নিউ ইয়র্কে বিএনপি’র সমাবেশে দুগ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ৭

সোমবার, ২৫ জুলাই ২০১৬

নিউ ইয়র্কে বিএনপি’র সমাবেশে দুগ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ৭

সাবেদ সাথী, নিউ ইয়র্ক : বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের কারাদন্ডের রায়ের প্রতিবাদে নিউ ইয়র্কে একটি বিক্ষোভ সমাবেশে বিএনপির দুগ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে উভয় গ্রুপের ৭ জন আহত হয়েছে। সমাবেশে সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী ও বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক এহসানুল হক মিলনকে স্থানীয় নেতা-কর্মিরা আক্রমণের চেষ্টা করলে তিনি ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান। নিউ ইয়র্কের স্থানীয় সময়  গতকাল রাত ৮টার দিকে  বাংলাদেশি অধ্যুষিত জ্যাকসন হাইটস এলাকায় এ সংঘর্ষে বাঁধে । পুলিশের হস্তক্ষেপে পরে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

বিবরণে প্রকাশ, ঐদিন বিকেলে জ্যাকসন হাইটসের স্থানীয় একটি রেস্তোরাঁর মিলনায়তনে যুক্তরাষ্ট্রে বিএনপি’র সম্রাট-গিয়াস গ্রুপের নেতা-কর্মিরা বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের কারাদন্ডের রায়ের প্রতিবাদে একটি সংবাদ সম্মেলন করেন। এরপর বিএনপির নেতা-কর্মিরা বিক্ষোভ সমাবেশ করার জন্য রেস্তোরাঁর নিচে রাস্তায় ব্যানার ফেস্টুন হাতে সরকার বিরোধী নানা শ্লোগান শুরু করেন। এদিকে জিল্লু-জসিম গ্রুপের নেতা-কর্মিরা পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি মোতাবেক  রাত সাড়ে ৮টায় দিকে একই স্থানে মিছিল নিয়ে আসলে উভয় গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে।


পুলিশের হস্তক্ষেপে পরে পরিস্থিতি শান্ত হয়

পুলিশের হস্তক্ষেপে পরে পরিস্থিতি শান্ত হয়

এ সময় বিক্ষুব্ধ নেতা কর্মিরা সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী ও বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক এহসানুল হক মিলনের উপর চড়াও হয়ে তাঁকে আক্রমণের চেষ্টা চালায়। মিলনের সমর্থিত নেতা-কর্মিদের সহায়তায় তিনি ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান। খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছলে পর পরিস্থিতি শান্ত হয়। এ ঘটনার পর জিল্লু-জসিম গ্রুপ একটি সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেন, দলের নিয়মনীতি উপেক্ষা করে এহসানুল হক মিলন অর্থের বিনিময়ে বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে বিএনপির কমিটি গঠন করেছেন এবং একই ধারায় নিউ ইয়র্ক ষ্টেট বিএনপির কমিটি করার চেষ্টা করছে। জিল্লু-জসিম গ্রুপের নেতা-কর্মিরা এই অবৈধ প্রক্রিয়ার বিরোধীতা করে আসছে। তাঁরা দলের গঠনতন্ত্র মোতাবেক সুন্দর ও সুষ্ঠভাবে নিউ ইয়র্ক ষ্টেট বিএনপি গঠনের দাবি করেন। মিলনের নির্বাচিত নির্বাচন কমিশনার একজন আওয়ামীলীগের অনুসারী বলেও তারা উল্লেখ করেন। তাদের গ্রুপের ৫ জন নেতা-কর্মি সংঘর্ষে আহত হয়েছে বলে সংবাদ সম্মেলনে দাবি করেন বিএনপি নেতা জিল্লুর রহমান জিল্লু ও জসিম উদ্দিন ভূঁইয়া।

বিএনপি নেতা আব্দুল লতিফ সম্রাট ও গিয়াস আহমেদ দাবি করেন ঘটনাস্থলে প্রতিবাদ বিক্ষোভ সমাবেশ করার জন্য নিউ ইয়র্ক সিটি কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়েছিলেন তারা। জিল্লু-জসিম গ্রুপের লোকজন অতর্কিতভাবে এসে সমাবেশে হামলা চালায়। সংঘর্ষে  দু’জন কর্মি গুরুতর আহত হয়েছে বলে তারা দাবি করেন।

সংঘর্ষে উভয় গ্রুপ্রের আহত বিএনপির কর্মিরা হলেন ফুলকু রহমান ও মাজহারুল ইসলাম (লতিফ-গিয়াস) এবং আশরাফ হোসেন, আমানত হোসেন, রেজাউল আজাদ ভুঁইয়া, আনিসুর রহমান ও হুমায়ুন কবির (জিল্লু-জসিম)।

শনিবারের চিঠি/ আটলান্টা / জুলাই ২৫ , ২০১৬

আমাদের সাথে থাকতে ফেসবুক ওপেন করুন এবং লাইক বক্সে ক্লিক দিন।

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৫:৩২ অপরাহ্ণ | সোমবার, ২৫ জুলাই ২০১৬

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com