জর্জিয়ায় অনুষ্ঠিত হলো বছরের সেরা বৈশাখী মেলা

মঙ্গলবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৬

জর্জিয়ায় অনুষ্ঠিত হলো বছরের সেরা বৈশাখী মেলা

শনিবার রিপোর্টঃ ২৪ এপ্রিল বরিবার বাংলাদেশি এ্যামেরিকান এ্যাসোসিয়েসান অব জর্জিয়া এবং আটলান্টা কালচারার সোসাইটির যৌথ আয়োজনে স্থানীয় শিল্পী ও কলাকুশলিদের অংশ গ্রহণে  জর্জিয়ার জনপ্রিয় ভেন্যু বার্কমার হাইস্কুলে অনুষ্ঠিত হলো বছরের সেরা বর্ষবরণ ও বৈশাখী মেলা । এর পূর্বে একই স্থানে জর্জিয়া সোসাল এন্ড কালচারাল অর্গানাইজেশন ও বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন অব জর্জিয়াও বাংলা নববর্ষ এবং বৈশাখী মেলা করে ।

সন্ধ্যে ঠিক সাড়ে সাতটায় বৈশাখী সোভাযাত্রার মধ্যদিয়ে বাংলা নব বর্ষ ১৪২৩ সালের  অনুষ্ঠানের যাত্রা শুরু হয়। এ সময়ে  বাংলা নববর্ষকে স্বাগত জানিয়ে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশি-এ্যামেরিকাম এ্যাসোসিয়েসান অব জর্জিয়ার সভাপতি মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন এবং আটলান্টা কালচারাল সোসিটির সভাপতি এম মাওলা দিলু।


13103252_10153551644101485_1192043013707458211_nখোঁপায় ফুল আর ঐতিহ্যবাহী লাল পেড়ে সাদা শাড়ি আর পুরুষের বাঙালির ঐতিহ্যবাহি পোষাক পাজামা-পাঞ্জাবি পড়া বাঙালির পদচারণায় সেদিন বার্কমার হাই স্কুল ছিল বাঙালিদের দখলে সে যেন বার্কমারের বুকে এক টুকরো বাংলাদেশ ।

অনুষ্ঠানে ভাওয়াইয়া- পল্লীগীতি,বাউল, আধুনিক, নজরুল, রবিন্দ্র সংগীতসহ সব ধরণের সঙ্গীতই পরিবেশিত হয়। আর এসব সঙ্গীত পরিবেশন করে স্থানীয় শিল্পী কলাকুশলিবৃন্দ। অনুষ্ঠানের আয়জকদের তরফ থেকে বাংলাদেশি এ্যামেরিকান এ্যাসোসিয়েসান অব জর্জিয়ার সভাপতি মহাম্মদ জসীম উদ্দিন শনিবারের চিঠিকে বলেন, আমরা স্থানীয় সকল কলাকুশলী শিল্পীদের প্রাধান্য দিয়েই এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছি এবং ভবিষ্যতেও আমরা স্থানীয় শিল্পীদের প্রাধান্য দিয়ে যে কোন অনুষ্ঠান করব। নববর্ষ উপলক্ষে ‘তালপাতা, নামে একটি স্মরণিকা প্রকাশিত হয় । সেখানেও স্থানীয় লেখক-কবি সাহিত্যিকদের লেখা প্রাধান্যা পায়।

জর্জিয়া সোসাল এন্ড কালচারাল অর্গানাইজেশনের কতিপয় কর্মকর্তা ছবিঃ ভাস্কর চন্দ

জর্জিয়া সোসাল এন্ড কালচারাল অর্গানাইজেশনের কতিপয় কর্মকর্তা ছবিঃ ভাস্কর চন্দ

অনুষ্ঠানে যে সব শিল্পীরা পারফামেন্স করেন, তারা হলো, রোমেল খান, গাইডেন্স হকিন্স, গোলাম মহিউদ্দিন, তানজিলা ইসলাম তৃষা, তাসলিমা সুলতানা পলি, হোসেনে আরা বিন্দু, মুহি সুমন, লিকা রহমান, রাইদ হোসেন, শেফালী সিদ্দিকী, সারমিন ওমর, দেব্রাদ্রিতা গোস্বামীসহ আরো অনেকে। যন্ত্রসংগীত্তে ছিলেন, তবলায় ব্যাসদেব রানা, ঢোলে মাহফুজুল হক, বেজ গিটারে মুরাদ এবং কী বোর্ডে কবীর আজাদ।

অডিটোরিয়ামের বাহিরে বসে পান্তা –ইলিশ, সুটকি, ঝাল-মুড়িসহ দেশিয় খাবার-দাবারের স্টল, বাহারী রঙের শাড়ি-চুড়ি মনোহরী গহনার স্টল।

স্থানীয় বাঙালি কম্যুনিটির  বিশিষ্ট অনেককেই মেলায় দেখা যায়। তারা হলেন,  জর্জিয়া আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি দিদারুল আলম গাজী, জর্জিয়া বিএনপির সাবেক সভাপতি শুকুর মিন্টু, জর্জিয়া বাংলাদেশ সমিতির সাধারণ সম্পাদক আহমেদুর রহমান, গিয়াস উদ্দিন ভুঁইয়া, সলিমুল্লাহ সলি , মাইনুজ্জামান  ঝন্টু,ডিউক খান ,জামিল ইমরান ,মামুন শরীফ,আরিফ আহমেদ, জর্জিয়া সোসাল এন্ড কালচারাল অর্গানাইজেশনের আহবায়ক মোহন জাব্বার, সদস্য সচিব নেহাল মাহমুদ, রাশেদ খান, আবু নাসের মিলন,জর্জিয়া আওয়ামী লীগের সহসভাপতি শেখ জামাল,যুবলীগের ইলিয়াস হাসান রানাসহ আরো অনেকে।

এছাড়াও স্থানীয় অতিথী হিসেবে  আমেরিকান কম্যুনিটির মধ্যে গুনেইট কাউন্টি ডেমোক্রাটিক পার্টি সভাপতি জিল শেলী, সহসভাপতি বার্ণেট পেনী, জো ট্রেবারী,বিন্দা লোপেজ ও জেসপার ওয়ার্টকিন উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানের বৈশাখী সাজসজ্জা ও ছিল আকর্ষনীয় এবং হৃদয় স্পর্শী। আকর্ষনীয় সাজসজ্জার একটি ভিডিও ক্লিপ দেখতে নিম্নের লিঙ্কে চাপ দিনঃ

শনিবারের চিঠি/আটলান্টা/ এপ্রিল ২৬, ২০১৬

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ১১:৩০ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৬

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com