যুক্তরাজ্যে করোনা টিকা প্রদান শুরু

প্রথম টিকা নিলেন ৯০ বছর বয়সী মার্গারেট কিনান

মঙ্গলবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২০

যুক্তরাজ্যে করোনা টিকা প্রদান শুরু
প্রথম টিকা নেওয়া ৯০ বছর বয়সী নারী মার্গারেট কিনান। ছবি : রয়টার্স

যুক্তরাজ্যে করোনাভাইরাসের প্রথম টিকা নিয়েছেন ৯০ বছর বয়সী নারী মার্গারেট কিনান। আজ মঙ্গলবার বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে যুক্তরাজ্যে ফাইজার ও বায়োএনটেকের অনুমোদিত করোনার টিকা প্রয়োগ শুরু হয়। যুক্তরাজ্যের সংবাদমাধ্যম বিবিসি ও দ্য গার্ডিয়ানের খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

আগামী সপ্তাহে ৯১ বছরে পা দেবেন মার্গারেট কিনান। জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা কর্মীদের ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘কোভিড-১৯-এর বিরুদ্ধে প্রথম টিকা নিতে পেরে আমি খুশি। এটা নিজেকে দেওয়া আমার জন্মদিনের অগ্রিম উপহার। আমি সামনের বছরটা পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কাটাতে পারব।’


শুরুতে আট লাখ টিকা হাতে পেয়ে এর প্রয়োগ শুরু করল যুক্তরাজ্য। এ মাসের মধ্যেই ফাইজার ও বায়োএনটেকের কাছ থেকে প্রায় ৪০ লাখ ডোজ টিকা পাবে যুক্তরাজ্য। অগ্রাধিকার ভিত্তিতে এই টিকা পাওয়ার ক্ষেত্রে প্রথম সারিতে আছেন দেশটির স্বাস্থ্যকর্মীরা। এ ছাড়া ৮০ বছরের বেশি বয়সী প্রবীণ ও কেয়ার হোমের কর্মীরাও এ টিকা পাচ্ছেন। প্রথম টিকা দেওয়ার তিন সপ্তাহের ব্যবধানে দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হবে এবং প্রত্যেককে গভীর পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। তবে টিকা বাধ্যতামূলক নয়। কেউ না চাইলে তাকে এটি দেওয়া হবে না।

প্রায় ৭০টি হাসপাতাল কেন্দ্রে টিকা পৌঁছে গেছে বলে বিবিসিকে জানিয়েছেন ইংল্যান্ডের জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের (এনএইচএস) ডেপুটি চিফ এক্সিকিউটিভ স্যাফরন করডারি।

তবে টিকার সংরক্ষণ নিয়ে কিছুটা অসুবিধা রয়েছে। অন্তত মাইনাস ৭০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় টিকার ডোজগুলো সংরক্ষণ করতে হয়। একসঙ্গে ৯৭৫ ডোজ রাখতে হয়। এর কম ইউনিটে এখনো ভাগ করা যায়নি।

যুক্তরাজ্যের ইংল্যান্ড, ওয়েলস ও স্কটল্যান্ডে মঙ্গলবার টিকাদান কার্যক্রম শুরু হবে। তবে নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড ঠিক কোনদিন শুরু করবে, তা নির্দিষ্ট করে জানায়নি।

ফাইজার ও বায়োএনটেকের চার কোটি ডোজ অর্ডার দিয়ে রেখেছে দেশটি। দুই কোটি মানুষকে দেওয়া যাবে এই টিকা। অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি ও অ্যাস্ট্রাজেনেকাকেও বিপুল টিকার অর্ডার দেওয়া আছে দেশটির। তবে এটি এখনো চূড়ান্ত অনুমোদন পায়নি।

দেশটির সরকারি তথ্য মতে, এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৬০ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। শীতের সময়টা নিয়ম মেনে চললে আগামী ইস্টার অর্থাৎ এপ্রিল নাগাদ কড়াকড়ি বিধিনিষেধ তুলে নেওয়া সম্ভব হতে পারে বলে জানিয়েছেন যুক্তরাজ্যের সরকার।

শনিবারের চিঠি/ আটলান্টা/ ডিসেম্বর ০, ২০২০

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৬:১১ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২০

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com