ফ্রান্সে আটক হয়েছিলেন চিত্রনায়ক মারুফ

বৃহস্পতিবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৫

ফ্রান্সে আটক হয়েছিলেন চিত্রনায়ক মারুফ

বিনোদনচিত্রনায়ক কাজী মারুফকে ফ্রান্সে আটক করা হয়েছিল । নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে তাকে ১২ ডিসেম্বর ঢাকামুখী বিমানে বাঁধা দেয় ফ্রান্সের প্যারিস শার্ল দ্যা গল বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে, গত ২৮ ডিসেম্বর পারিবারিক কাজে কাজী মারুফ ফ্রান্সে যান। ১২ ডিসেম্বর তার দেশে ফেরার কথা ছিল। দেশে ফিরে ‘মাস্তান পুলিশ’ নামের একটি সিনেমায় শুটিং করার জরুরি তাগিদও ছিল। তাই পারিবরিক কাজ শেষে গত শনিবার তিনি দেশে ফেরার প্রস্তুতি নেন। কিন্তু ফ্রান্সের প্যারিস শার্ল দ্যা গল বিমানবন্দরে গেলে নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে তাকে আটক করা হয়। এ সময় বিমানবন্দরে সব মুসলিম যাত্রীকেই একই কারণ দেখিয়ে আটক করা হয়। গত দু’দিন মারুফ বিমানবন্দরের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হেফাজতে ছিলেন।

ফ্রান্স ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে সন্ত্রাসী হামলার কারণে সেখানকার বিমানবন্দরে কড়াকড়ি আরোপ করেছে দেশগুলো। এই বাড়তি নিরাপত্তার কারণেই মারুফকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় বলে জানান তার বাবা প্রখ্যাত চিত্র পরিচালক কাজী হায়াৎ।


তিনি শেষ পর্যন্ত বিভিন্ন তথ্য প্রমাণ দেখিয়ে প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছেন যে, তিনি কোনো সন্ত্রাসী নন। বরং বাংলাদেশের একজন চিত্রনায়ক। তবে ছাড়া পাবার আগ পর্যন্ত তাকে বেশ খানিকটা হয়রানির শিকার হতে হয়।

শনিবারের চিঠি/ আটলান্টা/ ১৭ ডিসেম্বর ২০১৫

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৬:০৯ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৫

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com