নিউইয়র্কে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ট্রাফিক এজেন্টকে লক্ষ্য করে গুলি

অল্পের জন্য রক্ষা

শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২

নিউইয়র্কে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত  ট্রাফিক এজেন্টকে  লক্ষ্য করে গুলি
 ট্রাফিক এজেন্ট মোহাম্মদ ফারুক হোসেন [ ছবিঃ সংগৃহীত ]

নিউইয়র্ক সিটিতে কর্তব্যরত বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত ট্রাফিক এজেন্ট মোহাম্মদ ফারুক হোসেন (৩৫) নামক এক প্রবাসী বাংলাদেশিকে গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটছে। তাকে লক্ষ্য করে পর পর তিনটি গুলি ছুড়লেও  কোন গুলিই লক্ষ্যভেদ না হওয়ায় ভাগ্যক্রমে বেঁচে গেছেন তিনি । ১৭ আগস্ট সন্ধ্যে ৬ টার দিকে ম্যানহাটনের লেক্সিংটন এভিনিউ এবং ১১২ স্ট্রিটে এ ঘটনা ঘটে।

সশস্ত্র দুর্বৃত্তের তাকে পর পর তিন রাউন্ড গুলি করলেও একটিও বিদ্ধ হয়নি ফারুক হোসেনের শরীরে। প্রথম গুলির শব্দ শুনেই তিনি ম্যানহাটনের ব্যস্ততম স্ট্রিটে শুয়ে পড়েন। দ্বিতীয় গুলি তার পায়ের কাছ দিয়ে চলে যায়। তৃতীয় গুলি কাছে আসার আগেই দৌড়ে নিউইয়র্ক পুলিশের গাড়ির কাছে যান। সেই গুলি বিদ্ধ হয় রাস্তার পার্শ্ববর্তী গাছে। গুলিবর্ষণের সংবাদ পেয়েই আশপাশের টহল পুলিশ সেখানে জড়ো হয় এবং ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই বন্দুকধারী দৃর্বৃত্তকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয় বলে জানান ট্রাফিক এজেন্ট ফারুক হোসেন।


ট্রাফিক এজেন্ট ফারুক হোসেন জানান, তিনি সে সময় কোনো গাড়িতে জরিমানার টিকিট দেননি। ইন্টারসেকশনে রাস্তার জ্যাম কমানোর প্রয়াসে ছিলেন তিনি বেআইনিভাবে পার্ক করার জন্য অনেকের গাড়িতে জরিমানার টিকিট দিয়েছেন। কিন্তু কখনও এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি হননি। কোনো টিকিট ইস্যু না করেও এমনভাবে আক্রান্ত কেন হলেন তা ভেবে পাচ্ছেন না। পরপর তিন রাউন্ড গুলি তাকে লক্ষ্য করে ছোঁড়ায় প্রতিয়মান হয় যে, তাকে টার্গেট করেই আক্রমণ করা হয়েছিল। পুলিশ গ্রেপ্তারকৃত দুর্বৃত্তকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

ঝিনাইদহের অধিবাসী ফারুক মাত্র চার মাস আগে ঢুকেছেন এই চাকরিতে। ফারুকের স্ত্রী দুই ছেলে মেয়েসহ বাংলাদেশে বাস করেন।

নিউইয়র্ক পুলিশে তিন হাজারের মতো ট্রাফিক এনফোর্সমেন্ট এজেন্টের প্রায় এক হাজার জনই হলেন বাংলাদেশি।

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ২:১৮ অপরাহ্ণ | শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com