ডাকাতের শিক্ষক ভক্তিঃ প্রণাম করে বেরিয়ে গেলেন

ফেরত দিলেন মোবাইল ও বাজার খরচার টাকা

বুধবার, ১৩ জুলাই ২০২২

ডাকাতের শিক্ষক ভক্তিঃ প্রণাম করে বেরিয়ে গেলেন
প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক হরিশচন্দ্র রায় [ ছবিঃ সংগৃহীত ]

মুর্শিদাবাদের ফারাক্কা ব্যারেজ প্রজেক্ট হাইস্কুলের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষকের বাড়িতে ডাকাতি করতে এসে তাঁর সমস্যার কথা শুনে কিছু টাকা এবং একটি মোবাইল ফোন রেখে গেলেন দুই ডাকাত। অবাক করা এই ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার রাতে। ইতিমধ্যেই গোটা ঘটনার লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে ফারাক্কা থানায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সোমবার রাত ন’টা নাগাদ ফারাক্কা ব্যারেজ প্রজেক্ট হাইস্কুলের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক হরিশচন্দ্র রায় (৮০) তাঁর ভাই নারায়ণ চন্দ্র রায়ের সাথে খেতে বসেছিলেন। প্রচণ্ড গরম থাকার কারণে তাদের বাড়ির মূল দরজা খোলাই ছিল।  আচমকা সেই ঘরে ধারালো অস্ত্র হাতে ঢোকেন দুই যুবক। তাঁদের মুখ ঢাকা ছিল। ঘরে পা রেখেই দুই যুবক হাঁক দেন, ‘‘কেয়া হ্যায় ঘরমে, নিকালো!’’ ডাকাত পড়েছে বুঝে বিন্দুমাত্র প্রতিবাদ করেননি হরিশ্চন্দ্র। তাঁর ভাই নারায়ণ চন্দ্র  প্রতিবাদ করেছিলেন সামান্য। কিন্তু দুই যুবক তাঁকে শৌচাগারের মধ্যে ঢুকিয়ে বাইরে থেকে শিকল এঁটে দেন। এর পর আর টুঁ শব্দ করার সাহস পাননি শিক্ষক হরিশচন্দ্র গুটি গুটি পায়ে আলমারি খুলে ১৫ হাজার টাকা বার করে দুই যুবকের হাতে তুলে দেন অবসরপ্রাপ্ত ঐ শিক্ষক। দুই যুবক বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে দু’টি মোবাইল নিয়ে নেন বলেও অভিযোগ।


ঘটনা নাটকীয় মোড় নেয় দুই যুবক বাড়ি ছেড়ে চলে যাওয়ার সময়। তাঁদের মধ্যে এক জন আচমকাই হরিশচন্দ্রের পা ছুঁয়ে প্রণাম করেন। ডাকাতের এত ‘ভক্তি’ দেখে বুকে কিছুটা ভরসা ফেরে শিক্ষকেরও। তিনি পাল্টা বলেন, ‘‘বাবারা, তোমরা যদি বাজার করার জন্য কিছু টাকা দাও তা হলে ভাল হয় ? ’’ তখন লুটিয়ে নেয়া টাকা থেকে ২ শত টাকা শিক্ষকের হাতে তুলে দেন এক  ডাকাত। আবার এক বার প্রণাম করে বলেন, ‘‘আপাতত এটা রাখুন। চিন্তা করবেন না।’’ এর পর তারা চম্পট দেন।

‘চিন্তা’র আর বিশেষ কিছু নেই দেখে পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন শিক্ষক। তবে দুই ডাকাতের ‘ভক্তি’তে বিস্মিত হরিশ চন্দ্র। পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেও, উদাসীন গলায় তাঁর মন্তব্য, ‘‘সবাই তো আর ইচ্ছে করে চোর হয় না। হয়তো পরিস্থিতি বাধ্য করেছে।’’

শিক্ষক অভিযোগ করেন, ‘ফারাক্কা ব্যারেজ টাউনশিপ নিরাপত্তার দায়িত্ব সিআইএসএফের হাতে থাকলেও জওয়ানরা সারাদিন ঘুরে বেড়ায়, ঠিকমতো ডিউটি করে না। তার ফলে টাউনশিপ এলাকাতে এই ধরনের ঘটনা বেড়েই চলেছে।’ অন্যদিকে ফারাক্কা থানার এক শীর্ষ আধিকারিক জানিয়েছেন, ঘটনার লিখিত অভিযোগ তারা পেয়েছেন এবং দুষ্কৃতীদের খোঁজে বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৭:৪০ অপরাহ্ণ | বুধবার, ১৩ জুলাই ২০২২

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com