জর্জিয়ায় সততার পরিচয় দিলেন প্রবাসী এক বাংলাদেশি

কুড়িয়ে পাওয়া ৩ লক্ষাধিক টাকা ফেরত দিলেন মালিককে

বুধবার, ১৩ জুলাই ২০২২

প্রতিকী ছবি

 

প্রবাসে বাংলাদেশিদের সততার অনেক খবরাখবর বিভিন্ন সময়ে পত্র- পত্রিকায় প্রকাশিত হয়ে আসছে । তেমনিই একটি সততার ঘটনার ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়ায় । ৩ লক্ষাধিক টাকা কুড়িয়ে পেয়ে টাকাগুলো প্রকৃত মালিকের কাছে ফেরত দিয়ে সততার দৃষ্টান্ত রেখেছেন মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম নামের এক প্রবাসী বাংলাদেশি ।


জানা যায়, মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম বৃহত্তর আটলান্টার ডুলুত শহরে বাংলাদেশি মালিকানাধীন একটি ছোট মুদি দোকানে চাকরি করেন । ১০ জুলাই রবিবার ঈদুল আজহার পরের দিন বিকেলের শিফটে কাজ শেষে করে দোকান বন্ধ করতে গিয়ে দেখেন দোকানের কাঁচ ঘেরা কাউন্টারের পাশে পরে রয়েছে বড় আকারের একটা ডলারের বান্ডিল । হঠাৎ ডলারের বান্ডিলটি দেখে হতচকিয়ে যান । এখানে এতগুলো ডলার কেন ? কে ভুলে ফেলে গেছে ? তাৎক্ষণিক দোকানের মালিক মুজিবুল আলমকে ঘটনাটি জানিয়ে দোকানের একটি নিরাপদ স্থানে রেখে দোকান বন্দ করে বাসায় ফিরে যান। কামরুল তখন ধারনা করেন দোকানের শেষ খরিদ্দারটি ছিল একই শপিং মলের ভারতীয় মালিকানাধীন আপনাবাজার নামক ভারতীয় মুদি দোকানের মালিক মোহাম্মদ সাফরান। ডলারগুলো তারই হতে পারে ?

কামরুলের ধারনাই ঠিক হয় । পরের দিন ১১ জুলাই দোকান খোলার সাথে সাথে মোহাম্মদ সাফরানের স্ত্রী দোকানে এসে খোঁজ নেন। এ সময় কামরুল ইসলামের ডিউটি ছিল না। অন্য এক কর্মচারি ডিউটিটে ছিলেন । ঐ কর্মচারি ডলার কুড়িয়ে পাওয়ার কোন খবর জানে না বলে মালিকের স্ত্রীকে জানান । কর্মচারি তাৎক্ষণিক কামরুল ইসলামের সাথে ফোনে যোগাযোগ করেন । কামরুল ডলার প্রাপ্তির কথা স্বীকার করেন । এবং বিকেলে ডিউটিতে এসে মালিকের কাছে তার সমুদয় ডলার ফিরিয়ে দেন। মালিকের পক্ষ থেকে জানা যায় সেখানে সাড়ে ৩ হাজার ডলার ছিল যা বাংলাদেশি টাকায় ৩ লক্ষ ২২ হাজার । মালিক পক্ষ খুশি হয়ে কামরুলের সততার জন্য কিছু বকশিস দিয়েছেন বলে তার স্ত্রী এ প্রতিনিধিকে জানান।

বাংলাদেশের ঢাকার অধিবাসী মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম পাঁচ বছরের উপরে পরিবার নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়ায় বসবাস করেন। সম্প্রতি তিনি যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকত্বও  লাভ করেছেন বলে জানা যায়।

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৯:১১ অপরাহ্ণ | বুধবার, ১৩ জুলাই ২০২২

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com