নিউইয়র্ক বাংলাদেশ সোসাইটির নির্বাচন স্থগিত

আগামীকাল রবিবার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে না

শনিবার, ১৩ নভেম্বর ২০২১

নিউইয়র্ক বাংলাদেশ সোসাইটির নির্বাচন স্থগিত
আগামীকাল রবিবার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে না

নিউইয়র্কে বাংলাদেশ সোসাইটির নির্বাচন আবারও স্থগিত হয়েছে। চলতি বছরে অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনের নানা অনিয়মের কথা উল্লেখ করে সোসাইটির সদস্য নীরা রব্বানির দায়ের করা মামলায় নিউ ইয়র্কের কুইন্স কাউন্টির সুপ্রিম কোর্ট শুক্রবার (১২ নভেম্বর) এ আদেশ দেন বলে সোসাইটির একটি সুত্র জানিয়েছে। ফলে আগামীকাল রবিবার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে না। এর আগে প্রবাসী ওসমান চৌধুরী নির্বাচন স্থগিত সংক্রান্ত মামলা দায়ের করতে ব্যর্থ হন। গতকাল শুক্রবার (১২ নভেম্বর) দুপুরে নির্বাচন স্থগিত সংক্রান্ত মামলা দায়ের করার কথা উল্লেখ করে গত ১০ নভেম্বর বুধবার বাংলাদেশ সোসাইটিসহ ৯ জনের নামে নোটিস জারি করেন ওসমান চৌধুরী।
গত ২০১৮ সালে সোসাইটির সদস্যর্ভুক্তি হন নীরা রব্বানি নামের জনৈক প্রবাসী নারী। তিনি চলতি বছরে অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনের নানা অনিয়মের কথা উল্লেখ করে নির্বাচন স্থগিত করতে নিউ ইয়র্কের কুইন্স কাউন্টির সুপ্রিম কোর্টে একটি আবেদন করেন। তার এ আবেদনের প্রেক্ষিতে শুক্রবার (১২ নভেম্বর) আদালত এ আদেশ দেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বাংলাদেশ সোসাইটির নির্দিষ্ট আইনজীবি মোহাম্মদ আব্দুল আজিজ এ বিষয়টি নিশ্চিত করতে পারেননি। অফিসে মক্কেল রয়েছে এমন অজুহাত দেখিয়ে তিনি বাংলাদেশ সোসাইটির নির্বাচন স্থগিতের বিষয় নিয়ে আলোচনা করতে অনীহা প্রকাশ করেন।
এদিকে ওসমান চৌধুরী বাংলাপ্রেসকে জানান, আদালতের নিয়মানুযায়ী প্রয়োজনীয় কাগজপত্র যথাসময়ে অনলাইনে জমা দিতে ব্যর্থ হয়েছেন। ফলে তিনি তার সিদ্ধান্ত মোতাবেক শুক্রবার নির্বাচন স্থগিত সংক্রান্ত মামলা দায়ের করতে পারেননি। আদালতে সহযোগিতা করার জন্য তিনি একজনকে সাথে নিয়ে গিয়েছিলেন তিনিও অনলাইনে কাগজপত্র জমা দেওয়ার অনেক চেষ্টা করেছেন। কিন্তু আদালতের ওয়েবসাইটে গিয়ে যার ইনডেস্ক নম্বর ৭৮৫০/২০১৮-এর প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দিতে ব্যর্থ হন। তবে তিনি আশা করছেন যে নির্বাচনের পর নির্বাচিত কমিটি ও নির্বাচন কমিশনারদের বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা দায়ের করবেন। আবার কিসের মামলা করবেন এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বাংলা প্রেস’কে বলেন, বর্তমান যে পদ্ধতি বা প্রক্রিয়ায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে তা সংবিধান বহির্ভূত। দু’বছর মেয়াদী কমিটির চলতি নির্বাচন ঘোষনার আগে নির্দিষ্ট সদস্য ফি দিয়ে কেউই সদস্যপদ নবায়ন করেননি এবং এমনকি ভোটার তালিকা হালনাগাদ না করার ফলে নির্বাচন নামক নাটকে সোসাইটির প্রচুর আর্থিক ক্ষতি সাধিত হয়েছে। তাই নির্বাচনের পর তিনি নতুন করে একটি মামলা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানান।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ
নিউইয়র্ক বাংলাদেশ সোসাইটির নির্বাচন কোর্টেঃ আজ শুনানি



এ বিষয়ে বাংলাদেশ সোসাইটির নির্দিষ্ট আইনজীবি মোহাম্মদ আব্দুল আজিজের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি মার্কিন সংবাদমাধ্যম বাংলা প্রেস’কে জানান, শুক্রবার (১২ নভেম্বর) জামাইকার কুইন্স কাউন্টির সুপ্রিম কোর্টে দুপুর ১২:২০ মিনিটে তিনি শশরীরে উপস্থিত ছিলেন। মামলার বাদী ওসমান চৌধুরী তার যথাসময়ে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে আদালতে উপস্থিত হয়েছিলেন কিন্তু আদালত তার কাগজপত্রের মুদ্রিত সংস্করণ (হার্ড কপি) গ্রহণ করেননি। করোনা মহামারির পর থেকে সব ধরনের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র বা নথিপত্র আদালতের ওয়েবসাইটে গিয়ে জমা দেওয়ার নিয়ম রয়েছে। কিন্তু তিনি সে নিয়মে নথিপত্র দাখিল করতে ব্যর্থ হয়েছেন।
উল্লেখ্য, ওসমান চৌধুরী ২০১৮ সালেও নির্বাচনে অংশ নিতে না পারার কারণে তার অধিকার ফিরে পেতে এবং তাকে বঞ্চিত করা হয়েছে এমন অভিযোগ এনে বাংলাদেশ সোসাইটির নির্বাচন স্থগিতের ওপর নিষেধাজ্ঞা চেয়ে আদালতে একটি মামলা দায়ের করেছিলেন কিন্তু বিজ্ঞ বিচারক তা আমলে নেয়নি। তিনি আগের মামলাটিকে পুরুজ্জীবিত করেছেন। যার ইনডেস্ক নম্বর ৭৮৫০/২০১৮। নির্বাচন স্থগিত সংক্রান্ত মামলার এ বিষয়টি জানিয়ে গত ১০ নভেম্বর বুধবার তিনি বাংলাদেশ সোসাইটি, এটর্নি মোহাম্মদ আব্দুল আজিজ, নির্বাচন কমিশন, সাবেক (প্রয়াত) সভাপতি কামাল আহমেদ এবং এবারের নির্বাচনে অংশ গ্রহণকারী রব-রুহুল পরিষদের আব্দুর রব মিয়া, রুহুল আমীন সিদ্দিকী, নয়ন-আলী পরিষদের কাজী আশরাফ হোসেন (নয়ন), মোহাম্মদ আলী নোটিশ করেন।

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৭:৪৬ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ১৩ নভেম্বর ২০২১

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com