পরিস্থিতি বুঝে সেনাবাহিনী মোতায়েন — সিইসি

বৃহস্পতিবার, ০২ এপ্রিল ২০১৫

পরিস্থিতি বুঝে সেনাবাহিনী মোতায়েন —  সিইসি

ঢাকা: বিএনপির পক্ষ থেকে আসন্ন সিটি নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের দাবির প্রেক্ষিতে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিব উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘পরিস্থিতি বুঝে সেনাবাহিনী মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।’

বুধবার সন্ধ্যায় নির্বাচন কমিশন (ইসি) কার্যালয় থেকে বের হয়ে অপেক্ষমান সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।


তিনি আরো বলেন, ‘আগামী ১৯ এপ্রিল আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে বৈঠকে বসবে নির্বাচন কমিশন। এরপর পরিস্থিতি অনুযায়ী আমরা সিদ্ধান্ত নেব নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের প্রয়োজন আছে কিনা।’

এর আগে বুধবার বিকেল ৩টায় সিইসির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন বিএনপির ছয় সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল। প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বে ছিলেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আ স ম হান্নার শাহ ও জমির উদ্দিন সরকার।

সাক্ষাৎকালে তারা আসন্ন সিটি নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েন ও বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়সহ বন্ধ থাকা অন্য কার্যালয়গুলো খুলে দেয়ারও দাবি জানান।

বন্ধ থাকা বিএনপির কার্যালয় খুলে দেয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘সিটি নির্বাচন একটি নির্দলীয় নির্বাচন। তারপরও সবাই দলীয় কার্যক্রমের মাধ্যমে অংশগ্রহণ করে। এ কারণে এটি একটি সংস্কৃতি হয়ে দাঁড়িয়েছে। আমরা নির্বাচনী আইনের মধ্যে থেকে যতটুকু পারব করব।’

যারা আত্মগোপনে আছে বা কারাগারে আছে তাদের ব্যাপারে ইসি বিএনপিকে কীভাবে সহায়তা করবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘যারা আত্মগোপনে আছে এ ব্যাপারে আইন মোতাবেক ব্যবস্থা নেবে আদালত। আমাদের এখানে কিছুই করার নেই। এর আগে জেলে থেকেও অনেকেই নির্বাচনে জেতার নজিরও আছে।’

বিএনপিকে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড করে দিতে ইসি কী সহায়তা দেবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেনে, ‘এখানে সহায়তা করার বিশেষ কিছু নেই। সিটি নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে সব ধরনের দায়িত্ব পালন করবে ইসি।’

 

শনিবারর চিঠি / আটলান্টা / ০২ এপ্রিল ২০১৫

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৮:৪৬ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ০২ এপ্রিল ২০১৫

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com