পরীমণির অসহায়ত্ব দেশের সকল নারীর অগ্রগতির পথে বাধা সৃষ্টি করবে

শনিবার, ২৮ আগস্ট ২০২১

পরীমণির অসহায়ত্ব দেশের সকল নারীর অগ্রগতির পথে বাধা সৃষ্টি করবে
শামসুন্নাহার  স্মৃতি ওরফে পরীমণি [ ছবিঃ সংগৃহীত ]

নারীদের  এগিয়ে যাওয়া প্রতিষ্ঠিত হওয়া আজও নারীদের জন্য  অনেক কঠিন। এদেশে   যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও  নারীদের সব পেশায় কাজ করতে পরিবার থেকে উৎসাহ প্রদান  করা হয় না। এর কারন হিসাবে দেশে আইন শৃংখলার অবনতি, বিচার না পাওয়া,  সহিংসতা, মানুষের মানষিকতা অনেকাংশে  দায়ী। অথচ উন্নত বিশ্বে নারীরা গভীর রাতেও নিরাপদে সর্বত্র অবাধে বিচরন করতে পারে। আমাদের দেশে যেখানে ফেসবুক খুললেই দেখা য়ায় নীতি  বাক্যের ছড়া ছড়ি ,নারীদেরকে প্রতিমুহুর্তে অপমান করা হয় । তাদের খোলামেলা  চলাফেরা করার জন্য সেই দেশে নারীরা অনরিাপদ?

ভাবতে অবাক লাগে। এদেশ নারীদের অল্প বয়সে বিবাহ দেয়ার প্রচলন  আজও রয়েই গেছে ।একজন  নারী যখন  অনেক ভালো কাজ করে প্রতিভাময়ী হয়ে উঠে  তখন তার পরিবারের প্রধান ব্যক্তি স্বামীটিও অপমানতি বোধ করেন। হীন মন্যতায় ভুগেন। স্ত্রীর প্রতিভা বিকাশে অসহযোগিতা করেন। একবারও ভাবেননা স্ত্রীর প্রতিভা তারঁ জন্য গর্বেরও  হতে পারে। স্ত্রীকে যেনো সব সময় স্বামীর চেয়ে লম্বায় ছোট , যোগ্যতায় কমই হতে হবে। ইদানিং মিডিয়াতে নারীর প্রতি সহিংসতা বেড়েই চলেছে।একজন নারীর নামে মিথ্যা অপপ্রচার চালালে,নারীকে চরিত্রহীনা  বানালে একদিকে চ্যানেলের পরিচিতি যেমন বাড়ে তেমনি ভাবে অতি সহজে নারীর কাজটিও বন্ধ করে দেয়া যায়। একজন নারীকে বন্দি করে ফেলা যায়। একজন  নারীকেতার পরিবার থেকে অন্য পরিবারে যেতে হয় প্রিয়জনদের ছেড়ে ব্যাপারাটি যে কত কষ্টের? একটি প্রবাদ আছে, বাবার ঘরে জন্ম দিয়ে পরের ঘরে যেতে হয়, নারীর বড় শক্তকাজ পরকে আপন করতে হয়।’


