ইটের খোয়া চুরির অভিযোগে যশোরে বিদ্যালয়ের শিক্ষক আটক

বৃহস্পতিবার, ০২ সেপ্টেম্বর ২০২১

ইটের খোয়া চুরির অভিযোগে  যশোরে বিদ্যালয়ের শিক্ষক আটক
ভ্যানে আটক ইটের খোয়া [ ছবিঃ সংগৃহীত ]

যশোরের শার্শা মডেল সরকারি পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালযের প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম’র বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের  ইটের খোয়া চুরি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহষ্পতিবার সকালে ইটের খোয়া গুলো ভ্যানে করে বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয়রা তাকে  হাতেনাতে আটক করে।

জানাযায়, বৃহষ্পতিবার সকালে বিদ্যালয়ে রক্ষিত ১৫ বস্তা ইটের খোয়া ভাড়ায় চালিত একটি ভ্যানে করে  বাড়িতে  নিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় জনতা তাকে আটক করে উপজেলা প্রশাসনকে খবর দেয়। পরে উপজেলা প্রশাসন খবর পেয়ে ভ্যান বোঝাই খোয়াসহ প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলামকে আটক করে নিয়ে আসে।


এলাবাসী সুত্রে জানা যায়, শিক্ষক শহিদুল ইসলামের বিরুদ্ধে  পূর্বেও দূর্নীতির রেকর্ড রয়েছে।  কিছুদিন আগে সে এ বিদ্যালয় থেকে পুরাতন রড ও ইট চুরি করে নিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় জনগন আটকিয়ে রাখে। পরে হাতে পায়ে ধরে ছাড়িয়ে যায়। এ ছাড়াও সে ২০১৫ সালে অত্র বিদ্যালয় থেকে সরকারি বই-খাতা চুরি করে বিক্রয়ের অভিযোগে উপজেলা প্রশাসন ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে সাজা প্রদান করে জেল হাজতে পাঠায়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার অফিস থেকে ঝাড়ুদারের মোবাইল ফোন চুরি, নারী কেলেংকারীসহ বিদ্যালয়ের একাধিক শিক্ষার্থীকে শারিরীক ভাবে নির্যাতন করার অভিযোগ রয়েছে।

অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম বলেন, আমি স্থানীয় সংসদ সদস্যের মাধ্যমে ইটের খোয়া গুলো ক্রয় করেছি তার সঠিক ক্রয় রশিদ আছে এবং সে নিজেকে নিরাপরাধ দাবী করেন।

এব্যাপারে শার্শা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মীর আলিফ রেজা বলেন, খবর পেয়ে ভ্যান বোঝাই ইটের খোয়াসহ প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলামকে আটক করে নিয়ে আসা হয়। ইটের খোয়া গুলো ক্রয় করেছে  এবং তার ক্রয় রশিদও আছে বলে সে জানায়।  ঘটনা ঘটার সময় সে রশিদ দেখাতে ব্যর্থ হয় । মুসলেকা দিয়ে প্রধান শিক্ষককে ছেড়ে দিয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ১০:৫৯ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ০২ সেপ্টেম্বর ২০২১

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com