খানকা শরীফে গিয়ে ধর্ষণের শিকার প্রবাসীর স্ত্রী

এখন অন্তঃসত্ত্বা

শুক্রবার, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১

খানকা শরীফে গিয়ে ধর্ষণের শিকার প্রবাসীর স্ত্রী
প্রতিকী ছবি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায় ছেলের জন্য তাবিজ আনতে গিয়ে খানকা শরীফের তত্ত্বাবধায়কের লালসার শিকার হয়ে অন্তঃসত্ত্বা হয়েছেন এক প্রবাসীর স্ত্রী।

এ ঘটনায় গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় অভিযুক্ত মাওলানা সিরাজুল ইসলামকে (৪৮) আটক করেছে পুলিশ। তিনি হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলার বড়গাঁ গ্রামের মৃত আশিকুল ইসলামের ছেলে।


নবীনগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুর রশিদ জানান, নবীনগর উপজেলার ভোলাচং গ্রামের বাসিন্দা ওই প্রবাসীর স্ত্রী তার ছেলের জন্য তাবিজ আনতে শ্রীরামপুর গ্রামের আবু উলাইয়া খানকা শরীফ যান। সেখানকার তত্ত্বাবধায়ক মাওলানা সিরাজুল ইসলাম মানুষজনকে বিভিন্ন রোগের জন্য তাবিজ দিতেন। ঝাড়ফুঁক দিতেন। তাবিজের জন্য ওই প্রবাসীর স্ত্রীর খানকা শরীফে আসা-যাওয়া ছিল।

ওসি আরও জানান, খানকা শরীফের তত্ত্বাবধায়কের লালসার শিকার হয়েছে প্রবাসীর স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়েছেন, স্থানীয়রা এ নিয়ে কানাঘুষা শুরু হলে পুলিশ সিরাজুল ইসলামকে আটক করে। প্রাথমিকভাবে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে।

শনিবারের চিঠি / আটলান্টা/ ফেব্রুয়ারি ০৫,২০২১

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৭:০৫ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com