খেলাকে কেন্দ্র করে রাজশাহী মেডিকেলে গোলাগুলিঃ আহত ৩ আটক ৫

শুক্রবার, ০৭ এপ্রিল ২০১৭

খেলাকে কেন্দ্র করে রাজশাহী মেডিকেলে গোলাগুলিঃ আহত ৩ আটক ৫

রাজশাহীঃ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ  হাসপাতাল হোস্টেলে ছাত্রলীগ ও ছাত্রশিবিরের মধ্যে সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে নুরুন্নবী হোস্টেলে এ সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনায় অন্তত তিনজন আহত হয়েছেন। তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা।

শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশের টি-টুয়েন্টি খেলাকে কেন্দ্র করে এ সংঘর্ষের সূত্রপাত বলে জানা গেছে। তবে তৎক্ষনিকভাবে আহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি।


নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক রামেকের কয়েকজন শিক্ষার্থী জানান, শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশের টি-টুয়েন্টি খেলায় বাংলাদেশ বিজয়ী হলে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা উল্লাস করে। এসময় ছাত্রশিবিরের কয়েকজন কর্মী তাদের ব্যাপারে কুটুক্তি করে। এসময় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের সঙ্গে ছাত্রশিবিরের কর্মীদের বাকবিতন্ডা হয়। এর পর পরই উভয়পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার এক পর্যায়ে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এসময় তিনজন আহত হন। পরে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সংঘর্ষের খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ পৌঁছালে শিবির কর্মীরা হলে ঢুকে গিয়ে ভিতর থেকে তালা দিয়ে দেয়। ওই হোস্টেল অভিযানের জন্য রাত ১টার দিকে পুলিশ তালা ভাঙার প্রস্তুতি নেয় বলে জানা গেছে।
রাজপাড়া থানার ওসি আমান উল্লাহ জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে। তবে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে কি না তা জানা নেয় বলে জানান তিনি।

আটক ৫
অপর এক খবরে জানা যায়, রাজশাহী মেডিকলে কলেজ ছাত্রলীগ-ছাত্রশিবিরের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে। যাদের ছাত্রশিবিরের নেতাকর্মী বলে দাবি করেছে পুলিশ। সংঘর্ষের পর মেডিকেল কলেজ বিভিন্ন হোস্টেলে তল্লাশী জানিয়ে তিনজন ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুইজনকে আটক করা হয় বলে জানিয়েছেন রাজপাড়া থানার ওসি আমান উল্লাহ।

তিনি জানান, আটককৃতরা ছাত্রশিবিরের নেতাকর্মী। তাদের কক্ষে তল্লাশী চালিয়ে একটি চাইনিচ কুড়াল, বেশকিছু বাটুল ও কাচের মারবেল এবং ছাত্রশিবিরের নথিপত্র উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

ওসি বলেন, প্রশিক্ষনার্থী চিকিৎসকদের র‌্যাগ ডে উপলক্ষে বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে কায়সার রহমান হোস্টেল প্রস্তুতি সভায় কথা কাটাকারির এক পর্যায়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে ছাত্রলীগ ও ছাত্রশিবিরের নেতাকর্মীরা। ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার এক পর্যায়ে গোলাগুলির ঘটনাও ঘটে। সংঘর্ষের সময় হাবিবুর রহমান ও আবু জাফর নামে দুইজন আহত হন। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ওসি আমান বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। রাত ১টার পর বিভিন্ন হোস্টেলে পুলিশ তল্লাশী চালায়। এসময় তিনজনকে আটক করে হয়। আর চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাবিবুর ও জাফরকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে বলে জানান ওসি।

আটক অপর তিনজন হলেন, ফয়সাল রাহাত, মিজানুর রহমান, গোলাম রাব্বী। তাদের হোস্টেলে তল্লাশী চালিয়ে আটক করা হয়। এদের মধ্যে রাহাত রেটিনা কোচিং সেন্টারের ব্যবস্থাপক।
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ প্রশিক্ষনার্থী চিকিৎসক পরিষদের আহবায়ক শফিকুল ইসলাম অপু বলেন, আগামী ৪ মে প্রশিক্ষনার্থীদের চিকিৎসকদের র‌্যাগ ডে অনুষ্ঠান হবে। এ অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি সভায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান কর্মসূচীতে আপত্তি জানায় ছাত্রশিবিরের নেতাকর্মীরা। তাদের দেয়া চাঁদার টাকার গান বাজনা করতে দেবে না বলে ঘোষণা দেয় তারা। এ সময় কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে ধাক্কাধাক্কি থেকে সংঘর্ষের সূত্রপাত হয় বলে জানান তিনি।

শনিবারের চিঠি /আটলান্টা / এপ্রিল ০৭, ২০১৭

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৫:২২ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ০৭ এপ্রিল ২০১৭

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com