বৈশাখী মেলায় গিয়ে স্কুলছাত্রী গণধর্ষণের শিকার

সোমবার, ২০ এপ্রিল ২০১৫

বৈশাখী মেলায় গিয়ে স্কুলছাত্রী গণধর্ষণের শিকার

 

টাঙ্গাইল: ঘাটাইলে বৈশাখী মেলায় গিয়ে খালার বাড়ি ফেরার পথে গণধর্ষণের শিকার হয়েছে এক স্কুলছাত্রী। ১৬ এপ্রিল বৃহস্পতিবার রতনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত বৈশাখী মেলা থেকে ফেরার পথে রাতে এ ঘটনা ঘটে।


গণধর্ষণের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে র‌্যাব-১২ টাঙ্গাইল ও পুলিশ রোববার রাতে অভিযান চালিয়ে রতনপুর গ্রামের ১০ যুবককে গ্রেপ্তার করেছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- ঘাটাইল উপজেলার  জাহাঙ্গীর আলম (১৯), আজহারুল ইসলাম (২৫), মো. সবুজ (২০), শরিফুল ইসলাম (২০), রেজাইল বাপ্পী (১৮), সিরাজুল শুভ (২০), হারুন অর রশিদ (২০), মো. আরিফ হোসেন (১৯), মাসুম মিয়া (২৫) ও জিহাদ হোসেন (১৯)। এদের সকলের বাড়ি ঘাটাইল উপজেলার পৌরসভাধীন রতনপুর গ্রামে।

এদিকে ঘটনার তিন দিন পর এ ব্যাপারে ধর্ষিতা ছাত্রীর মা জমিলা বেগম বাদী হয়ে সোমবার সকালে ঘাটাইল থানায় গণধর্ষণের মামলা করেছেন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ঘাটাইল উপজেলা গৌরিশ্বর গ্রামের ভ্যান চালক মিন্টু মিয়ার মেয়ে স্থানীয় কুশারিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী। গত ১৬ এপ্রিল বৈশাখী মেলা দেখার জন্য তার মাকে নিয়ে রতনপুর গ্রামে তার খালার বাড়িতে যায়। মেলা দেখে ওই দিন রাতে একা তার খালার বাড়িতে ফিরছিল সে। এ সময় ১০/১২ জন যুবক তার গতিরোধ করে রতনপুর ঈদগাহ মাঠ থেকে পাশ্ববর্তী মরা খালে নিয়ে গণধর্ষণ করে।

ধর্ষিতা স্কুলছাত্রী জানায়, ঘটনার পর সে কাউকে না জানিয়ে লোকলজ্জার ভয়ে ঘাটাইল পৌরসভাধীন ঝড়কা এলাকায় তার এক বান্ধবীর বাড়িতে আশ্রয় নেয়। সেখান থেকে মোবাইল ফোনে সে তার বাবা-মাকে বিষয়টি জানায়। পরে ঘটনার তিন দিন পর তার বাবা-মা তাকে সেখান থেকে নিয়ে যায়। আসামিরা প্রভাবশালী হওয়ায় ধর্ষিতার পরিবার থানায় মামলা করতে সাহস পায়নি। এ আবস্থায় গত ১৯ এপ্রিল রোববার রাতে রতনপুর গ্রামের চকপাড়া এলাকায় মেয়ের মামা রমজান আলীর বাড়িতে বিষয়টি নিয়ে এক শালিসি বৈঠকের আয়োজন করে।
এদিকে ধর্ষিতার ভগ্নিপতি আজগর আলী ঘটনাটি টাঙ্গাইল র‌্যাব-১২ কে জানায়। পরে রোববার রাতে পুলিশ ও র‌্যাব-১২ টাঙ্গাইল যৌথঅভিযান চালিয়ে শালিসী বৈঠক থেকে ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ১০ যুবককে গ্রেপ্তার করে।

ঘাটাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মাকসুদুল আলম বাংলামেইলকে জানান, গ্রেপ্তার দশ জনকে সোমবার সকালে টাঙ্গাইল জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। ধষির্তা ছাত্রীটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

শনিবারের চিঠি / আটলান্টা / ২০ এপ্রিল ২০১৫

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৫:৪৬ অপরাহ্ণ | সোমবার, ২০ এপ্রিল ২০১৫

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com