ছয় মাসের মধ্যে গ্রিনকার্ড আবেদন সম্পন্নের সুপারিশ

শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২

ছয় মাসের মধ্যে গ্রিনকার্ড আবেদন সম্পন্নের সুপারিশ
প্রতিকী ছবি

 

 


আমেরিকার গ্রিনকার্ড বা স্থায়ী বসবাসের জন্য সমস্ত আবেদন প্রক্রিয়া দ্রুত সম্পন্ন করার সুযোগ সৃষ্টি হচ্ছে। ছয় মাসের মধ্যে অনুমোদনপ্রক্রিয়া সম্পন্ন করার জন্য প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন নির্দেশনা অনুমোদন করতে পারেন। মার্কিন প্রেসিডেন্টের উপদেষ্টা কমিশন সর্বসম্মতভাবে জো বাইডেনের কাছে এ প্রস্তাব উপস্থাপন করেছে। প্রস্তবাটি প্রেসিডেন্টের অনুমোদনের অপেক্ষায়। এমন নির্দেশনা জারি হলে নতুন কোনো আইনপ্রণয়ন ছাড়াই ইমিগ্রেশন বিষয়ে বেশ কিছু ইতিবাচক অবস্থার সৃষ্টি হতে পারে।

এশিয়ান আমেরিকান, নেটিভ হাওয়াইয়ান এবং প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপবাসীদের (PACAANHPI) বিষয়ে প্রেসিডেন্টের উপদেষ্টা কমিশনের সুপারিশ গৃহীত হলে হাজার হাজার অভিবাসী উপকৃত হবে বলে মনে করা হচ্ছে। যারা কয়েক দশক থেকে গ্রিনকার্ডের জন্য অপেক্ষমাণ, তাদের অপেক্ষার অবসান ঘটবে। PACAANHPI-এর বৈঠকের সময় বিশিষ্ট ভারতীয়-আমেরিকান নেতা অজয় জৈন ভুটোরিয়া এ বিষয়ে প্রস্তাবটি উত্থাপন করেন। উপদেষ্টা কমিশনের ২৫ জন কমিশনার সর্বসম্মতভাবে এটি অনুমোদন দিয়েছেন। মুলতুবি থাকা গ্রিনকার্ড ব্যাকলগ কমাতে উপদেষ্টা কমিশন ইউএস সিটিজেনশিপ অ্যান্ড ইমিগ্রেশন সার্ভিসেসকে (ইউএসসিআইএস) তাদের প্রক্রিয়াগুলো স্ট্রিমলাইন করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার সুপারিশ করেছে। পরিবারভিত্তিক গ্রিনকার্ডের আবেদন, DACA পুনর্নবীকরণসহ অন্য সমস্ত গ্রিনকার্ডের আবেদন সংক্রান্ত সমস্ত ফর্ম প্রক্রিয়াকরণের সময় ছয় মাসে সম্পন্ন করার কথা বলা হয়েছে। কমিশন ন্যাশনাল ভিসা সেন্টার এবং স্টেট ডিপার্টমেন্টে সুবিধা বৃদ্ধির সুপারিশ করেছে। যাতে গ্রিনকার্ডের আবেদনের সাক্ষাৎকারপ্রক্রিয়া করার ক্ষমতা দ্বিগুণ করা যায়।

