মানচিত্র নিয়ে বাংলাদেশ প্যাভিলয়নে তুলকালাম

সোমবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

মানচিত্র নিয়ে বাংলাদেশ প্যাভিলয়নে তুলকালাম

 

শনিবার রিপোর্টঃ পশ্চিমবঙ্গের কলকাতার চলতি বইমেলায় বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশনের প্রচারপত্রে ভারতের ম্যাপে কাশ্মীরের পুরোটা না দেখানোয় বিক্ষোভের পর সেগুলো প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে।


কলকাতা থেকে বিবিসির সংবাদদাতা অমিতাভ ভট্টশালী জানিয়েছেন, শনিবার সন্ধ্যায় হিন্দু জাতীয়তাবাদী দল বিজেপির বেশ কিছু কর্মী ব্যানার প্ল্যাকার্ড নিয়ে বইমেলায় বাংলাদেশে প্যাভিলিয়নের সামনে বিক্ষোভ শুরু করে। তাদের বক্তব্য ছিল বাংলাদেশ প্যাভিলিয়নে যে পর্যটন মানচিত্র বিলি করা হচ্ছে, তাতে ভারতের মানচিত্রে কাশ্মীরের পুরোটা নেই। পরিস্থিতি দেখে বাংলাদেশ প্যাভিলিয়ন সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেয়া হয়। পরে স্থানীয় বাংলাদেশ দূতাবাসের কর্মকর্তারা এসে বিক্ষোভকারিদের সামনে দুঃখ প্রকাশ করেন এবং পর্যটন সম্পর্কিত প্রকাশনাগুলো নিয়ে চলে যান।

এই ঘটনার পর রোববার সাত সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বাংলাদেশের পর্যটন মন্ত্রণালয়।

পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বিবিসিকে বলেন, গ্রাফোসম্যান নামে একটি বেসরকারি কোম্পানির প্রকাশিত একটি মানচিত্র পর্যটন প্রচারপত্রে ব্যাবহার করা হয়েছে। মন্ত্রী বলেন, তিনি মানচিত্রটি দেখেছেন এবং তার মনে হয়েছে এত কাশ্মীরের অংশটি ‘অস্পষ্ট’। “হয়তো ভুল হয়ে থাকতে পারে।” মেনন বলেন, কারা কোন যুক্তিতে পর্যটন প্রচারপত্রে এই মানচিত্রটি ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছেন তা তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

বিতর্কিত কাশ্মীরের একটি অংশ ভারতের নিয়ন্ত্রণে থাকলেও, ভারত সবসময় তাদের মানচিত্রে কাশ্মীরের পুরোটা রাখে। একইভাবে পাকিস্তানও তাদের মানচিত্রে কাশ্মীরের পুরোটা দেখায়। জাতিসংঘ সহ অনেক আন্তর্জাতিক সংস্থা এবং দেশ কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রক রেখাকেই ভারত এবং পাকিস্তানের ডি-ফ্যাক্টো সীমান্ত হিসাবে দেখায়। সুত্রঃবিবিসি

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৭:০৪ পূর্বাহ্ণ | সোমবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com