বাগেরহাটের রামপালে এক কিশোরী গণধর্ষণের শিকার

শনিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

বাগেরহাটের রামপালে এক কিশোরী গণধর্ষণের শিকার

 

BGHTবাগেরহাটঃ খুলনা থেকে রামপালে বন্ধুর সঙ্গে দেখা করতে এসে সতেরো বছর বয়সী এক কিশোরী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে। গ্রামবাসীর সহযোগিতায় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে সেলিম মোল্লা (২৪) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার ও ধর্ষিতাকে উদ্ধার করে।


শুক্রবার রাতে বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার গৌরম্ভা ইউনিয়নের গৌরম্ভা গ্রামের জনৈক জুলফিকার আলী হাজীর বাড়ির বাগানে এই ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় কিশোরী বাদী হয়ে রামপাল থানায় সেলিমসহ চারজনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেছেন। শনিবার সকালে পুলিশ গণধর্ষণের শিকার ওই কিশোরীকে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য পাঠিয়েছে।

সেলিম মোল্লা গৌরম্ভা গ্রামের আমানত মোল্লার ছেলে।

রামপাল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মোহম্মদ শাহ আলম এ প্রতিনিধিকে বলেন, রামপাল উপজেলার গৌরম্ভা গ্রামের নয়ন নামে এক ছেলের সঙ্গে প্রায় এক বছর আগে এই কিশোরীর মোবাইলফোনের মাধ্যমে পরিচয় হয়। সেই পরিচয়ের সূত্রধরে শুক্রবার বিকেলে নয়ন নামে ওই বন্ধু মোবাইলে ফোন করে মেয়েটিকে রামপালে আসতে বলে। বন্ধুর ফোন পেয়ে মেয়েটি খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলার শিয়ালীডাঙ্গা গ্রাম থেকে রামপালে চলে আসে। নয়ন ও তার আরেক বন্ধু প্রদীপ দুজনে রামপাল উপজেলার ভান্ডারকোট নামকস্থান থেকে মেয়েটিকে নিয়ে তারা একই উপজেলার আদাঘাট এলাকায় ঘুরতে যায়। সন্ধ্যায় সেখান থেকে ঘুরে তারা তিনজনে মিলে গৌরম্ভা গ্রামে রওনা দিলে নয়নের পূর্ব পরিচিত সেলিম, লোকমান, বাবুল ও সেন্টু তাদের পথরোধ করে ওই মেয়েটিকে তাদের কাছে রেখে নয়ন ও প্রদীপকে চলে যেতে ভয়ভীতি দিলে তারা মেয়েটিকে রেখে চলে যায়। পরে ওই চার যুবক মেয়েটিকে ওই গ্রামের একটি বাগানে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। সেলিমের তিন বন্ধু মেয়েটিকে সেলিমের কাছে রেখে সটকে পড়ে। পরে গ্রামবাসী খবর পেয়ে স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়িতে জানালে পুলিশ সেখানে গিয়ে সেলিমকে গ্রেপ্তার ও ধর্ষিতাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

সেলিম ও তার তিন বন্ধু মিলে মেয়েটিকে ধর্ষণ করেছে বলে পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে। এই ঘটনায় কিশোরী বাদী হয়ে রামপাল থানায় সেলিমসহ চারজনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেছেন। অন্যদের ধরতে পুলিশ অভিযান শুরু করেছে।

গণধর্ষণের শিকার ওই কিশোরীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য পুলিশ স্থানীয় হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

 

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৮:৩২ অপরাহ্ণ | শনিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com