নিউইয়র্কে আগামিকাল শুরু হচ্ছে মুক্তধারার বইমেলা

বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০১৬

নিউইয়র্কে আগামিকাল  শুরু হচ্ছে   মুক্তধারার বইমেলা

নিউইয়র্কঃ নিউইয়র্কে মুক্তধারা ফাউন্ডেশন আয়োজিত ৩ দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক বাংলা উৎসব ও বইমেলা আগামিকাল  থেকে শুরু হয়ে  শেষ হবে  ২২ মে । বাংলাদেশ ও ভারতের পশ্চিম বঙ্গের বাইরে বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতি নিয়ে এই বৃহত্তম মেলা এ বছর উদ্বোধন করবেন বাংলা সাহিত্যের বিশিষ্ট লেখক সেলিনা হোসেন। মেলার ২৫-তম বার্ষিকী উপলক্ষ্যে প্রথমবারের মত বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে উল্লেখযোগ্য অবদানের জন্য একটি সাহিত্য পুরস্কার ঘোষিত হবে বলে আন্তর্জাতিক বাংলা উৎসব ও বইমেলা ২০১৬ এর আহ্বায়ক হাসান ফেরদৌস জানান।

বাংলাদেশের চ্যানেল আই-এর অর্থানুকূল্যে প্রতিষ্ঠিত এই পুরস্কারের নাম মুক্তধারা/চ্যানেল আই সাহিত্য পুরস্কার। বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে সার্বিক অবদানের জন্য একজন লেখক এই পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত হবেন। পৃথিবীর যেকোন স্থান থেকেই তেমন একজন লেখক যৌথভাবে নির্বাচন করবেন চ্যানেল আই ও নিউইয়র্ক বইমেলার প্রস্তুতি কমিটি। মেলার শেষ দিন, ২৩ মে, এই পুরস্কার ঘোষিত হবে। এই পুরস্কারের মূল্যমান দুই লক্ষ টাকা।


বইমেলার আরেকটি উল্লেখযোগ্য দিক হবে, মেলায় অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন প্রকাশনা সংস্থার মধ্যে সেরা বইয়ের স্টলের জন্য একটি পুরস্কার। মেলায় উপস্থিত দুই বাংলার সেরা লেখকদের একটি কমিটি তাঁদের বিবেচনায় সেরা স্টলটি নির্বাচন করবেন। ইতিমধ্যে বাংলাদেশের প্রকাশকদের মধ্যে মাওলা ব্রাদার্সের আহমেদ মাহমুদুল হক, সময় প্রকাশন-এর ফরিদ আহমেদ, অনন্যা-র মোঃ মনিরুল হক, স্টুডেন্ট ওয়েজে-এর মাশফিক উল্লাহ তন্ময়, নালন্দার রেদওয়ানুর রহমান জুয়েল, কথাপ্রকাশের মোহাম্মদ জসিমউদ্দীন, ইত্যাদি গ্রন্থ প্রকাশের জহিরুল আবেদীন জুয়েল, সম্রাজ্ঞী প্রকাশনার সুলতানা রিজিয়া, প্রীতম প্রকাশের পপি চৌধুরী, ধ্রুবপদ-এর আবুল বাশার ফিরোজ শেখ নিউইয়র্কের বইমেলায় যোগ দেয়ার কথা নিশ্চিত করেছেন। ভিসা পাওয়ার উপর নির্ভর করছে আরো বেশকিছু প্রকাশকের যোগ দেয়া।

বাংলাদেশ ও পশ্চিম বাংলার বাইরে বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতি নিয়ে এই বৃহত্তম মেলায় এ উদ্বোধক হিসাবে যোগ দিচ্ছেন বাংলা সাহিত্যের বিশিষ্ট লেখক সেলিনা হোসেন। বাংলাদেশ থেকে যারা মেলায় অংশগ্রহণের কথা যারা নিশ্চিত করেছেন, তাঁদের মধ্যে রয়েছেন বাংলা একাডেমির মহা পরিচালক শামসুজ্জামান খান, অনুবাদক অধ্যাপক আবদুস সেলিম, নাট্য ব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার, অভিনেতা ও লেখক আফজাল হোসেন, ইত্তেফাক পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক তাসমিমা হোসেন, প্রবন্ধকার আহমেদ মাজহার, কবি ও ছড়াকার আমীরুল ইসলাম, কবি সৈয়দ আল ফারুক, শব্দঘর পত্রিকার সম্পাদক ও লেখক মোহিত কামাল, কবি গুলতেকিন খান। এছাড়া ঢাকার চ্যানেল আই এর প্রধান নির্বাহী, বিশিষ্ট লেখক ফরিদুর রেজা সাগর উপস্থিত থাকবেন। শিল্পীদের মধ্যে বাংলাদেশ আসছেন বিশিষ্ট শিল্পী ফেরদৌস আরা, নজরুল গীতি শিল্পী সুজিত মোস্তফা, পশ্চিমবঙ্গ থেকে রবীন্দ্র সংগীত শিল্পী কমলিনী মুখোপাধ্যায় এবং লন্ডন থেকে আসছেন শিল্পী নাহিদ নাজিয়া।

কলকাতার লেখকদের মধ্যে কথা সাহিত্যিক সমরেশ মজুমদার, টেকনো ইন্ডিয়ার প্রধান নির্বাহী ও লেখক সত্যম রায় চৌধুরী এবং প্রকাশক ও লেখক ত্রিদিব কুমার চ্যাটার্জীও বইমেলায় অতিথি হিসেবে যোগ দিচ্ছেন। জার্মান থেকে আসছেন নাজমুন নেসা পিয়ারী। কানাডা থেকে যোগ দিচ্ছেন বিশিষ্ট লেখক লুৎফুর রহমান রিটন, ইকবাল হাসান, মুস্তফা চৌধুরী, মাহফুজুল বারী, জসিম মল্লিক এবং শিল্পী শিখা আহমাদ, ফারহানা শান্তা এবং শেখর গোমেস।

উত্তর আমেরিকার কবি ও সাহিত্যিকদের অনেকেই মেলায় আসছেন বলে মুক্তধারাকে নিশ্চিত করেছেন। বাংলা ভাষার অন্যতম প্রধান কবি একুশে পদকপ্রাপ্ত শহীদ কাদরী এবারের মেলায় তাঁর নির্বাচিত কবিতা নিয়ে একটি বিশেষ অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন।

শনিবারের চিঠি/আটলান্টা/ মে ১৯, ২০১৬

 

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ১০:১৫ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০১৬

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com