মুস্তাক মুহাম্মদের এক গুচ্ছ কবিতা

শনিবার, ২৫ মার্চ ২০১৭

মুস্তাক মুহাম্মদের এক গুচ্ছ কবিতা

বনের পাখি কখনো মায়ায় পড়ে না

মুস্তাক মুহাম্মদ

মুস্তাক মুহাম্মদ

মনের ঘরে পুষেছিলাম আজব এক পাখি
পাখি যত কাছে আসে আরো কাছে চাই
মানে না দিবা রাত্রি।
পাখি শুধু উড়ে উড়ে যায়
সাথে করে প্রাণটা নিয়ে যায়।
পাখি, এমন করে আর যেয়ো না
হয়তো একদিন ফিরে এসে আর পাবে না।
অভিমানে মুখটি লুকায়ে যাবে
তখন আমি অচিন পথের যাত্রী।
শখের বসে এমন পাখি কেউ পুষো না
সবনের পাখি কখনো মায়ায় পড়ে না।


প্রতি মুহূর্তে শুধু শশীলতা

এখন আর কেউ বলে না রাত জেগো না
শিশুর মতো আমার বুকে ঘুমিয়ে পড়ো না,
সকালে উঠতে তোমার দেরি হবে
খোলা বাতাসে হাঁটতে তোমার যেতে হবে।
দুপুরে লাঞ্চ করেছি কিনা কেউ জিজ্ঞাস করে না

আসবে কখন- একটু তাড়াতাড়ি এসো কেউ বলে না।
কলিং বেল বাজতেই আর দরজা খোলে না
অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে থাকি তোমার ভাবনা।
আমার কেনো এতোগুলো না- না
প্রতি মুহূর্ত ভরা শুধু শশীলতা।

 

বিশ্বাসের কাঠগড়া

তোমার কাছে আমার কথার  হয় নি মূল্য
আমার নিয়ে তোমার কোনো হয় নি প্রতিক্রিয়া!
এই কথাটা জেনে রেখো ভালোবাসি তাই
মনের কোণে আমার জন্য জায়গা রেখো।
মিথ্যা নয় সত্য করে বলছি তোমার
বিশ্বাসের কাঠগড়ায় বন্দি আমি-
ভালোবাসি তোমার আমি ভালোবাসি
চাঁদ তারাকে স্বাক্ষী রেখে ভালোবাসি।

 

ভালোবাসার খাসমহল

বুকের ভেতর জমা আছে ভালোবাসা
তাই লক্ষ্ যোজন দূরেতেও ভালো থাকা
প্রতি মুহূর্তে তোমার ছবি বুকে আঁকা
তুমি যে আমার ভালোবাসার শশীলতা।
চাঁদ তারা তো  চাই নি আমি
চাই না তাজমহল
তুমি- আমি মিলে গড়ব
ভালোবাসার খাসমহল।

 

পাঁচপোতা, যশোর।
মার্চ ১৮, ২০১৭

শনিবারের চিঠি / আতলান্টা/ মার্চ ২৫, ২০১৭

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৯:৫৫ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ২৫ মার্চ ২০১৭

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com