চলে গেলেন ঢাবির সাবেক ভিসি রাষ্ট্রবিজ্ঞানী এমাজউদ্দীন আহমেদ

শুক্রবার, ১৭ জুলাই ২০২০

চলে গেলেন ঢাবির সাবেক ভিসি রাষ্ট্রবিজ্ঞানী এমাজউদ্দীন আহমেদ
সদ্য প্রয়াত এমাজউদ্দিন আহমেদ পুরনো ছবি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ও রাষ্ট্রবিজ্ঞানী এমাজউদ্দীন আহমদ আর নেই ।আজ ভোরে ( বাংলাদেশ )শুক্রবার ধানমণ্ডির ল্যাবএইড হাসপাতালে হার্ট অ্যাটাকে চলে গেলেন না ফেরার দেশে ( ইন্নালিল্লাহে … রাজেউন ) ।

তার মেয়ে দিল রওশন জিন্নাত আরা নাজনীন গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।


রওশন জিন্নাত আরা নাজনীন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক।

তিনি আরও বলেন, শারীরিক অবস্থা খারাপ হলে গতকাল রাত ২টার দিকে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে ভোর ৫টার দিকে হার্ট অ্যাটাক করেন তিনি।

তার মেয়ে জানান, হাসপাতালে নেয়ার আগে তার মধ্যে অসুস্থতার কোনো চিহ্ন ছিল না।

আনুষ্ঠানিকতা শেষে মিরপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে বলে জানিয়েছেন জিন্নাত আরা নাজনীন।

১৯৯২ থেকে ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন এমাজউদ্দীন আহমদ।

এমাজউদ্দীন আহমদ বিএনপির অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ ছিলেন এবং দলটির নীতি-নির্ধারণে তার গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব ছিল বলে ধারণা করা হতো।

অধ্যাপক ড. এমাজউদ্দীন আহমদের প্রথম নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বাদ জুমা রাজধানীর নীলক্ষেত কাঁটাবনের মসজিদে মুনাওঅরে তার জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

এরপর সর্বস্তরের মানুষ এই রাষ্ট্রবিজ্ঞানীর কফিনে ফুলেল শ্রদ্ধা জানান।

জানাজায় বিভিন্ন রাজনৈতিক-সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অংশ নেন। জানাজায় ছিলেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নেতা ডা. জাফরুল্লাহ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক অধ্যাপক মাহবুবউল্লাহ।

বিএনপি নেতাদের মধ্যে দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী আহমেদ, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু, কেন্দ্রীয় নেতা আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা আবদুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েল, কৃষক দলের কেন্দ্রীয় নেতা মিয়া মোহাম্মদ আনোয়ার, আব্দুর রাজি, কৃষকদল খুলনা বিভাগীয় নেতা আমিনুর রহমান মিনু, বংশাল থানা কৃষকদল নেতা মো. সোহেল, মতিঝিল কৃষকদল নেতা মো. আবুল খায়ের, লেবার পার্টির নেতা মোস্তাফিজুর রহমান ইরান প্রমুখ অংশ নেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সামনে অধ্যাপক এমাজউদ্দীনের দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।

বৃহস্পতিবার রাত ২টায় স্ট্রোক করলে অধ্যাপক এমাজউদ্দীনকে রাজধানীর ল্যাব এইড হাসপাতালে নেয়া হয়। ভোর ৬টার দিকে সেখানে মারা যান তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৮ বছর।

মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে মরহুমের স্ত্রীর পাশে এমাজউদ্দীনকে সমাহিত করা হবে।

শনিবারের চিঠি / আটলান্টা / জুলাই ১৭, ২০২০

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৪:৩৮ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ১৭ জুলাই ২০২০

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com