তাবলীগ জামাতের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে একজন নিহত, আহত শতাধিক

শনিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০১৮

তাবলীগ জামাতের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে একজন নিহত, আহত শতাধিক

বাংলাদেশ ডেস্কঃ  ঢাকার অদূরে টঙ্গীতে তাবলীগ জামাতের দুই পক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহত এবং ১৩০ জনেরও বেশি লোক আহত হয়েছেন।

গাজিপুর জেলার ডিসি ডা. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ুন কবির সাংবাদিকদের বলেন, নিহতের নাম ইসমাইল মন্ডল, বয়েস ৭০ এবং বাড়ি মুন্সিগঞ্জ।


তিনি জানান, সংঘর্ষে অন্তত ১৩৮ জন আহত হয়েছে – যার মধ্যে ২৫ জনের অবস্থা গুরুতর।

গত কিছুদিন ধরেই তাবলীগ জামাতের কেন্দ্রীয় নেতা সা’দ কান্দালভির কিছু মতবাদকে কেন্দ্র করে সংগঠনটির মধ্যে বিভক্তি ও দ্বন্দ্ব সৃষ্টি হয়েছিল। এ কারণে এ বছর বিশ্ব ইজতেমা হতে পারে নি।

ডা. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ুন কবির জানান, ইজতেমা প্রাঙ্গণ নিয়ন্ত্রণ করছিল জুবায়ের গ্রুপ বলে একটি গোষ্ঠী, তবে আজ প্রতিদ্বন্দ্বী অপর একটি গোষ্ঠী ময়দানের নিয়ন্ত্রণ নেবার চেষ্টা করলে সংঘর্ষ শুরু হয়।

কবির বলেন, তবলীগ জামাতের লোকদেরকে বিকেল তিনটার মধ্যে মাঠ ছেড়ে দিতে বলা হয় এবং সবশেষ খবর অনুযায়ী ময়দান খালি হতে শুরু করেছে।

এর পর শনিবার বিকেলে বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানের সাথে তবলীগ জামাতের নেতাদের একটি বৈঠক হয় যাতে সবাই একমত হন যে বিশ্ব ইজতেমা কবে হবে – তার সিদ্ধান্ত নেয়া হবে নির্বাচন হয়ে যাবার পর। এ ছাড়া সংঘর্ষের ঘটনার তদন্ত এবং পরিস্থিতি শান্ত রাখার জন্য আরো কিছু সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

এর আগে স্থানীয় পুলিশ জানায়, শনিবার ভোর থেকেই টঙ্গীর ইজতেমা এলাকা ও ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কে দু’পক্ষের অনুসারীরা পৃথকভাবে জড়ো হতে থাকেন।

এক পর্যায়ে পরিস্থিতি অশান্ত হয়ে ওঠে। দফায় দফায় সংঘর্ষ ও ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া শুরু হয়।

ঢাকা থেকে টঙ্গীমুখী সড়কগুলো তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।

গত কিছুদিন ধরেই তাবলীগ জামাতের কেন্দ্রীয় নেতা মোহাম্মদ সাদ কান্দালভির কিছু মন্তব্য ও তার মতবাদকে ঘিরে বিতর্ক চলছিলো। সে নিয়ে বাংলাদেশে তাবলীগ জামাতের মধ্যে বিভক্তি তৈরি হয়।

এই অভ্যন্তরীণ কোন্দলের কারণেই এবার বিশ্ব ইজতেমা করার বিষয়টিও সংকটে পড়ে। নভেম্বরের মাঝামাঝি সময় এবারের ইজতেমা হবার তারিখ ঘোষিত হয়েছিল কিন্তু সে আয়োজন স্থগিত করে দিয়েছে সরকার।

বিভক্তি মেটাতে দুই পক্ষের প্রতিনিধিদের সাথে নিয়ে কমিটি করা হয়।

এ বছরের শুরুর দিকেও একবার তাবলীগ জামাতের একাংশের কর্মীরা ঢাকার বিমানবন্দর এলাকায় অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেছিল।

শনিবারের চিঠি/আটলান্টা/ ডিসেম্বর ০১,২০১৮

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৭:৪৬ অপরাহ্ণ | শনিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০১৮

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com