বাগেরহাটে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নৌকার ৭২ প্রার্থী

বৃহস্পতিবার, ০৩ মার্চ ২০১৬

বাগেরহাটে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নৌকার ৭২ প্রার্থী

Bagerhatরবিউল ইসলাম, বাগেরহাটঃ ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে বাগেরহাট জেলার ৭৪টি ইউনিয়নে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন আওয়ামী লীগের ৭২ প্রার্থী। এর মধ্যে রয়েছে মোল্লাহাট ও চিতলমারী উপজেলার সবকটি ইউনিয়ন এবং বাগেরহাট সদর উপজেলার নয়টি ইউনিয়ন।

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হতে যাওয়া এই ৭২ প্রার্থীর মধ্যে ৩৪ জন চেয়ারম্যান পদে, সংরক্ষিত মহিলা সদস্যপদে সাতজন এবং সাধারণ সদস্যপদের ৩১ প্রার্থী রয়েছেন।


ভোট ছাড়া নির্বাচিত হতে যাওয়া ৩৪ চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীর মধ্যে চারজন নারী। তাঁরা হলেন—সোনাইলতলা ইউনিয়নের নাজরিনা বেগম, সন্তোষপুর ইউনিয়নের সামিয়া রহমান বিউটি, ফকিরহাট সদর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান শিরিনা আক্তার কিসলু ও মোরেলগঞ্জ উপজেলার তেলিগাতী ইউনিয়নের মোর্শেদা আক্তার।

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত বাকি ৩০ চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হলেন—বাগেরহাট উপজেলার গোটাপাড়া ইউনিয়নে শেখ শমসের আলী, বেমরতা ইউনিয়নে মনোয়ার হোসেন টগর, যাত্রাপুর ইউনিয়নে এম এ মতিন, খানপুর ইউনিয়নে ফকির উদ্দিন, বাগেরহাট সদরের ডেমা ইউনিয়নের মো. মনি মল্লিক,  বিষ্ণুপুর ইউনিয়নে অ্যাডভোকেট শংকর চক্রবর্তী, কাড়াপাড়া ইউনিয়নে শেখ বশিরুল ইসলাম, রাখালগাছি ইউনিয়নে আবু শামীম আছনু ও বারুইপাড়া ইউনিয়নে সরোয়ার মোড়ল।

কচুয়া উপজেলার কচুয়া সদরে সিকদার হাদিউজ্জামান হাদিস,  বাধালে আওয়ামী লীগের নকীব ফয়সাল অহিদ, ধোপাখালীতে মকবুল হোসেন ও গজালিয়ায় মো. নাসির।

এ ছাড়া ফকিরহাট উপজেলার মূলঘর ইউনিয়নে অ্যাডভোকেট হিটলার গোলদারও বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন।

তবে মোল্লাহাট উপজেলার সাতটি ইউনিয়নের মধ্যে ছয়টিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। গাংনী ইউনিয়নে মেয়াদ শেষ না হওয়ায় নির্বাচন হচ্ছে না। এ  ছয় ইউনিয়নেও আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন। তাঁদের মধ্যে উদয়পুর ইউনিয়নে হায়দার মামুন, কুলিয়া ই্উনিয়নে মো. বাবলু মোল্লা, কোদালিয়া ইউনিয়নে সাইফুল ইসলাম ভুঁইয়া, আটজুড়ি ইউনিয়ন মো. মশিউর রহমান মিয়া, চুনখোলা ইউনিয়নে মুনসী তানজীল হোসেন, গাওলা ইউনিয়নে  শেখ রেজাউল ফকির।

চিতলমারী উপজেলায় চিতলমারী সদর ইউনিয়নে হাজি শেখ নিজাম উদ্দিন, চরবানিয়রী ইউনিয়নে অশোক কুমার বড়াল, হিজলা ইউনিয়নে মো. আজমীর কাজী, বড়বাড়িয়া ইউনিয়নে  মো.  মাসুদ  সরদার, কলাতলা  ইউনিয়নে মতিয়ার  রহমান  শিকদার ও শিবপুর ইউনিয়নে হিদুজ্জামান কাকা মিয়া।

রামপাল উপজেলার পেড়িখালী ইউনিয়নে রফিকুল ইসলাম বাবুল ও মল্লিকেরবেড় ইউনিয়নে তালুকদার নাজমুল কবির ঝিলাম এবং মোরেলগঞ্জের পঞ্চকরণ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী আবদুর রাজ্জাক মজুমদার, চিংড়াখালীতে আলী আক্কাস তালুকদার বুলু ভোট ছাড়াই নির্বাচিত হচ্ছেন।

অন্যদিকে বাগেরহাট সদর উপজেলার একমাত্র ষাটগম্বুজ ইউনিয়নে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বর্তমান চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী শেখ আক্তারুজ্জামান বাচ্চু ও বিএনপি মনোনীত প্রার্থী ফকির তৌহিদুল ইসলাম।

এ ছাড়া সদস্যপদে ১৬৩ জন ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্যপদে ৩১ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এ ছাড়া জেলার যে ৪০টি ইউনিয়নে নির্বাচন হতে যাচ্ছে, সেখানে চেয়ারম্যান পদে ১৩৬ জন, সংরক্ষিত মহিলা পদে ৭৪৮ জন, সাধারণ সদস্যপদে দুই হাজার ৫১৭ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

শনিবারের চিঠি/আটলান্টা/ মার্চ ০৩, ২০১৬

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ১১:২৫ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ০৩ মার্চ ২০১৬

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com