জঙ্গিবাদের অভিযোগে নিউইয়র্কে এক বাংলাদেশি অভিযুক্ত

শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১

জঙ্গিবাদের অভিযোগে নিউইয়র্কে এক বাংলাদেশি অভিযুক্ত
অভিযুক্ত দেলোয়ার মোহাম্মদ হোসেইন [ ছবিঃ সংগৃহীত ]

নিউইয়র্কের বসবাসরত বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত দেলোয়ার মোহাম্মদ হোসেইনকে জঙ্গিবাদের সাথে সম্পৃক্ততার জন্য দণ্ড প্রদান করা হয়েছে। ৩৬ বছর বয়সী এ বাংলাদেশি আফগানিস্তানে গিয়ে জঙ্গি দলের সাথে যুক্ত হওয়া এবং আমেরিকানদের হত্যা পরিকল্পনা করছিলেন বলে অভিযোগ আনা হয়েছিল। ৮ অক্টোবর শুক্রবার নিউইয়র্কের আদালতে জুরি বোর্ড দেলোয়ার হোসেইনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে বলে দণ্ড প্রদান করেছেন। বিচারক তাঁর চূড়ান্ত রায়ে দেলোয়ার হোসেইনকে ৩৫ বছর পর্যন্ত কারাবাসের দণ্ড প্রদান করতে পারেন।

আদালতের নথি থেকে জানা গেছে , দেলোয়ার হোসেইন ২০১৮ সাল থেকে আফগানিস্তানের জঙ্গি গোষ্টির সাথে যোগাযোগ স্থাপনের প্রয়াস গ্রহণ করেন। এক পর্যায়ে তিনি আফগানিস্তানে যাওয়ার জন্য ১০ হাজার ডলার সঞ্চয়ে রাখেন। আফগানিস্তানে গিয়ে জিহাদি দলের সাথে যুক্ত হয়ে আমেরিকানদের হত্যা করার পরিকল্পনা করেন। তাঁর এ পরিকল্পনা মার্কিন গোয়েন্দাদের স্ট্রিং অপারেশনের মাধ্যমে ধরা পড়ে। গোয়েন্দারা পরিচয় আড়াল করে দেলোয়ার হোসাইনের সাথে যোগাযোগ করতে থাকেন। ২০১৯ সালে নিউইয়র্কের জেএফকে বিমানবন্দরে আফগানিস্তানে যাওয়ার পথে তাকে গ্রেফতার করা হয়।
জামিনে থাকা দেলোয়ার হোসেনকে শক্রবারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ইউএস ডিসট্রিক্ট জাজ সিডনি এইচ স্টেইন মামালার দণ্ড ঘোষণার জন্য আসছে ১২ জানুয়ারি তারিখ নির্ধারন করেছেন।


মামলায় সরকার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে , দেলোয়ার হোসেইন, তার ভাষায় অবিশ্বাসীদের হত্যা করার অভিপ্রায় ব্যক্ত করেছেন। সহকারী ইউএস এটর্নি জেসিকা ফেন্ডার আদালতে বলেছেন , দেলোয়ার হোসেইন জঙ্গি দলে যোগ দেয়ার জন্য নিজের সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা করেছেন। আফগানিস্তানের উদ্দেশ্যে নিউইয়র্ক থেকে রওয়ানা দেয়ার আগে দেলোয়ার বারে এবং রেস্তোরায় গিয়ে ক্রেডিট কার্ডে বিল প্রদান করেছেন। দেলোয়ার  মনে করেছেন , এমন কাজ করলে তাকে প্রকৃত মুসলিম জঙ্গি হিসেবে মার্কিন কতৃপক্ষ সন্দেহ করবে না । আফগানিস্তানে গিয়ে অস্ত্র এবং অন্যান্য সরঞ্জাম ক্রয়ের জন্য দেলোয়ার দশ হাজার ডলারের তহবিলও সঞ্চয়ে রাখেন বলে সরকার পক্ষ থেকে আদালতে বলে হয়েছে।

দেলোয়ার হোসেনের আইনজীবী এন্ড্রু ডালাক এবং এমি গ্যালিচিও বলেছেন তারা জুরি বোর্ডের রায়ে হতাশ হয়েছেন। দেলোয়ার হোসেন কখনো আফগানিস্তান ভ্রমণ করেননি। তালেবান দলের সাথে যোগদানের কোন ইচ্ছাই তার ছিল না। সরকার পক্ষের দাবী অনুযায়ী দেলোয়ার হোসেইন জঙ্গীদলের সাথে যোগ দিয়ে আমেরিকানদের হত্যার পরিকল্পনা করছিলেন। দেলোয়ারের আইনজীবীরা আদালতে বলেছেন , মনে মনে কোন অপরাধের চিন্তা করার জন্য কাউকে দণ্ড দেয়া যায় না। অপরাধের চিন্তা করাই দন্ডযোগ্য অপরাধ হিসেবে বিবেচিত হতে পারে না বলে তারা যুক্তি দিয়েছেন আদালতে।

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৬:১৮ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com