নড়াইলে ‘যুদ্ধযাত্রা-৭১ এর উদ্বোধন

সোমবার, ০৫ মার্চ ২০১৮

নড়াইলে ‘যুদ্ধযাত্রা-৭১ এর উদ্বোধন

উজ্জ্বল রায়, নড়াইলঃ স্মৃতির মনিকোঠায় স্মরণীয় সেদিন ‘যুদ্ধযাত্রা-৭১ উদযাপন’ নামে দুদিনব্যাপী এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে মুক্তিযোদ্ধারা ৭১ সালে যুদ্ধে অংশগ্রহণের সেই স্মৃতিগুলি তুলে ধরবেন। যুদ্ধযাত্রা-৭১’ এর আয়োজনে রোববার সকাল সাড়ে ১০টায় নড়াইল সদর উপজেলার ভবানীপুর আরবিএফ এম মাধ্যমিক বিদ্যালয় চত্বরে স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন নড়াইলের নবাগত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসীম উদ্দিন বিপিএম।

এসময় মুক্তিযুদ্ধের পতাকা উত্তোলন করেন শহীদ মিজানুর রহমানের মাতা শহীদ জননী লোহাগড়া উপজেলার জয়পুর গ্রামের আকলিমা খাতুন যুদ্ধের ইতিহাস তুলে ধরতে ‘যুদ্ধযাত্রা-৭১’ এর উদ্বোধন মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে নড়াইলের বিভিন্ন স্থানে সংগঠিত যুদ্ধের ইতিহাস নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে ব্যতিক্রমী এক স্মরণানুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। । এ উপলক্ষে বিদ্যালয় চত্বর থেকে একটি বর্নাঢ্য র‍্যালি  বের হয়। র‍্যালি টি স্থানীয় সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে একই স্থানে এসে শেষ হয়।


Narail-juddojatra-71-Photo--(5)উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যুদ্ধযাত্রা’৭১ এর সভাপতি ৭১’ বিএলএফ কমান্ডার (মুজিব বাহিনী) শরীফ হুমায়ুন কবীরের সভাপতিত্বে বক্তৃতা করেন প্রধান অতিথি নড়াইলের নবাগত পুলিশ সুপার এসপি মোহাম্মদ জসীম উদ্দিন পিপিএম, বিশেষ অতিথি শহীদ মিজানুর রহমানের মাতা শহীদ জননী আকলিমা খাতুন, শহীদ মিজানুর রহমানের ভাই শেখ আমিনুর রহমান প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য দেন যুদ্ধযাত্রা ৭১’ এর সাধারণ সম্পাদক শরীফ আরিফ নাছির। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন নড়াইল জেলা অনলাইন মিডিয়া ক্লাবের সভাপতি উজ্জ্বল রায় ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ হিমেল মোল্যা,  দৈনিক যুগান্তর পত্রিকার নড়াইল প্রতিনিধি মো.শাহীদুল ইসলাম শাহী,  জিটিভি নড়াইল জেলা প্রতিনিধি মির্জা মাহমুদ রন্টু ,নড়াইল জেলা সাংবাদিক ইউনিটির সাধারন সম্পাদক মোঃ জিয়াউর রহমান জামী, আকতার মোল্যা, (বাগডংগা) দৈনিক ভোরের বাংলা পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক মোঃ জাহাঙ্গীর শেখ, একই পত্রিকার বার্তা সম্পাদক মোঃ হাবিবুর রহমান শাওন, নড়াইল প্রতিদিনের কন্ঠের বুলু দাস, তুহিনসহ নড়াইল জেলা অনলাইন মিডিয়া ক্লাবের সকল সদস্য বৃন্দ সহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ। দু’দিনব্যাপী এই অনুষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে প্রথমদিন বিকেলে ভবানীপুর বলাকা স্পোর্টিং ক্লাব ও মহিষখোলা একাদশের মধ্যে ভলিবল প্রতিযোগিতা, আলোচনা সভা, সন্ধ্যায় খুলনা ও যশোরের শিল্পীদের অংশগ্রহণে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং রাতে শিল্পী রীনা পারভীন ও বেবী পারভীনের অংশগ্রহণে জইরগানের আসর। দ্বিতীয় দিন ৫ মার্চের অনুষ্ঠানমালায় রয়েছে বিকেলে লাঠিখেলা, স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠান, সন্ধ্যায় নৃত্যানুষ্ঠান, কুষ্ঠিয়ার শিল্পীদের অংশ গ্রহণে লালনগীতি এবং রাতে রওশন বয়াতী ও সঞ্জয় মলি­কের অংশ গ্রহণে কবি গান। এই অনুষ্ঠানে জেলার মুক্তিযোদ্ধা, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, জন প্রতিনিধি, বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিসহ বিভিন্ন পেশার মানুষ অংশগ্রহণ করবেন।

শনিবারের চিঠি / আটলান্টা /  ০৫ মার্চ  , ২০১৮

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৬:১৬ পূর্বাহ্ণ | সোমবার, ০৫ মার্চ ২০১৮

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com