বগুড়ায় যুবলীগ অফিসে আ.লীগের হামলা, আহত ৬

রবিবার, ০৭ জুন ২০১৫

বগুড়ায় যুবলীগ অফিসে আ.লীগের হামলা, আহত ৬

 

বগুড়া: কাহালুতে সরকারি খাদ্য গুদামে ধান সরবরাহ নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে যুবলীগ কার্যালয়ে হামলা চালায় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা। এসময় দুপক্ষে ব্যাপক সংঘর্ষ, মুহুর্মুহু ককটেল বিস্ফোরণ, দোকান ও বাড়ি ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয়। এতে উভয় পক্ষে আহত হয় অন্তত ৬ জন।


শনিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে কাহালু উপজেলা যুবলীগের অফিসে এ হামলার ঘটনার ঘটে। গুরুতর আহত একজনকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

কাহালু উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রাজিব এ প্রতিনিধিকে জানান, চলতি মওসুমে কাহালু উপজেলা সরকারি খাদ্য গুদামে সরকারিভাবে কৃষকের কাছ থেকে ৩৭৮ মেট্রিক টন ধান কেনা হয়। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, পৌর মেয়র হেলাল উদ্দিন কবিরাজ ও তার ভাই বিএনপির লোকদের নিয়ে গোপনে গুদামে ধান সরবরাহ করে। খবর পেয়ে গত ২ জুন কৃষকদের বঞ্চিত করে নিজেরা গুদামে ধান দেয়ার কারণ জানতে চাইলে মেয়র ও তার ভাইয়ের সঙ্গে যুবলীগ নেতাকর্মীদের ধাক্কাধাক্কি হয়। এ ঘটনার জের ধরে শনিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে মেয়রের ছেলে সুরুজের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী উপজেলা যুবলীগের অফিসে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর করে। অফিসে থাকা যুবলীগের ৩/৪ জন কর্মীকে মারপিট করে আহত করে। এসময় তারা কমপক্ষে ১৫টি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটায়। আহত যুবলীগ কর্মীদের স্বজনরা খবর পেয়ে গ্রাম থেকে এসে পৌর মেয়রের বাড়ি ও তার মার্কেটে ভাঙচুর চালায়। এ ঘটনার সঙ্গে যুবলীগের কেউ জড়িত নয় বলে রাজিব দাবি করেন।

এদিকে, কাহালু পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হেলাল উদ্দিন কবিরাজ বাংলামেইলকে জানান, যুবলীগের নামধারী সন্ত্রাসীরা তার বাড়ি ও মার্কেটে ককটেল হামলা চালিয়েছে। তারা বাড়ির থাই গ্লাস ভাঙচুর করেছে। মার্কেটের চারটি দোকানে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর করেছে। যুবলীগ সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত হয়েছে কমপক্ষে ৪ জন। একজনের অবস্থা গুরুতর। তাকে শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হামলায় প্রায় ২০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

খাদ্য গুদামে ধান সরবরাহের বিষয়ে জানতে চাইলে হেলাল উদ্দিন কবিরাজ বলেন, ওই ঘটনার সঙ্গে তিনি মোটেও জড়িত নন। তিনি প্রকৃত কৃষকের কাছ থেকে ধান কেনার পক্ষে। এঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

বগুড়ার সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (বি-সার্কেল) গাজিউর রহমান এ প্রতিনিধিকে জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। এঘটনায় জড়িতরা সন্ত্রাসী। তারা যে দলেরই হোক ছাড় দেয়া হবে না। এখনো কোনো পক্ষ অভিযোগ করেনি।

শনিবারের চিঠি / আটলান্টা / ৭ জুন ২০১৫

 

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ১০:০০ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ০৭ জুন ২০১৫

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com