নিউ জার্সিতে কাউন্সিলম্যান পদে বাংলাদেশি প্রার্থীর জয়লাভ

বৃহস্পতিবার, ১২ মে ২০১৬

নিউ জার্সিতে কাউন্সিলম্যান পদে বাংলাদেশি প্রার্থীর জয়লাভ

বাংলা প্রেস, নিউ ইয়র্ক: যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সি অঙ্গরাজ্যের প্যাটারসন সিটি কাউন্সিল নির্বাচনে বিপুল ভোটে বাংলাদেশি প্রার্থী জয়লাভ করেছেন। স্থানীয় সময় গত মঙ্গলবার দিনব্যাপী ভোট গ্রহন ও গণনা শেষে প্রবাসী বাংলাদেশি শাহীন খালিককে বেসরকারিভাবে জয়ী ঘোষনা করা হয়।

মঙ্গলবার রাতে নির্বাচনের ফলাফল ঘোষনার পর বাংলাদেশি অধ্যুষিত প্যাটারসন সিটিতে বাংলাদেশিদের মাঝে আনন্দের বন্যা বয়ে যায়। প্রবাসীরা খন্ড খন্ড মিছিল নিয়ে ছুটে আসেন শাহীন খালিকের ইউনিয়ন এভিনিউর নির্বাচনী কার্যালয়ে তাকে শুভেচ্ছা জানাতে। সিটির ওয়ার্ড কাউন্সিল নির্বাচনে শাহীন খালিকের ওই বিজয়কে প্রবাসীরা বাংলাদেশি কমিনিউটির বিজয় বলে উল্লেখ করেন শাহীন খালিক। এ বিজয়ের মাধ্যমে আমেরিকার মুলধারার রাজনীতিতে বাংলাদেশিদের সক্রিয় অবস্থান জানাতে সক্ষম হয়েছেন বলেও অভিমত ব্যক্ত করেন তিনি।


ব্যবসায়ী শাহীন খালিক পেয়েছেন ১ হাজার ৩৮৬ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বর্তমান কাউন্সিলম্যান ও একই ওয়ার্ড থেকে গত নির্বাচনে নির্বাচিত প্রথম বাংলাদেশী-আমেরিকান কাউন্সিলম্যান মোহাম্মদ আক্তারুজ্জামান ফয়সল পেয়েছেন ১ হাজার ৩৪৬ ভোট।

নির্বাচনে কাউন্সিলম্যান পদে ঐ ওয়ার্ড থেকে তিনবারের নির্বাচিত সাবেক কাউন্সিলম্যান আসলান গাঁউ এবং একমাত্র ল্যাটিন-আমেরিকান প্রার্থী এডি গঞ্জালেসও প্রতিদ্বন্দ্বিতাতা করেন। তাদের প্রাপ্ত ভোট হচ্ছে যথাক্রমে ৭২৬ ও ৪৭২।

নিউ জর্সি প্রবাসী বাংলাদেশিদের সেবামুলক প্রতিষ্ঠান নিউ জার্সি হেলপ সেন্টারের প্রতিষ্ঠাতা শাহীন খালিক কাউন্সিলম্যান পদে বিজয়ী হবার পর এক প্রতিক্রিয়ায় বলেন, সিটির দুই নম্বর ওয়ার্ডে বসবাসকারী সকল প্রবাসী বাংলাদেশীদের কাছে তিনি কৃতজ্ঞ। নির্বাচনি প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী দলমত নির্বিশেষে সবাইকে নিয়ে ঐকবদ্ধ ভাবে কাজ করে প্যাটারসনকে সুপরিকল্পিতভাবে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন শহরে রূপান্তরিত করার উদ্যোগ গ্রহন করার উল্লেখ করেন তিনি। কমিনিউটির উন্নয়নের পাশাপশি আদর্শ সমন্বয়কারী হয়ে সিটির দুই নম্বর ওয়ার্ডে বসবাসকারী সকল কমিউনিটির মধ্যে সমন্নয় সাধন করে সকল নাগরিকের সম্মান ধরে রাখার কথা ব্যক্ত করেন তিনি।

কাউন্সিলম্যান শাহীন খালিকের জন্ম বাংলাদেশের সিলেট জেলার বিয়ানীবাজার উপজেলার টিকরপাড়া গ্রামে। তিনি ১৯৯২ সালে ১৩ বৎসর বয়সে পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সাথে যুক্তরাষ্ট্রে আসেন এবং নিউ জার্সির প্যাটারসনে স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন।

শনিবারের চিঠি/আটলান্টা/ মে ১২, ২০১৬

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ১১:২২ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ১২ মে ২০১৬

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com