ভারতের পুনেতে পথশিশুকে বের করে দিয়ে তোপের মুখে ম্যাকডোনাল্ডস

সোমবার, ১৯ জানুয়ারি ২০১৫

ভারতের পুনেতে পথশিশুকে বের করে দিয়ে তোপের মুখে ম্যাকডোনাল্ডস

 

শনিবার রিপোর্টঃ ময়লা জীর্ণ পোশাক পরা এক পথশিশুকে ভারতের পুনে শহরের এক ম্যাকডোনাল্ড রেস্টুরেন্ট থেকে বের করে দেয়ার পর এ নিয়ে তুমুল বিতর্ক শুরু হয়েছে। বিবিসি।


বিশ্বের সবচেয়ে বড় ফাস্ট ফুড চেইন ম্যাকডোনাল্ডস এখন এই ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে।

পুনেতে ম্যাকডোনাল্ডসের ওই রেস্টুরেন্টে ইতোমধ্যে একদল প্রতিবাদকারী গিয়ে কাদা ছুঁড়ে এসেছেন, মহারাষ্ট্র সরকারও জানিয়েছে তারা বিষয়টি নিয়ে খোঁজখবর করছে।

ভারতে ম্যাকডোনাল্ডসের ক্রেতারাও প্রায় একসুরে বলছেন – বাচ্চাটির পোশাকআশাক ছেঁড়া হোক বা নোংরা – তাকে বের করে দেওয়া মোটেই উচিত হয়নি।

পুনের জে এম রোডে ম্যাকডোনাল্ডসের যে শাখা আছে, তার বাইরে দাঁড়িয়েছিল আট বছর বয়সী এক পথশিশু।

শাহিনা আট্টারওয়ালা নামে এক তরুণী তাকে রেস্টুরেন্টের ভেতরে নিয়ে যান খাবার কিনে দেয়ার জন্য।

শাহিনা পরে জানিয়েছেন, তিনি যখন বাচ্চাটিকে নিয়ে দোকানের ভেতরে লাইনে দাঁড়িয়েছিলেন, তখনই হঠাৎ ম্যাকডোনাল্ডসের একজন কর্মী এসে বাচ্চাটির জামার কলার ধরে তাকে বাইরে বের করে দেয়। তিনি প্রতিবাদ জানাতে গেলে তাঁকে বলা হয়, এই ধরনের লোকজনকে ম্যাকডোনাল্ডসের ভেতরে ঢুকতে দেওয়া হয় না!

সেলিম নামে ওই বাচ্চাটি নিজেও পরে জানায়, ম্যাডাম তাকে জিজ্ঞেস করেছিল ফ্যান্টা খাবে কি না। সে রাজি হওয়াতে দুজনে একসঙ্গেই ভেতরে ঢোকে – কিন্তু তাকে ধাক্কা দিয়ে বের করে দেওয়া হয়!

ফেসবুকে শাহিনা পরে এই ঘটনার কথা লিখতেই তা প্রতিবাদের ঝড় তোলে।

সোশ্যাল মিডিয়াতে ঘটনার কথা পড়ে একদল বিক্ষোভকারী ম্যাকডোনাল্ডসের ওই দোকানটিতে এসে কাদামাটিও লেপে দিয়ে যান – যার পর আরও হামলার আশঙ্কায় জে এম রোডের ওই দোকানটি আপাতত বন্ধ রাখা হয়েছে।

দিল্লি সফররত মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী ফাডনবিসও জানান, রাজ্যে ফিরেই তিনি ঘটনাটি নিয়ে খোঁজ নেবেন। আর এখন সারা ভারতে জুড়ে ম্যাকডোনাল্ডসের ক্রেতারাও বলতে শুরু করেছেন, বিশ্বের এত নামজাদা ফাস্ট ফুড চেইন কাজটা মোটেও ভাল করেনি।

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ১০:১২ পূর্বাহ্ণ | সোমবার, ১৯ জানুয়ারি ২০১৫

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com