গৃহকর্মীকে ‘ধর্ষণ’, ঢাকা মহানগর ছাত্রলীগনেতা রিমান্ডে

শুক্রবার, ০২ অক্টোবর ২০২০

গৃহকর্মীকে ‘ধর্ষণ’, ঢাকা মহানগর ছাত্রলীগনেতা রিমান্ডে
ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের সহসভাপতি সবুজ আল সাবাহ। ছবি : সংগৃহীত

গৃহকর্মীকে ধর্ষণের মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের সহসভাপতি সবুজ আল সাবাহকে রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ।


গতকাল বুধবার রাতে মিরপুরের পীরেরবাগের নিজ বাসা থেকে সবুজ আল সাবাহকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় ধর্ষণের সহযোগিতার অভিযোগে বিবি ফাতেমা ওরফে ঝুমুর নামে আরেক নারীকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিরপুর বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) মাহাতাব উদ্দিন গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন।

পরে সবুজ আল সাবাহ ও বিবি ফাতেমা ওরফে ঝুমুরকে আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মিরপুর মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) রোখসানা আক্তার রুনা রিমান্ডের আবেদন করেন। অপরদিকে আসামিদের আইনজীবীরা জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক ধীমান চন্দ্র মণ্ডল সবুজ আল সাবাহর পাঁচ দিনের এবং বিবি ফাতেমা ওরফে ঝুমুরের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সংশ্লিষ্ট আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা (জিআরও) আব্দুল ওয়াদুদ।

পুলিশ হেফাজতে ছাত্রলীগ নেতা সবুজ আল সাবাহ

সন্ধ্যায় মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বলেন, ‘আসামি বিবি ফাতেমা ওরফে ঝুমুরের বাড়ি কুমিল্লায়। বাদী মূলত ঝুমুরের বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করেন। ডাক্তার দেখানোর কথা বলে ঝুমুর গত ২৮ সেপ্টেম্বর কুমিল্লা থেকে গৃহকর্মীকে ঢাকায় নিয়ে আসেন এবং সবুজ আল সাবাহর বাসাতেই উঠেন। ঝুমুরের সঙ্গে সবুজ আল সাবাহর পরিচয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে। সেই পরিচয়ের সূত্র ধরেই তিনি সবুজ আল সাবাহর বাসায় আসেন।’

এদিকে মামলার বরাত দিয়ে পুলিশ জানিয়েছে, গতকাল বুধবার এক নারী ধর্ষণের অভিযোগ এনে সবুজ আল সাবাহ এবং তাঁর বান্ধবী ঝুমুরের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। মামলার এজাহারে বাদী বলেছেন, তাঁকে ডাক্তার দেখানোর নাম করে দুই নম্বর আসামি বিবি ফাতেমা ওরফে ঝুমুর মিরপুরের পীরেরবাগের এক নম্বর আসামি সবুজ আল সাবাহর বাসায় নিয়ে যান। পরে একটি কক্ষে নিয়ে তাঁকে ধর্ষণ করেন সবুজ।

সবুজ আল সাবাহ এর আগে ঢাকা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ছাত্রলীগের সহসভাপতি ছিলেন। তাঁর গ্রামের বাড়ি গোপালগঞ্জ জেলায়।

সবুজ আল সাবাহর বিষয়ে মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান হৃদয় গণমাধ্যমকে বলেন, ‘সবুজের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ শুনেছি। আমরা এমন নেতাকর্মীকে সংগঠনে রাখতে চাই না। সবুজ আল সাবাহকে যাতে বহিষ্কার করা হয় সেজন্য আমরা কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগকে সুপারিশ পাঠাচ্ছি।’

শনিবারের চিঠি/ আটলান্টা/ অক্টোবর ০২, ২০২০

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৬:৫৩ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, ০২ অক্টোবর ২০২০

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com