‘মার্কিন চাপে’ কানাডার অভিবাসন ওয়েবসাইটের পতন

বুধবার, ০৯ নভেম্বর ২০১৬

‘মার্কিন চাপে’ কানাডার অভিবাসন ওয়েবসাইটের পতন

শনিবার রিপোর্টঃ  প্রেসিডেন্ট নির্বাচন যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকেই ভোট-পরবর্তী অবস্থা নিয়ে বেশ শঙ্কিত ছিলেন দুই পক্ষের সমর্থকরা। অনেকেই বলেছিলেন, বিরোধী প্রার্থী জিতলে দেশ ছাড়বেন তাঁরা।

ট্রাম্পের জয়ের সম্ভাবনা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই দেশত্যাগীদের তালিকাটাও বড় হচ্ছে। তালিকায় যুক্তরাষ্ট্রের সাধারণ নাগরিকরাও যোগ দিচ্ছেন—এমন দাবি অনেকের।
সিএনএন জানিয়েছে, এরই মধ্যে প্রতিবেশী দেশ কানাডার অভিবাসন ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে পারছেন না অনেকেই। তাঁরা অভিযোগ করে বলেছেন, ওয়েবসাইটটিতে প্রবেশ করতে গেলেই ‘৫০৫ ইন্টারনাল সার্ভার ইরর’ বার্তা দেখা যাচ্ছে।


ট্রাম্পের জয়ের সম্ভাবনা বৃদ্ধির পর দেশ ছাড়ার পরিকল্পনা করছেন অনেক মার্কিন। এর পরিপ্রেক্ষিতেই কানাডীয় অভিবাসন ওয়েবসাইটের এ সমস্যা বলে মনে করছেন অনেকে। তাঁদের মতে, নির্বাচনের ফল নিজেদের পক্ষে আসবে না এমন ধারণা থেকে অনেকেই চলে যেতে চাইছেন প্রতিবেশী দেশ কানাডায়।

তবে নির্বাচন আর কানাডীয় ওয়েবসাইট পতনের (ক্র্যাশ) মধ্যে কোনো যোগসূত্র নেই, এমন দাবিও তোলা হয়েছে। তাঁদের মতে, প্রতিবার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পরই দেশত্যাগের হিড়িক পড়ে মার্কিনদের মধ্যে। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। ওয়েবসাইট ক্র্যাশের ঘটনাটা নিতান্তই প্রযুক্তিগত সমস্যা।

এদিকে ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে না পেরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভিন্ন মন্তব্য করেছেন অনেকে।

একজন মার্কিন নাগরিক টুইটারে লেখেন, ‘কানাডীয় ওয়েবসাইট এইমাত্র ক্র্যাশ করল, তারা কি আমাদের সঙ্গে মজা করছে?’

আরেকজন লেখেন, ‘কানাডীয় ওয়েবসাইট ক্র্যাশ ট্রাম্পের অবশ্যম্ভাবী জয়কেই ইঙ্গিত করছে।’ সিএনএন

শনিবারের চিঠি/ আটলান্টা / নভেম্বর ০৯, ২০১৬

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ২:০৬ অপরাহ্ণ | বুধবার, ০৯ নভেম্বর ২০১৬

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com