কমিশনের সুপারিশ অনুযায়ী, ২০২২ সালের আগস্ট থেকে তিন মাসে অতিরিক্ত অফিসার নিয়োগ করা হবে। এর ফলে গ্রিনকার্ডের আবেদনের ভিসা ইন্টারভিউ এবং সিদ্ধান্ত গ্রহণের ব্যবস্থাপনা ক্ষমতা ১৫০ শতাংশ বৃদ্ধি করা হবে। গ্রিনকার্ড ভিসা ইন্টারভিউ এবং ভিসা প্রসেসিং টাইমলাইন সর্বোচ্চ ছয় মাস হওয়া উচিত বলে সুপারিশে মন্তব্য করা হয়েছে। অভিবাসীদের থাকা এবং কাজ করা সহজ করার লক্ষ্যে কমিশন সুপারিশ করেছে যে, USCIS-কে তিন মাসের মধ্যে ওয়ার্ক পারমিট, ভ্রমণ নথি এবং অস্থায়ী অবস্থার এক্সটেনশন বা পরিবর্তনের জন্য অনুরোধগুলো পর্যালোচনা করা উচিত এবং সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত। বার্ষিক ২২ লাখ ৬০০০ গ্রিনকার্ডের মধ্যে ২০২১ সালে শুধুমাত্র ৬৫,৪৫২টি পারিবারিক গ্রিনকার্ড ইস্যু করা হয়েছিল। কোটা অনুযায়ী কয়েক লাখ গ্রিনকার্ড অব্যবহৃত (যার অনেকগুলো ভবিষ্যতে স্থায়ীভাবে নষ্ট হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে) থেকে গেছে। উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক দশকগুলোতে মার্কিন জনসংখ্যা উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পেলেও অভিবাসন ব্যবস্থা গতি বজায় রাখার জন্য কাঙ্ক্ষিত পরিবর্তন হয়নি। আমেরিকার জনবৃদ্ধির ভারসাম্য রক্ষার জন্য অভিবাসনের স্বাভাবিক প্রবাহ একটি প্রধান গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। অভিবাসনের বার্ষিক কোটা বা কতসংখ্যক লোকজনকে কোন্ খাতে অভিবাসন দেয়া হবে, তার একটা রূপরেখা নব্বই দশকে স্থির করা হয়েছিল।

গত তিন দশকের বেশি সময় থেকে তা মূলত অপরিবর্তিত রয়েছে। অথচ পরিস্থিতি বাস্তবতায় এর পুনর্বিন্যাস নিয়ে কথা হচ্ছে গত দুই দশক থেকে। কর্মসংস্থান এবং পরিবারভিত্তিক অভিবাসনের বার্ষিক সংখ্যা গণনা করার জন্য ব্যবহৃত পদ্ধতিটি গভীরভাবে ত্রুটিপূর্ণ বলে মনে করে অভিবাসী গ্রুপগুলো। ফলে গত ২০ বছর ধরে প্রতিবছর পরিবারভিত্তিক অভিবাসন স্তর তাদের সর্বনিম্নভাবে ঠিক করা হয়েছে। ফলে প্রতিবছর পরিবারের সদস্যদের জন্য কয়েক হাজার গ্রিনকার্ড নষ্ট হয়ে যায়। কোনো ব্যক্তি অভিবাসনের কোটা ব্যবহার না করলে, সেগুলো পরিবারের পুনর্মিলনের জন্য অন্যদের ব্যবহার করা দেয়া যেতে পারে বলে অবিভাসন অ্যাডভোকেটরা বলে আসছেন। অজয় জৈন ভুটোরিয়া বলেন, ‘পারিবারিক বিচ্ছেদ পরিবারগুলোর ওপর একটি ভয়ানক মানসিক আঘাত নেয় এবং এটি পরিবারের ওপর সুস্পষ্ট যৌক্তিক, অর্থনৈতিক এবং মানসিক কষ্ট আরোপ করে।’ অন্যান্য বিষয়ের মধ্যে কমিশন ইউএসসিআইএসকে অতিরিক্ত কর্মসংস্থানভিত্তিক গ্রিনকার্ড অ্যাপ্লিকেশন, সমস্ত ওয়ার্ক পারমিট পিটিশন এবং অস্থায়ী অভিবাসন স্ট্যাটাস বাড়ানোর আবেদন দ্রুততার সাথে প্রক্রিয়াকরণের সুপারিশ করা হয়েছে। যাতে আবেদনকারীদের ৪৫ দিনের মধ্যে তাদের মামলার বিচারের জন্য ফি জমা প্রদান করতে পারে এবং দ্রুততার সাথে অনুমোদন দেয়া হয়।

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৫:৪৬ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com