জর্জিয়ায় ভ্রাম্যমান দূতাবাসের কার্যক্রম অনুষ্ঠিত

বুধবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৪

জর্জিয়ায় ভ্রাম্যমান দূতাবাসের কার্যক্রম অনুষ্ঠিত
ছবিঃ শনিবারের চিঠি

ছবিঃ শনিবারের চিঠি

শনিবার রিপোর্টঃ গত ১ ও ২ নভেম্বর দু`দিন ব্যাপী জর্জিয়া বাংলাদেশ সমিতির আয়োজনে  আটলাণ্টায় ভ্রাম্যমান দূতাবাসের কর্য্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়। স্থানীয় সোনালী এক্সচেঞ্জ  কার্য্যালয়ে প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে সন্ধ্যে  ৭টা পর্য্যন্ত বিরতিহীন ভাবে এ কার্‍্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়।

   এ প্রতিনিধি জানতে পারে, বিভিন্ন ক্যাটাগরীতে সর্বমোট ৪শত ৭৪টি কার্য্য সম্পাদন করা হয়েছে।  তার মধ্যে নোভিসা রিকোয়ার্ড ২শত ৩২, নবায়ন ২শত ৫, পাওয়ার অব্ এটর্ণি ২২, দ্বৈত্য নাগরিকত্ব ৬টি এবং ভিসা ইস্যু করা হয় ৯টি।তবে কোন রকম নুতন পাসপোর্ট ইস্যু করা হয়নি। মেসিন রিডেবল পাসপোর্ট (এমআরপি) ও দেওয়া হয়নি। এমআরপি  প্রাপ্তির ক্ষেত্রে আবেদনকারীকে ওয়াশিংটন ডিসিস্হ বাংলাদেশ দূতাবাসে আবেদন করতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।


   জর্জিয়ায় বাংলাদেশিদের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে প্রতিদিনই এই ভ্রাম্যমাণ দূতাবাসে উপছে পড়া ভিড় সামলাতে দূতাবাস কর্মকর্তা ও স্বেচ্ছাসেবীদের হিমসিম খেতে হয়েছে।ফলে অতিরিক্ত সময় কাজ করতে হয়েছে। জর্জিয়া বাংলাদেশ সমিতি এবং বাংলাদেশি অন্যান্য সংগঠন জর্জিয়ায় একটি স্থায়ী কনসুলার অফিস প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে দীর্ঘদিন দাবী জানিয়ে আসছে।বিভিন্ন সময়ে জর্জিয়ায় সফররত বাংলাদেশ সরকারের উচ্চ পদস্থ বিভিন্ন করমকর্তা এমন কি মন্ত্রী পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ আটলান্টায় একটি স্থায়ী কনসুলারের স্থাপনের আশ্বাস দিলেও আজ পর্যন্ত আলোর মুখ দেখেনি।জর্জিয়ায় কনসুলার অফিস হলে আল-আবামা, টেনেসী, নর্থ ও সাউথ ক্যারোলিনা অংগ রাজ্যের প্রবাসী বাংলাদেশিরাও এখানে এসে তাদের দূতাবাস সংক্রান্ত কার্যাবলী সম্পাদন করতে পারবে।

   যাই হোক এ যাত্রায়  জর্জিয়া বাংলাদেশ সমিতির সভাপতি সম্পাদক যথাক্রমে মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন ও আহমাদুর রহমান পারভেজসহ সংগঠনের কর্মকর্তা কর্মীবৃন্দ এবং সেচ্ছাসেবীরা কার্যক্রমে যথেষ্ট শ্রম ও মেধা প্রদান করে কার্যক্রমকে সুষ্ঠ পরিচালনা করেছেন। উল্লেখ যোগ্যদের মধ্যে সমিতির কর্যকরী পরিষদের সদস্য মোহাম্মদ আলী হোসেন, মোহাম্মদ রেজা করিম, সহসভাপতি মিনাহাজুল ইসলাম বাদল, সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ আলি খান সজল প্রমুখ।

এ ছাড়াও সেচ্চাসেবীদের মধ্যে সোনালী এক্সচেঞ্জ ম্যানেজার বোরহান উদ্দিন আহমেদ, শাকিরা আলী বাচ্চি, অসীম সাহা, দেবযানী সাহা, অভিষেক শ্যাম, ইলিয়াস হাসান, শেখ জামাল, হুমায়ুন কবির কাউসার,  কায়দুজ্জামান, মাহবুবর রহমান ভূইয়া, সৈকত আহমেদ, মঞ্জুর হোসেন, নেহাল মাহমুদ, মোহন জব্বারসহ  বাঙালি কমিউনিটি আরো অনেকে।

   সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন ওয়াশিংটন ডিসিস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের কনসুলার বিভাগের মিনিস্টার মোহাম্মদ শামসুল আলম চৌধুরীর ও  প্রশাসনিক কর্মকর্তা মিজানুর রহমান ।

 

 

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ১০:৪৭ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৪

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com