মোরেলগঞ্জে আ’লীগের দুই নেতা খুন হলেও থানায় মামলা করতে ভয়ঃ বাদী পক্ষ আতঙ্কে

বৃহস্পতিবার, ০৪ অক্টোবর ২০১৮

মোরেলগঞ্জে আ’লীগের দুই নেতা খুন হলেও থানায় মামলা করতে ভয়ঃ বাদী পক্ষ আতঙ্কে

বাগেরহাটঃ বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলার দৈবজ্ঞহাটিতে দুই আওয়ামী লীগ নেতা হত্যাকাণ্ডের তিনদিন পার হয়ে গেলেও এখনো কোনো মামলা করতে সাহস পায়নি বাদী পক্ষ।

এ ঘটনায় দৈবজ্ঞহাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফকির শহিদুল ইসলামসহ চারজনকে আটক করা হলেও আতঙ্কে বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র অবস্থান করছেন নিহতদের পরিবারের সদ্যসরা।


এ হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বুধবার (০৩ অক্টোবর) দুপুরে মোরেলগঞ্জ প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন বঙ্গবন্ধু যুব সেন্টারের প্রতিষ্ঠাতা ও আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী এমআর জামিল হোসাইন।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতাদের হত্যা কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত সকলের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

পরিকল্পিত এ ঘটনার বিষয়ে তদন্ত করে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান তিনি।

সোমবার (০১ অক্টোবর) বিকেলে জেলার মোরেলগঞ্জ উপজেলার দৈবজ্ঞহাটি ইউনিয়ন পরিষদ এলাকায় আওয়ামী লীগ নেতা আনছার আলী দিহিদারসহ তিনজনকে প্রতিপক্ষ ফকির শহীদুল ইসলামের লোকজন তাদের পিটিয়ে ও কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। এতে আওয়ামী লীগ কর্মী শুকুর শেখ ঘটনাস্থলেই নিহত এবং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনছার আলী দিহিদার খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে  মারা যান।

এ বিষয়ে মোরেলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কেএম আজিজুল ইসলাম সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে এজাহার নিয়ে আসলেই মামলা রেকর্ড করা হবে।সুত্রঃ বাংলা নিউজ

শনিবারের চিঠি / আটলান্টা / অক্টোবর ০৪,২০১৮

 

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৭:০৫ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ০৪ অক্টোবর ২০১৮

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com