জর্জিয়ায় স্বাধীনতা দিবস উদযাপনে অপ্রীতিকর ঘটনাঃ কম্যুনিটিতে অসন্তোষ

বৃহস্পতিবার, ০৪ এপ্রিল ২০১৯

জর্জিয়ায় স্বাধীনতা দিবস উদযাপনে অপ্রীতিকর ঘটনাঃ কম্যুনিটিতে অসন্তোষ

Probashষ্টাফ রিপোর্টারঃ গত ৩১ মার্চ বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব জর্জিয়া আয়োজিত মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস এক অপ্রীতিকর ঘটনার মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে । অন্য একটি সংগঠনে উদ্ভুত ঘটনা  কেন বাংলাদেশিদের মূল সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব জর্জিয়ায় এসে পড়বে  ? এ জন্য স্থানীয় কম্যুনিটির ব্যক্তিবর্গরা অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন । অনেকে এ ব্যাপারে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও বিবৃতি দিয়েছেন।

৩১ মার্চ রবিবার বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব জর্জিয়া আয়োজিত স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস স্থানীয় ইন্ডিয়ান গ্রীল এন্ড রেস্টুরেন্টে সংগঠনের সভাপতি মোস্তফা মাহমুদের সভাপতিত্বে এবং সাধারন সম্পাদক এ এইচ রাসেল ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক সৈকত প্রধানের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয়।


অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জর্জিয়া আওয়ামী লীগের বর্তমান এবং সাবেক সভাপতি যথাক্রমে হুমায়ূন কবির কাওছার ও মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী হোসেন, জর্জিয়া বিএনপির সভাপতি নাহিদুল খান সাহেল, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব জর্জিয়ার সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ জামান ঝন্টু, মুক্তিযোদ্ধা হারুন  রশিদ যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সহসভাপতি এবং বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব জর্জিয়ার সাবেক  সভাপতি ডাঃ মুহম্মদ আলী মানিকসহ আরো অনেকে ।

Publication1

অনুষ্ঠানে সংঘর্ষ চলাকালীন একটি দৃশ্য

অনুষ্ঠান চলাকালে জর্জিয়া যুবলীগের একাংশের একদল যুবক মঞ্চে উপবিষ্ট ডাঃ মুহম্মদ আলী মানিক ও তার নিজস্ব সংগঠন বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন অব জর্জিয়ার  প্রতিনিধিদের আক্রমণ করে । আক্রমণে তাঁর সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক শ্যাম চেয়ার উল্টে পড়ে যান। ডাঃ মানিক অবশ্য শনিবারের চিঠিকে বলেছেন তাঁর উপর কেউ কোন আঘাত করেনি এবং তিনি প্রতিহিংসার লক্ষ্য ব্যক্তি ছিলেন না। অভিষেক ও অন্যান্যের উপর আঘাত এলে তিনি আক্রমণকারীদের নিবৃত করতে গিয়ে  সামান্য আঘাত প্রাপ্ত হন । যা কোন ডাক্তারি চিকিৎসা করার মত নয় । এছাড়াও  জর্জিয়া বিএনপির সভাপতি নাহিদুল খান সাহেলও আঘাত প্রাপ্ত হন । তাও কোন ডাক্তারি চিকিৎসা করার মত নয় ।  অনুষ্ঠানে দু’ দুবার পুলিশ ডেকে পরিস্থিত নিয়ন্ত্রণে আনা হয় । তবে পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করে নি । পুলিশ কাউকে গ্রেফতার না করার আক্রমনকারিদের নাম জানা সম্ভব হয়নি ।

প্রাপ্ত বিবরনে জানা যায় , বেশ কিছুদিন ধরে জর্জিয়ায় যুব লীগ ও সেচ্ছাসেবক লীগ  গঠণ নিয়ে জর্জিয়া আওয়ামী পরিবারের মধ্যে একটা ঠান্ডা কোন্দল চলে আসছিলো। বেশ ক’দিন ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে কে বা কারা স্বনাম বেনাম থেকে বিভিন্ন উস্কানিমূলক স্টাটাস দিয়ে আসছিল । অদ্যাবধি তা দিয়ে আসছে ।

জানা যায়, জর্জিয়া যুব লীগ ও সেচ্ছাসেবক লীগের এক অংশের সদস্যরা যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সহসভপতি ডাঃ মানিকে আক্রমণ করে । ঐ আক্রমণ কারীদের সাথে  মাহবুব আলম সাগর ও সাদমান সুমন নামে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব জর্জিয়ার দুইজন নির্বাচিত কর্মকর্তাও জড়িত  ছিলেন ।

উপস্থিত সূধীমন্লীর একাংশ

উপস্থিত সূধীমন্ডলীর একাংশ

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব জর্জিয়া সূত্রে জানা গেছে ঐ দুই কর্মকর্তাদের ইতিমধ্যে  কারণ দর্শানোর নোটীশ দেওয়া হয়েছে  কেন তাঁর অ্যাসোসিয়েশন অনুষ্ঠান চলাকালে  অন্যান্যের সহচর্যে এ হেন দূর্বৃত্তকর্মে লিপ্ত হলো ? ৭২ ঘন্টার মধ্যে উপযুক্ত কারণ দর্শাতে ব্যর্থ  হলে তাদেরকে তাদের পদ থেকে অব্যহতিও দেয়া হতে পারে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী রেষ্টুরেন্ট মালিক ফজলে আহমেদ চৌধুরি আয়াজ শনিবারের চিঠিকে বলেন, প্রবাসের মাটিতে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের জনসমুক্ষে সংঘর্ষ সত্যই লজ্জাস্কর । আমি এর তীব্র নিন্দা জানাই । রেষ্টুরেন্ট মালিক জনাব চৌধুরি ছাড়াও এ ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন জর্জিয়া আওয়ামী লীগের সভাপতি হুমায়ূন কবির কাওছার, জর্জিয়ার বিশিষ্ট কম্যুনিটি ব্যক্তিত্ব জর্জিয়া বাংলাদেশ সমিতির নির্বাচনকালীন প্রধান নির্বাচন কমিশনার মশিউর রহমান চৌধুরিসহ আরো অনেকে ।

প্রায় দুই ঘন্টা পরে অনুষ্ঠান আবার শুরু হলেও অনেক অতিথি এবং শিশু কিশোররা অনুষ্ঠান স্থল ছেড়ে চলে যায় । অনুষ্ঠানে মুক্তিযুদ্ধকালীন স্মৃতিচারন করে বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা হারুন রশিদ ও মোহাম্মদ আলী হোসেন ।

সাংস্কৃতিক পর্বে অংশ গ্রহণ করেন, সৈকত প্রধান, তাসলিমা সুলতানা পলি, হুসনে আরা বিন্দু, মাইসূন মালিহা , তাসকিনা তারাম্মুন প্রমুখ।

শনিবারের চিঠি / আটলান্টা / ০৪ এপ্রিল , ২০১৯

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ১১:২২ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ০৪ এপ্রিল ২০১৯

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com