পটূয়াখালী থেকে ছাত্রদল সভাপতি গ্রেপ্তার

সোমবার, ২০ জুলাই ২০১৫

পটূয়াখালী থেকে ছাত্রদল সভাপতি গ্রেপ্তার

 

ঢাকা: পটুয়াখালীর দুমকি উপজেলা থেকে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি রাজিব আহসানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ সময় সংগঠনটির আরও পাঁচ নেতাকর্মীকেও গ্রেপ্তার করা হয়। রাজিব আহসানের লাগেজ চেক করে ৪৫ পিস ইয়াবা ও এক বোতল মদ পাওয়া গেছে বলে দাবি করেছে পুলিশ।


এদিকে, কেন্দ্রীয় সভাপতিকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে সোমবার বরিশাল বিভাগের সকল জেলা ও উপজেলায় বিক্ষোভ মিছিলের ডাক দিয়েছে ছাত্রদল।

রাজিব আহসান ঢাকায় নিয়মিত মামলার আসামি হলেও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে তার বিরুদ্ধে পটুয়াখালীতে মামলা দায়ের করা হবে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

এর আগে, রোববার রাত ১১টার দিকে গোয়েন্দা পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে বলে বাংলামেইলকে জানিয়েছেন ছাত্রদলের সহ-সভাপতি নাজমুল হাসান।

তবে পটুয়াখালীর এএসপি সাহেব আলী পাঠান বাংলামেইলকে বলেন, ‘ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি গ্রেপ্তার হওয়ার বিষয়টি আমরা এখনও জানি না। তবে কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আমরা যাচাই বাচাই করে আপনাদের জানাবো।’

জানা গেছে, ঢাকায় ঈদ করে বাবার কবর জিয়ারত করতে পটুয়াখালীর মেহেন্দিগঞ্জে গ্রামের বাড়ি যান রাজিব আহসান। দুমকির লেবুখালী এলাকার ঢাকা মহাসড়কে একটি সাদা মাইক্রোবাস থেকে রাজিবসহ মেহেন্দিগঞ্জ ছাত্রদলের কর্মী মো. সালাউদ্দিন, মো. রফিকুল ইসলাম, সৈয়দ জসিম উদ্দিন ও সাইফুল ইসলাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তাদের ব্যবহৃত গাড়িটিও জব্দ করা হয়। এদের মধ্যে চার জনকে দুমকি থানায় নেয়া হয়েছে এবং রাজিবকে পটুয়াখালী ডিবি কার্যালয়ে নেয়া হয়।

এদিকে, গতকাল ঈদের দিন বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ঈদ শুভেচ্ছায় উপস্থিত ছিলেন রাজিব আহসান। এমনকি জিয়াউর রহমান ও ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর কবর জিয়ারত করার সময়ও বেগম খালেদা জিয়ার পাশে ছিলেন রাজিব।

শনিবারের চিঠি / আটলান্টা / ২০ জুলাই ২০১৫

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৫:০৬ অপরাহ্ণ | সোমবার, ২০ জুলাই ২০১৫

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com