জর্জিয়ায় শেষ হলো ৪দিন ব্যাপি বিতর্কিত ভ্রাম্যমাণ দূতাবাস কার্য্যক্রম

বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯

জর্জিয়ায় শেষ হলো ৪দিন ব্যাপি বিতর্কিত ভ্রাম্যমাণ দূতাবাস কার্য্যক্রম
ভ্রাম্যমাণ দূতাবাসের কর্মকর্তা ও উদ্যোক্তা সংগঠনের সদস্যরা

Probashগত ৮ নভেম্বর থেকে ১১ নভেম্বর পর্যন্ত ৪ দিন ব্যাপি জর্জিয়ার আটলান্টায় অনুষ্ঠিত হলো এক বিতর্কিত ভ্রাম্যমাণ দূতাবাস কর্যক্রম। এই বিতর্কিত কার্যক্রম দু’টো করে বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন জর্জিয়া এবং বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব জর্জিয়া।

‘বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব জর্জিয়া’ জর্জিয়া প্রবাসী বাংলাদেশিদের মূল সংগঠন । এই সংগঠনের মাধ্যমেই বরাবর ভ্রাম্যমান দূতাবাস কার্যক্রম হয়ে থাকে । গত কয়েক বছর আগে ‘বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব জর্জিয়ার সাংগঠনিক কার্যক্রম স্থিমিত হয়ে পড়লে এই সুযোগটি ব্যবহার করে  বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন অব জর্জিয়া । এই সংগঠনের উদ্যোগে বেশ কয়েকবার ভ্রাম্যমান দূতাবাস কার্যক্রম জর্জিয়ায় অনুষ্ঠিত হয় । কথা হয় বাংলাদেশ অ্যাসোয়িয়েশন সক্রিয় হলে এই সংগঠন আর ভ্রাম্যমান দূতাবাস কর্যক্রমে হস্তক্ষেপ করবে না। দেখা যায় বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব জর্জিয়া ১০ ও ১১ নভেম্বর দূতাবাসের কার্যক্রমের ঘোষণা দিলে বাংলাদেশ ফাউণ্ডেশন অব জর্জিয়াও ৮ এবং ৯ নভেম্বর দূতাবাসের কার্যক্রমের ঘোষণা দেয় । দুই সংগঠনের কর্মসূচী জেনে জর্জিয়া প্রবাসী বাংলদেশিরা দ্বিধাবিভক্ত হয়ে বিভ্রান্তীতে পড়ে।


বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব জর্জিয়ায় অনুষ্ঠানে একটি ব্যস্ত মূহূর্ত

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব জর্জিয়ায় অনুষ্ঠানে একটি ব্যস্ত মূহূর্ত

প্রবাসীদের বিভ্রান্তীর  ব্যাপারে দুই সংগঠনে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য পাওয়া গেছে । বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব জর্জিয়ার সভাপতি মোস্তাফা মাহমুদ বলেন , ফাউন্ডেশনের প্রেসিডেন্ট ডাঃ মুহম্মদ আলী মানিক যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সহসভাপতি । তাই তিনি রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে এখানে বাংলাদেশিদের বিভ্রান্ত করেছেন। ডাঃ মুহম্মদ আলী মানিক তার এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন , শুধু  এবার নয় এর আগেও তিনি জর্জিয়ায় ভ্রাম্যমান দূতাবাস কার্যক্রম করিয়েছেন । তারই ধারাবাহিকতায় এবারও দূতাবাসকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। অন্যান্য অঙ্গরাজ্যে এক বা একাধিক সংগঠন এ কার্যক্রম করে থাকে ।

75412175_10219313437528706_54107559908343808_nযথারীতি বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ৮ নভেম্বর জর্জিয়ার শ্যাম্বলী শহরে স্থানীয় একটি বীমা অফিসে তাদের কার্যক্রম শুরু করে । বীমা অফিসে এমন কার্যক্রম করার অনুমোদন না থাকায় পুলিশের তৎপরতায় তা পণ্ড হয়ে যায় । পরের দিন ৯ নভেম্বর একটি রেস্টুরেন্টে তাদের নির্ধারিত কার্যক্রম শেষ করে ।

অন্যদিকে ‘বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব জর্জিয়া’ উদ্যোগে ১০ ও ১১ নভেম্বর দুই  দিন ব্যাপি ভ্রাম্যমান দূতাবাসের কার্য্যক্রম অনুষ্ঠিত  হয় স্থানীয় কোয়ালীটি ইন হোটেলের কনফারেন্স রুমে ।  প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত এ কার্য্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিপুল প্রবাসী বাংলাদেশি দূতাবাস সংক্রান্ত সেবা গ্রহণ করেন ।

‘বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব জর্জিয়া’ কর্তৃক শনিবারের চিঠিকে জানানো হয়েছে  পাসপোর্ট নবায়ন, নো ভিসা রিকয়ার, জরুরী নথিপত্র সত্যায়িত, পাওয়ার অব এ্যাটর্ণী, দ্বৈত নাগরিকত্ব আবেদনপত্র এমআরপি (মেসিন রেডাবল পাসপোর্ট) সহ বিভিন্ন  কন্সুলেট সেবা প্রদান করা হয়।

বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনেও অনুরুপ সেবা প্রদান করা হয়ে বলে এ প্রতিনিধিকে জানান সংগঠানের প্রেসিডেন্ট ডাঃ মুহম্মদ আলী মানিক ।

উভয় কর্মসূচী সাফল্য করতে বাংলাদেশ দূতাবাস ওয়াশিংটন  ডিসি থেকে দুই জন কার্মকর্তা   জর্জিয়া আসেন । কর্মকর্তাদ্বয় ছিলেন আসফাকুল নোমান ও মোহাম্মদ মাহমুদুল ইসলাম।

এখানে একটি স্থায়ী কন্সুলার অফিস খোলার  জর্জিয়া প্রবাসী বাংলাদেশিদের দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা । বাংলাদেশ সরকারের বিভিন্ন  পর্যায়ের  কর্মকর্তা বা রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ বিভিন্ন সময়ে স্থায়ী কন্সুলর অফিস খোলার আশ্বাস দিলেও আজও তা কার্যকর হয়নি।

গত ২ নভেম্বর  বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব জর্জিয়ার আয়োজনে  এখানে একটি স্থায়ী কনস্যুলার অফিসের দাবীতে   একটি সমাবেশও অনুষ্ঠিত হয়

শনিবারের চিঠি/ আটলান্টা / ১৩ নভেম্বর ২০১৯

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ১:১৬ অপরাহ্ণ | বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com