান্টা/ মার্চ ১৬, ২০২০

 

 

 

 

 

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৯:২১ অপরাহ্ণ | সোমবার, ১৬ মার্চ ২০২০

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com