সেই নারী যখন স্বাবলম্বী হয় উপার্জনক্ষম হয় তখন নারীর সম্মান বহুগুনে বেড়ে যায় । আজ আমি পরীমণির কথাই বলতে চাই। যার মূল নাম শামসুন্নাহার  স্মৃতি । আমাদের দেশে সিনেমা জগৎ ধ্বংসের মুখে। এক সময় বিনোদন বলতে ছিলো এই সিনেমা। পরিবারের সবাই মিলে সিনেমা দেখা সিনেমা হলে যাওয়া ছিলো দারুন আনন্দের। একসময় এদেশে  সিনেমার স্বর্ন যুগ ছিলো। এই সিনেমা জগৎকে ঘিরে শত শত লোক জীবিকা নির্বাহ করে। সিনেমা  জগৎ ধ্বংস হলে আনেক পরিবার না খেয়ে মরবে। সেই সিনেমা জগতের আন্যতম জনপ্রিয় সুন্দরী নায়িকা পরীমণি। যাকে বিশাল পুলিশ বাহিনী নিয়ে গ্রেফতার করা হয়। বারবার রিমান্ড দেয়া হয়  ।কারন তার বাড়িতে কয়েক বোতল মদ পাওয়া গেছে। আমার  মনে হয় বিশ্বের বেশির ভাগ নায়কিার বাড়িতেই হয়তো মদ পাওয়া যাবে।এছাড়া গুলশান  বনানীর অনেক অভিজাত বাড়িতেও হয়তো মদ পাওয়া যাবে। সিনেমার তারকা তাদের জীবন আর দশটা সাধারন নারীর মতো হয়তো নয়। দেশে আর কোন নায়িকার বাড়িতে কি মদ নেই  ? শুধু পরীমণিকে এভাবে গ্রেফতার করা হলো কেনো? নাকি পরীমণি অন্যায় কাজের সঙ্গে হাত  মেলায়নি? নাকি পরীমণি প্রতিভাময়ী সুন্দরী। অভাবনীয় সম্ভবনা আছে পরীমণির তাই হিংসুক কুচক্রী তাদের স্বার্থে তাকে ব্যবহার করতে না পেরে  তাকে ধ্বংস করতে চায়? পিতা মাতাহীন এতিম  মেয়ে পরীমণি। আগুনে দগ্ধ হয়ে তার মা মারা যায় কতটা কষ্টের তার জীবন? আর একটু বড় হবার পর বাবাকে তিনি হারিয়েছেন। তাঁর জীবনের চলার পথটি মসৃন ছিলোনা। সবাই তাকে তাদের স্বার্থে ব্যবহার করতে চেয়েছে। নতুন কর্মক্ষেত্রে সকলেরই সহযোগিতার প্রয়োজন। অমি জেমি চয়নিকা ড্রাইভার সকলেই তার আজকের দিনটির জন্য হয়তো দায়ী। অনেকেই তার পোশাকের কথা বলেছেন ,এও বলেছেন এ্যারেষ্ট হবার সময় তার পোষাক মার্জিত ছিলোনা। কিন্তু এদেশে দুই বছরের শিশু, আশি বছরের বৃদ্ধা মা ,হিজাব পরীহিতা তনুও ধর্ষিতা হয়েছে। নারী যদি কোন অন্যায় করে সেই নারীকে সমাজে চলার উপযুক্ত রাখা হয় না  সহিংসতার মাধ্যমে। বিচারেরে আগেই  বিভিন্ন অনলাইনেই তাকে উলঙ্গ করে বিচার করে ফেলা হয়। অথচ সমাজে ধর্ষক . মাদক পাচারকারী, খুনী কত শত কালো টাকার মালিক ঘুরে বেড়াচ্ছে  তাদের  বিচার করা হয়না। নাকি পরীমণি এতিম অসহায় তাই তার পিছনে লাগা সহজ?পরীমণিকে যেভাবে গনমাধ্যম কর্মি, পুলিশ বাহনিী গ্রেফতার করেছে হেনস্থা করেছেতা ভবিষ্যতে নারী শিল্পিদের সিনেমা জগতে নতুন শিল্পি আসার ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করবে বলে অনেকে মনে করেন। নারীদের অগ্রগতি বাধাগ্রস্থ হবে। ঢালিউডের অন্যতম শিল্পির অসহায় অবস্থা যেনো ঢালিউডের অসহায়ত্বেরই প্রতিচ্ছবি।পরীমণি যদি নির্দোষ হয় তবে তিনি দ্রুত যেনো মুক্তি পান সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি  আকর্ষন করছি। অনেক সিনেমাতে  বিনয়োগ করা হয়েছে পরীমণির মুক্তির পর আবার কাজ শুরু হবে। পরীমণির মতো প্রতীভাময়ী শিল্পীর সিনেমা জগতে  অনেক প্রয়োজন। দেশের বৃহত্তর স্বার্থে তাকে মুক্তি দেয়া হোক। ইনশল্লাহ আমরা যে পরীমণিকে পাবো সে হবে এক অন্য পরীমণি ।

 

লক্ষীপুর।।

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ১:০৮ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ২৮ আগস্ট ২০২১

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com