বিআরটি’র গার্ডারকাণ্ডে নিহত হত্যার বিচার চান রুবেলের পরিবার

মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট ২০২২

বিআরটি’র গার্ডারকাণ্ডে নিহত হত্যার বিচার চান রুবেলের পরিবার
রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজের মর্গে স্বজনদের আহাজারি। [ ছবিঃ সংগৃহীত]

 

রাজধানীর উত্তরায় বাস র‍্যাপিড ট্রানজিট (বিআরটি) প্রকল্পের উড়ালসড়কের গার্ডার পড়ে নিহত পাঁচজনের মরদেহ এখন শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজের মর্গে। মরদেহের কাছে পাওয়ার অপেক্ষায় স্বজনদের আহাজারিতে ভারী হয়ে উঠেছে মর্গের আশপাশ। এটিকে ‘হত্যাকাণ্ড’ বলে দাবি তাঁদের। মরদেহের অপেক্ষায় আছেন আইয়ুব আলী ওরফে রুবেলে মিয়ার স্ত্রী রেহেনা আক্তারও। তিনি বলেন, ‘আমি আমার স্বামী হত্যার বিচার চাই।’


গতকাল সোমবার বিকেলে বৌভাতের অনুষ্ঠান শেষ করে বাসায় ফিরছিল এক পরিবারের সাতজন। উত্তরার জসিম উদ্দিন মোড়ের কাছে পৌঁছালে নির্মাণাধীন উড়ালসেতুর গার্ডার প্রাইভেটকারের ওপর পড়ে নিহত হন পাঁচজন। নিজস্ব ওই প্রাইভেটকার চালাচ্ছিলেন আইয়ুব। যাচ্ছিলেন ছেলের শ্বশুরবাড়ি জামালপুরে।

আইয়ুবের স্ত্রী রেহেনা আক্তার বিলাপের সুরে বলেন, ‘আমি বিচার চাই। স্বামী হত্যার বিচার চাই। বিচার ছাড়া তো আর কিছু চাওয়ার নেই। আমি চাই, আমার মতো এমন ঘটনা যেন আর কারও জীবনে না ঘটে।’

রেহেনা বলেন, ‘আমার ছেলের (হৃদয়) বউভাত হয় গতকাল। অনুষ্ঠানে সবাই একসঙ্গে বসে খাওয়াদাওয়া করেছি। স্বামী, ছেলে, ছেলেবউ নিয়ে খেয়েছি। স্বামীর সঙ্গে সেটাই ছিল আমার শেষবারের মতো খাওয়াদাওয়া।’

রেহেনা আরও বলেন, ‘আমার স্বামী অনেক আগে বলেছিলেন, তিনি যদি কখনো তাঁর (স্ত্রী) আগে মারা যান, তাহলে যেন মা-বাবার পাশে তাঁকে দাফন করা হয়।’

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৪:৪৪ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট ২০২২

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com